Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

দেশের খবর

বন্যা পরিস্থিতিতে আমাদের যা যা করতে হবে।

Abu Bakkar Siddik

Published

on

কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই ভাল আছেন।আপনাদের দোয়ায় আল্লাহর রহমতে আমি অনেক ভালো আছি।।

তো প্রত্যেক দিনের মতো আজকেও আমরা কোন না কোন টপিক নিয়ে আলোচনা করবো।।

আমাদের আজকের টপিক হচ্ছে: বন্যা পরিস্থিতি আমাদের করণীয় কি কি??

আসলে বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাস এবং দ্বিতীয়তঃ বন্যার আক্রমণ অনেক মারাত্বক ভাবে লেগেছে।।

আরে বন্যা পরিস্থিতির মধ্যে আমাদের বিভিন্ন ধরনের রোগ হয়ে থাকে।।

আজ আমরা জানবো এই বন্যা থেকে কিভাবে চলাচল করলে আমরা রোগ থেকে মুক্তি পেতে পারি।।
তো বন্যা পরিস্থিতিতে আমাদের প্রত্যেকেই প্রথমে যে কাজটি করতে হবে।তা হচ্ছে পরিশুদ্ধ এবং বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে এবং বিশুদ্ধ খাবার খেতে হবে।।

আমরা যদি এই সময় বিশুদ্ধ পানি পান করে এবং খাবার খেতে কি খাবার খেয়ে থাকে ইনশাআল্লাহ আমাদের রোগ অনেক কম হবে।।

আর আমাদের যদি কোন কারনে রোগ হয়ে থাকে।তাহলে অবশ্যই আমাদের নিকটবর্তী ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।এবং ডাক্তারের বিধি-নিষেধ অনুযায়ী আমাদের চলতে হবে।।

তাছাড়া বন্যা পরিস্থিতির এই সময়ে আমাদের ঘরে অবশ্যই শুকনো খাবার মজুদ রাখতে হবে। যাতে যেকোনো সময় আমরা এই খাবারগুলো খেতে পারি।।

আর আমাদের পরিবারে যদি কোন ছোট সন্তান থাকে তাহলে।অবশ্যই তাদের অনেক ভালো ভাবে খেয়াল রাখতে হবে।যাতে তারা কখনো পানির কাছাকাছি যেতে না পারে। এবং তারা যেন পানি না যেতে পারে। সে ব্যাপারে আমাদের অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।।

যেহেতু বন্যার পানির অনেক ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।তাই, আমাদের আগে থেকে যেকোনো ধরনের চুল বানাতে হবে।যেটি আমরা খাটের উপরে আমরা রান্না করতে পারি।।

এবং অবশ্যই আমাদের চলাচলের জন্য নৌকা বানাতে হবে।যাতে আমরা বন্যা পরিস্থিতি সময় ও ভালোভাবে চলাচল করতে পারি। এবং আমাদের মন কখনো যেতে অস্থিরতা না করে।।

আমাদের সাথে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ
।।

দেশের খবর

বন্যায় সাধারন মানুষের অবস্থা এবং করনীয় কি কি।

Abu Bakkar Siddik

Published

on

হ্যালো বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই আশা করি সবাই ভাল আছেন আল্লাহর রহমতে আমি অনেক ভালো আছি।

আজকে আমরা আলোচনা করব বন্যা পরিস্থিতি উন্নত হলেও মানুষের অবস্থা কিরূপ।

বর্তমানে সময় কোন ভাইরাসের কারণে অনেক মানুষ অনেক অসুবিধায় আছে।

এবং এখনো বাইরে চলাকালীনই বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হয়েছিল যার কারণে মানুষ আরো ভোগান্তিতে পড়েছে।

বর্তমান সময়ে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলেও অনেক দীর্ঘস্থায়ী হওয়ায় মানুষে অনেক অসুবিধা হচ্ছে।

বন্যা পরিস্থিতি পানি অনেক অবনতি হওয়ার কারণে ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে।

বন্যা পরিস্থিতি অবনতির কারণে রাস্তাঘাট ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে গ্রাম অঞ্চলে।

রাস্তাঘাট দাঙ্গার কারণে আজ সাধারণ মানুষের চলাচলের ক্ষেত্রে অনেক সমস্যা দেখা দিয়েছে।

বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হওয়ার কারণ দীর্ঘমেয়াদী এই বন্যা।

দীর্ঘমেয়াদী ও বন্যার কারণে মানুষের ঘরে খাবার বিশুদ্ধ পানির অভাব দেখা দিয়েছে।

বিশুদ্ধ পানির কারণে অনেক লোকের বিভিন্ন রকমের রোগ হচ্ছে।

এবং বন্যা পরিস্থিতির অবনতির কারণে মানুষ নিজের সন্তানদের চিকিৎসা করাতে পারছে না হাসপাতলে গিয়ে।

গ্রাম অঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতি অনেক বিষয়ে পরিণত হয়েছিল কিন্তু বর্তমানে দেখা দিয়েছে শহরাঞ্চলেও বৃষ্টির জন্য বন্যা সৃষ্টি হয়েছে।

শহরাঞ্চলে এত পরিমাণে বৃষ্টি হয়েছে যে সেখানে বন্যার সৃষ্টি হয়েছে।

আমরা যারা দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে বসবাস করছে তাদের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি অনেক কম হয়ে থাকে।

এবং আমরা যারা দেশটির উত্তরাঞ্চলে বসবাস করছে তাদের বন্যা পরিস্থিতি অনেক ভয়াবহ।

এবং এ বন্যা পরিস্থিতি আমাদের যা-যা করতে হবে।

গ্রামাঞ্চলের যুক্ত প্রতিবছর বন্যা হওয়াটাই স্বাভাবিক। সে ক্ষেত্রে আমাদের প্রত্যেক বছরে এমন ফসল আবাদ করতে হবে যে প্রশ্নগুলো পানিতে নষ্ট হয় । যেমন:আমন ধান।

কেননা এই যে আগাম বন্যা পরিস্থিতি যতই অবনতি হোক না কেন।

অন্তত দুই সপ্তাহের মধ্যে মারা যায় না অর্থাৎ দুই সপ্তাহের অধিক সময় ধরে থাকে।

সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

Continue Reading

দেশের খবর

২৯ শে জুলাই ২০২০ সালের করোনার আপডেট সবাই শুনন।

Abu Bakkar Siddik

Published

on

কেমন আছেন সবাই আশা করি সবাই ভাল আছেন। আমি এখন ভালো আছি।

আমাদের বর্তমান বিশ্বে বর্তমানে এক মহামারী দেখা দিয়েছে এই মহামারী হয়েছে মূলত করোনা ভাইরাস এর কারনে আজকে করোনাভাইরাস আলোচনা করব।।।

আজকে আমি আপনাদের যখন ওভারের চতুর্থ দেবো একটা মূলত পি এম এস স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের থেকে সংগৃহীত।।।

আজ রোজ বুধবার পিএম স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সংগৃহীত হয়েছে যে,,,

29 জুলাই 2020 এ কারণে আক্রান্ত হয়েছে 3009 জন।।।

আরে নিয়ে মোট করোনাভাইরাস বাংলাদেশ আক্রান্ত সংখ্যা 2 লক্ষ 30 হাজার 217 জন।।।।

এবং গত 24 ঘন্টা পারোনা বাড়িয়েছে বাংলাদেশের মৃত্যু হয়েছে 35 জন।।।।

এ নিয়ে দেশটিতে মোট করোনাভাইরাস মৃতের সংখ্যা হচ্ছে 3035 জন।।।

আর কত 24 ঘন্টা করোনাভাইরাস এর পরীক্ষা করা হচ্ছে 14 হাজার 127 জন।।।

এ নিয়ে দেশটিতে করনা বয়সের মোট পরীক্ষা করা হয়েছে 11 লাখ 51 হাজার 288 জন।।।

এবং গত 24 ঘন্টায় দৃষ্টিতে করোনাভাইরাস সুস্থ হয়েছে 2878 জন।।।

এনিয়ে দেশটিতে করোনা ভাইরাসে মোট সুস্থ হয়েছে 1 লক্ষ 30 হাজার 292 জন।।।।

আর এটাই হলো করোনা ভাইরাসের বাংলাদেশের সর্বশেষ পরিস্থিতি।।।

বর্তমান বিশ্ব কোন ভাইরাসের কারণে নাজেহাল হয়ে পড়েছে আর তাই আমাদের বাংলাদেশকে রক্ষা করার জন্য আমাদের প্রত্যেক নাগরিকের করছে সরকারি বিধি বিধান ও নিয়ম নীতি সুন্দরভাবে মেনে চলা।।।

আমাদের সরকারের বিধান মেনে চলি তাহলে দেখা যাবে যে আল্লাহ তা’আলা অবশ্যই এই ভাইরাস থেকে রক্ষা করবে’।।।

এলাকায় সকল বিধি-নিষেধ মেনে চলবো।।

আর ডাক্তারের মতে আমাদের সব ধরনের পৃথিবী দান করুন এবং পুষ্টিকর খাবার খাব।।।

আমরা চলাচলের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি সাবধানতা অবলম্বন করব সোশিয়ালিস্টিক।।।

আর আপনার যদি কোথাও যায় তাহলে অবশ্যই মাস ব্যবহার করব হাত প্লাস ব্যবহার করব।।

আপনার দুই রাকাত নামাজ পড়ে আমাদের সকলের জন্য দোয়া করব যাতে আমাদের বাংলাদেশের সব নাগরিকই করো না বাইরে থেকে রক্ষা পেতে পারে।।।

Continue Reading

দেশের খবর

আমেরিকার প্রেসিডেন্টে “ডোনাল্ড ট্রাম্পের” নামে গরু পালন করে দাম পেলেন মাত্র ১ লাখ ৬৯ হাজার টাকা~~~~~

Tanvir Hossin

Published

on

প্রিয় বন্ধুরা,আসসালামু আলাইকুম।সবাই কেমন আছেন?আশা করি ভাল আছেন।হ্যা ভাল থাকার ই কথা।কারন,সামনে ঈদুল আযহার মহাউৎসব।মুসলমানের বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান এই ঈদুল আযহা।
এই উৎসবে মুসলমানরা আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের জন্য তাদের প্রিয় বস্তু আল্লাহর রাস্তায় উৎসর্গ করে।
প্রতি বছর ঈদুল আযহার সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থান হতে বিক্রেতা রা হাজির হয় দেশের বিভিন্ন হাট গুলোতে।কেউ আসে তার প্রিয় পশুটি বিক্রি করতে আর কেউ সেই পশুটি কিনে নিয়ে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করার উদ্দেশ্যে কোরবানী করে গরীব দুঃখীদের বিলিয়ে দেয়।
অনেকে শখ করে তার পশুটিকে বিভিন্ন নাম দেয় তেমনি ভাবে চাঁপাইনবয়াবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার মন্না পাড়া মহল্লার “সাবাব এগ্রো ফার্মের মালিক মেহেদী হাসান নামের এক লোক তার পশুটির নাম দেয় “ডোনাল্ড ট্রাম্প”
১৪ মণ ওজনের এই গরুটি ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে ১ লাখ ৬৯ হাজার টাকায় বিক্রি করেন তিনি।
গনমাধ্যম কে দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি জানান ১৪ মাস আগে শিবগঞ্জের তার্ত্তিপুর হাট থেকে ৫৯ হাজার টাকায় হলিষ্টিয়ান ফ্রিজিয়ান জাতের এই ষাড়টি ৫৯ হাজার টাকায় ক্রয় করেন তিনি।
করোনা পরিস্থিতি না থাকলে আরো ১ লাখ টাকায় বেশিতে বিক্রি করতেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।
➤এছাড়াও ৬৫ মণ ওজনের ”বাংলার বস”এর দাম ৫০ লাখ টাকা
এবার কোরবানির ঈদ কে সামনে রেখে বিভিন্ন বাংলার বস,বাংলার সম্রাট নামে গরু পালন করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন আরেক ব্যবসায়ী।
প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভীর জমাচ্ছে তার বাড়িতে এই ৬৫ মণ ওজনের ষাড়টি দেখতে।
গত ২৫ বছর ধরে মীম ডেইরী ফার্মের নামে দুধ বিক্রি করে আসছেন তিনি।
শখের বসে তিনটি উন্নত জাতের গাভী কিনে নিয়মিত পরিচর্যা ও সুষম খাদ্য,উপযুক্ত চিকিৎসার মাধ্যমে সফল হয়েছেন তিনি।
খড়,নেপিয়ার ঘাস,খৈল,ভূষি মিলিয়ে দৈনিক প্রায় ৮০ থেকে ৯৫ কেজি খাবার খাওয়াতেন তিনি।নিজেই প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তাই পশুর নিজেই চিকিৎসা দেন।
এ সময় খামারী আসমত আলী বাংলার বস কে নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন যে এ যাবৎকালের মধ্যে দেশের মধ্যে সব থেকে বড় ২৬’শ কেজি অর্থাৎ ৬৫ মণ ওজনের গরু এর আগে বাংলাদেশে কখনো হয়নি
সাথে সাথে খামারী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন এতবড় সফলতা অর্জন করার ক্ষেত্রে উপজেলা প্রানী সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কোন সহযোগিতা পাননি তিনি।
আজ এ পর্যন্ত।পরবর্তীতে আবার নতুন কোন টপিক নিয়ে হাজির হব ইনশাআল্লাহ।
সে পর্যন্ত সবাই ভাল থাকুন।সুস্থ থাকুন।
আল্লাহ হাফেজ।

Continue Reading