★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন?

আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ। ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন? বা ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আসলেই ইনকাম সম্ভব ? ওয়েবসাইট তৈরি করে কিভাবে ইনকাম করে এই পুরো গাইডলাইন আজকেরে আর্টিকেলে দিয়ে দিব ইনশাল্লাহ।

তাই আর্টিকেলে শুরুতেই বলব আর্টিকেলটি মনোযোগ সরকারের শেষ পর্যন্ত পড়ুন আশা করি উপকৃত হবেন একটু হলেও। এজন্য ছোট্ট একটি অনুরোধ সেটা হল আর্টিকেলটি একটু মনোযোগ দিয়ে শেষ পর্যন্ত পড়া। ভাই এতে তোমারে বেশি লাভ হওয়ার সম্ভাবনা।

ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে ইনকাম করতে হয়?

ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম: ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য নানারকম প্ল্যাটফর্ম রয়েছে। তার ভিতরে সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম হল ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস। আপনারা এই দুটি প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে খুবই প্রফেশনাল ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

একটি ওয়েবসাইট থেকে মাসে প্রায় লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব।এমনকি বাংলাদেশে এমন ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে তাদের মাসিক আয়ের প্রায় লক্ষাধিক এর বেশি টাকা। একটি ওয়েবসাইট করার মাধ্যমে আপনি চাইলেও ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারেন।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে তিনটা জিনিস দরকার।এই তিনটা জিনিস ছাড়া আপনি কখনোই একটি ওয়েবসাইট প্রফেশনালভাবে ক্রিয়েট বা তৈরি করতে পারবেন না। এমনকি আপনার ওয়েবসাইটে আকৃষ্ট করে দিবে এই তিনটি জিনিস।এমনকি ওয়েবসাইটটি ধরে রাখতে হলেও এই তিনটি জিনিসের খুবই প্রয়োজন।

  • এক নম্বর থিম।
  • দুই নম্বর হোস্টিং।
  • তিন নম্বর হলো ডোমেইন।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে এই তিনটি জিনিসের কোন বিকল্প নেই। এমনকি ওয়েবসাইট টি ধরে রাখতেও আপনার এ তিনটি জিনিস লাগবেই। আগে আমরা এগুলোর সাথে পরিচিত হয়ে নিব। তারপর কিভাবে ইনকাম আছে সে বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।

থিম ওয়েবসাইটে দরকার কেন: থিম হলো আপনার ওয়েবসাইটের সৌন্দর্য। থিম এর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটি প্রফেশনাল ভাবে সাজাতে পারবেন।এমনকি ভিজিটরও ধরে রাখতে সক্ষম করে আপনার ওয়েবসাইটের থিম। এককথায় থিম ছাড়া আপনার ওয়েবসাইট একেবারেই অযোগ্য।

তাই আপনার ওয়েবসাইটের থিম অবশ্যই দরকার হবে সৌন্দর্যের জন্য এবং দর্শকের ধরে রাখার জন্য। তাছাড়া থিমের জন্য ইনকাম বেশি এসে থাকে। এমনকি থিম এর জন্য গুগল থেকে অটোমেটিক্যালি ভিজিটর আসে। তাই আপনার ওয়েবসাইটে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এই থিম।

হোস্টিং এর কাজ কি: হোস্টিং হলো জায়গা স্থান। আপনার ওয়েব সাইটে যতগুলো আর্টিকেল ইমেজ সহ ইত্যাদি গুলো রাখার জন্য হোস্টিং এর প্রয়োজন। আগেই বলেছি হোস্টিং হলো জায়গা। এখানে আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য গুলো সরবরাহ থাকবে।

সহজভাবে বলতে গেলে, ধরুন আপনি ফসল উৎপাদন করতে চাচ্ছেন, তাহলে আপনাকে সর্বপ্রথম একটা জায়গার প্রয়োজন হবে তাইনা। তাছাড়া আপনি কীভাবে ফসল উৎপাদন।তো যে জায়গা রয়েছে জায়গা ছাড়া যেমন ফসল উৎপন্ন সম্ভব নয়। ঠিক তেমনি ভাবে এই একটি ওয়েবসাইটের তথ্যগুলোর রাখার জন্য এই হোস্টিং এর প্রয়োজন।

ডোমেইন কি দরকার ওয়েবসাইটে: ডোমেইন হলো আপনার ওয়েবসাইটটি প্রফেশনাল অ্যাড্রেস । দেখুন আমরা যতক্ষণ ফ্রিতে ওয়ার্ডপ্রেসে বা অন্য কোথাও যেমন ব্লগস্পটে ওয়েবসাইট তৈরি করব। তখন আমাদের একটি সাবডোমেইন দিবে সেটা হল আপনার সাইটের নাম প্লাস blogspot .com

ধরুন আপনার ওয়েবসাইটের নাম prothom-alo. Blogspot.com এই এড্রেস টা যখন আপনি ফ্রিতে তৈরি করবেন তখন দিবে।এখন এত বড় নাম তো আমাদের মনে রাখা সম্ভব না। আপনার ওয়েবসাইটে যদি হতো grathor.com তাহলে সহজে মনে রাখা সম্ভব হতো তাইনা।

এখানে ডোমেইন এর কাজ হল আপনার ওয়েবসাইটটি ডট কম এ রুপান্তর করা। ধরুন আপনার ওয়েবসাইটটি prothom-alo. blogspot.com এখন ডোমেন যে কাজটি করবে সেটা হল আপনার ওয়েবসাইটের নামটি পাল্টে দিবে। যেমন grathor.com। আশাকরি ডোমেইন এর কাজটা কি বুঝতে পেরেছেন অসুবিধা হলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে একদমই ভুলবেন না।

এভাবে করেই আপনার ওয়েবসাইটটি প্রফেশনাল ভাবে সাজিয়ে ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করতে পারবেন। যখন আপনার ভালো পরিমান ভিজিটর হয়ে যাবে তখন আপনি এডসেন্সের মাধ্যমে এই ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

তোমাদের আজকের আর্টিকেলটি এ পর্যন্তই। যদি এ আর্টিকেল থেকে কোন প্রশ্ন থাকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে একদম ভুলবেনা। সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন এবং আমাদের পাশেই থাকুন। এই আশা ব্যক্ত কামনা করে আজকের মত বিদায় নিচ্ছি আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহু।