আইপি অ্যাড্রেস, ডোমেইন নেম ও ইউআরএল এর বিস্তারিত

আইপি অ্যাড্রেস  


📢 Promoted post: বাংলায় আর্টিকেল লেখালেখি করে ইনকাম করতে চান?

ডোমেইন নেম সম্পর্কে জানার পূর্বে আমাদের আইপি অ্যাড্রেস (IP Address) সম্পর্কে জানা প্রয়োজন।

👉Read more: ফুল নিয়ে ক্যাপশন (সাদা ফুল, কৃষ্ণচূড়া ফুল, সূর্যমুখী, সরষে ফুল, রঙ্গন ফুল) উক্তি, স্ট্যাটাস

ইন্টারনেটে যুক্ত প্রতিটি কম্পিউটারের একটি ঠিকানা থাকে। এ ঠিকানাকে বলা হয় আইপি অ্যাড্রেস। একটি আইপি গড়ে ওঠে ৩২-বিট ব্যবহার করে। এ বিটগুলোর প্রতি আটটিকে নিয়ে গড়ে ওঠে একটি করে অকটেট। সুতরাং আইপি অ্যাড্রেসে থাকছে চারটি অকটেট বা ৩২-বিট। একটি আইপি অ্যাড্রেস তিনভাবে প্রকাশ করা যেতে পারেঃ

  • ডটেড ডেসিম্যালঃ 16.254.1
  • বাইনারিঃ 1011011.10001011.10
  • হেক্সাডেসিম্যাল: CB:5B:8B:2

এভাবে আইপি অ্যাড্রেসের জন্য সংখ্যা মনে রাখা কষ্টকর। তাই মনে রাখার জন্য ডোমেইন নেম ব্যবহার করা হয়।

grathor-ads

ডোমেইন নেম

আইপি এড্রেস নম্বর ধারা লিখিত হয়। আইপি অ্যাড্রেসের জন্য সংখ্যা মনে রাখা কষ্টকর। তাই আইপি অ্যাড্রেসকে সহজে ব্যবহারযোগ্য করার জন্য ইংরেজি অক্ষরের কোন নাম ব্যবহার করা হয়। ক্যারেক্টার ফর্মের দেয়া কম্পিউটারের এরূপ নামকে ডোমেইন নাম বলা হয়। ডোমেইন নেমকে কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয়, যাতে করে একই নাম অন্য কেউ ব্যবহার করতে না পারে। যে পদ্ধতিতে ডোমেইনকে নিয়ন্ত্রণ করা হয় তাকে ডিএনএস বলে। এখানে google.com ডোমেইন নেম এর দুটি অংশ দেখা যাচ্ছে।  ডট এর পর শেষ অংশটিকে টপ লেভেল ডোমেইন বলা হয়।

📢 Promoted Link: Unlimited Internet Package Teletalk 2022 3G, 4G

এটি থেকে সভা সহজেই বোঝা যায় প্রতিষ্ঠানটি কোন ধরনের। টপ লেভেল ডোমেইন সমূহকে আবার জেনেরিক এবং কান্ট্রি দুটি বৃহৎ ভাগে ভাগ করা হয়েছে। নিচে ছয় ধরণের জেনেরিক টপ-লেভেল ডোমেইন দেখানো হলো।

  • .com (Commercial)
  • .gov (Government)
  • .mil (Military)
  • .edu (Education)
  • .net (Network)
  • .org (Organization)

ইউআরএল

কোন ওয়েব পেজকে প্রদর্শন করতে ওয়েব ব্রাউজারে এর ঠিকানা নির্দিষ্ট করে দিতে হয়। ইউআরএল (URL) হলো ওয়েবসাইটের একক ঠিকানা। প্রতিটি ইউআরএল থাকে-

  • ওয়েব প্রোটোকল
  • ওয়েব সার্ভারের নাম
  • সার্ভারের ডিরেক্টরি (অথবা ফোল্ডার) এর নাম
  • ঐ ডিরেক্টরির মধ্যকার ফাইলসমূহ (html অথবা htm এক্সটেনশনযুক্ত)

http:// প্রোটোকলঃ http প্রোটোকল হলো তথ্য বিনিময়ের যোগাযোগ নিয়ম যা ওয়েব ব্রাউজারকে ওয়েব সার্ভারের সাথে যোগাযোগ করার অনুমতি দেয়। প্রায় সব ওয়েব অ্যাড্রেসই শুরু হয় http:// দিয়ে। তাই ওয়েব অ্যাড্রেসে এ অংশটি লেখা হয় না। www অংশ দিয়েই শুরু হয়।

www.google.com: ওয়েব সার্ভার সুনির্দিষ্ট একটি কম্পিউটার যেটাতে এ ওয়েবসাইটি আছে। World wide web এর সংক্ষিপ্ত রূপ www। এখানে google হলো প্রতিষ্ঠানটি নাম এবং com হলো টপ লেভেল ডোমেইন, যেটি দিয়ে বোঝা যায় যে এটি একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান।

ডিরেক্টরি নামঃ সার্ভারের মধ্যে ওয়েব পেজগুলো যে ডিরেক্টরিতে আছে, ওয়েব ব্রাউজার এ ডিরেক্টরি থেকে কাঙ্ক্ষিত ফাইল খুলে প্রদর্শন করে।

ফাইল এবং এক্সটেনশনঃ ফাইল হলো নির্দিষ্ট কোন পেজ অথবা ডকুমেন্ট যা খোঁজা হয়। .htm  হলো ফাইলটির এক্সটেনশন। এটি ব্রাউজার কে নির্দিষ্ট করে যে ফাইলটি হলো htm।

Related Posts

12 Comments

মন্তব্য করুন