★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

কম পুজি দিয়ে অনলাইনে ব্যবসার ৪টি ইউনিক আইডিয়া

আসসালামু আলাইকুম সবাইকে। আশা করছি সবাই ভালো ও সুস্থ আছেন। প্রতিদিন আমরা দিয়ে আসছি নিত্যনতুন বিজনেস আইডিয়া। জীবনে সফলতার জন্য অনলাইনে এই ব্যবসা করে আয় সফল হতে পারবেন। বিস্তারিত পড়েন ও শেয়ার করেন

১) লেখা ও সম্পাদনা (Writing, Proofreading & Editing)

আপনার কাছে যে কোনও ভাষায় বিশেষ করে ইংরেজি লেখার দক্ষতা থাকলে এবং কন্টেন্ট সম্পাদনার দক্ষতা থাকলে এই অনলাইন ব্যবসা টি করতে পারেন।



বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রতিদিন শত শত নিবন্ধ ও কন্টেন্ট লেখা হয়। এগুলো লেখার জন্য নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম রয়েছে। আপনার লেখারটি জন্য গুগল সার্চ ইঞ্জিনে প্রথমে আসার জন্য, আপনাকে সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশনে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। অনলাইনে আরও অনেক ধরণের লেখার সন্ধান পাবেন, পাশাপাশি কন্টেন্ট সম্পাদনা এবং প্রুফ রিডিংয়ের কাজও এখন খুব এভেইলেবল।

২)ইউটিউব চ্যানেল

অনলাইনে ব্যবসা করার আর একটি সহজ উপায় হ’ল একটি ইউটিউব চ্যানেল, যা একটি লাইফ টাইম আর্নিং অপরচুনিটি হতে পারে। রান্না করা থেকে শুরু করে ভ্রমণ, সঙ্গীত থেকে প্রতিদিনের নিজের দক্ষতা ভিডিও তে ধারণ করে তা বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে দিতে YouTube প্লাটফর্ম ব্যবহার করতে পারেন। এর মাধ্যমে খ্যাতি অর্জনের পাশাপাশি আপনি বাড়তি কিছু আয় করতে পারবেন।

যদি পর্যাপ্ত দর্শক বা ভিউয়ার আপনার চ্যানেলে আপলোড করা ভিডিওগুলি দেখে, তবে আপনি বিজ্ঞাপনের জন্য গুগল এডসেন্সে আবেদন করতে পারবেন। তবে ভিডিওর ওয়াচটাইম বাড়ানোর জন্য আপনাকে নিয়মিত অভিনব ও আকর্ষণীয় ভিডিও বানাতে হবে যাতে দর্শকরা অন্য চ্যানেলগুলি বাদ দিয়ে আপনার চ্যানেলটি দেখে। ভিডিওর মানের প্রতিও বিশেষ নজর দিতে হবে।

৩) হস্তশিল্প ব্যবসা:

আমাদের দেশে হস্তশিল্পের বিশাল মজুদ রয়েছে। নাটুনগ্রামের আউল, মাটির পুতুল, মেদিনীপুরের মাদুর, কোচবিহারের শীতলপাটি হাজার হাজার প্রকারের হস্তশিল্প রয়েছে। এ সকল হস্তশিল্পের দেশি-বিদেশি বাজারে পর্যাপ্ত চাহিদা রয়েছে। আমাদের গ্রামীণ শিল্পীরা তাদের দক্ষতা এবং সৃজনশীলতা ব্যবহার করে নতুন ধরণের পণ্য তৈরি করছে। এই সমস্ত হস্তশিল্প দিয়ে অনলাইন ব্যবসা করে নিয়মিত লাভ করা সম্ভব।

আপনি যদি একটি ছোট ব্যবসা শুরু করতে চান, শিল্পীদের কাছ থেকে বিভিন্ন হস্তশিল্প আইটেম সংগ্রহ করুন। এরপর আপনি নিজের মন মতো নকশা দিয়ে জিনিসগুলি তৈরি করতে পারেন।

৪) গহনা শিল্পের ব্যবসা:

আপনার যদি হস্তশিল্প এবং গহনা শিল্পে কিছুটা দক্ষতা থাকে তবে অল্প পুঁজি নিয়ে গহনা বিক্রি করা সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা করতে পারেন। বিভিন্ন উপাদান সংগ্রহ করে আপনি নিজের আধুনিক এবং আকর্ষণীয় গহনা তৈরি করতে পারেন। প্রয়োজন শুধু সৃজনশীলতা এবং উদ্ভাবনী শক্তির। এইভাবে খুব স্বল্প ব্যয়ে লাভজনক ব্যবসা করা সম্ভব।

আপনি অনলাইনে গয়না বিক্রি করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার পরিচিতদের কাছে বিক্রি করে আপনি আপনার ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আপনি বিভিন্ন মেলা এবং প্রদর্শনীতে অংশ নিতে পারেন। যদি দাম এবং আকর্ষণীয় নকশাটি সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে থাকে তবে এটি দ্রুত বিক্রি করা হবে।