grathor-ads

মাথা ন্যাড়া করার উপকারিতা, করলে কি চুল ঘন হয়

কেমন আছেন সবাই? আশা করি আল্লাহর রহমতে সবাই ভাল আছেন। আমিও অনেক ভালো আছি। তো আজকে আমি আপনাদের সামনে মাথা ন্যাড়া করার উপকারিতা নিয়ে হাজির হয়েছি। তার পাশাপাশি বারবার মাথা ন্যাড়া করলে কি চুল ঘন হয় এই কথা কতটুকু সত্য তা নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি। তো আর দেরি না করে চলুন শুরু করা যাক।


📢 Promoted post: বাংলায় আর্টিকেল লেখালেখি করে ইনকাম করতে চান?

আমরা অনেক সময়ই মাথা ন্যাড়া করি। কখনো গরমের জন্য, কখনো বা চুল দ্রুত গজানোর জন্য বা চুল ঘন করার জন্য। তো এখন মাথা ন্যাড়া করার উপকারিতা সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি।

👉Read more: ফুল নিয়ে ক্যাপশন (সাদা ফুল, কৃষ্ণচূড়া ফুল, সূর্যমুখী, সরষে ফুল, রঙ্গন ফুল) উক্তি, স্ট্যাটাস

মাথা ন্যাড়া করার উপকারিতা

মাথা ন্যাড়া করা বা না করায় ওরকম কোনো উপকারিতা বা অপকারিতা নেই। এতে শরীরে কোনো বড় ধরণের প্রভাব পড়ে বলে জানা যায় নাই। কিন্তু তবুও এর কিছু ভালো দিক বা উপকারিতা রয়েছে। মাথা ন্যাড়া করলে মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখা সহজ হয়। মাথা ন্যাড়া করলে খুশকি, চর্মরোগ ইত্যাদি রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

পরিবেসব থেকে চুলে নানা ধরনের জীবাণু আটকে যায়। ন্যাড়া হলে এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়। মাথায় থাকা ত্বক সহজেই সূর্যের আলো পায় তাই ত্বক পুষ্ট থাকে যা চুল থাকলে সাধারণত হয়না। ছোট শিশুদের ন্যাড়া করলে সাধারণ ভাইরাস জ্বর, সর্দি কাশি ইত্যাদি হয়না বলে মনে করা হয়।

grathor-ads

মাথা ন্যাড়া করলে কিছু সমস্যাও হয়। অনেকে মনে করে যে মানুষের গ্রীষ্মকালে চুল বেশি থাকলে গরম বাড়ে। তাই তাদের মতে গ্রীষ্মকালে চুল কেটে ফেলা উচিত হবে আবার অন্যদিকে অনেকের মতে ন্যাড়া মাথায় বেশিক্ষণ রোদে থাকলে তাপে স্রেব্রাম ও নিউরন নামক কোষের কার্যকারিতা কমে যায় ফলে মস্তিষ্কের ক্ষতি হতে পারে।

যদিও এর একটিরও তেমন কোনো বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই। প্রকৃতগতভাবেই চুল গজায় মাথাকে রক্ষা করার জন্য। তো ন্যাড়া মাথায় তা হয়না। কিছু ক্ষেত্রে এট শারীরিক অস্বস্তিও সৃষ্টি করতে পারে।

📢 Promoted Link: Unlimited Internet Package Teletalk 2022 3G, 4G

মাথা ন্যাড়া করলে কি চুল ঘন হয়/ মাথা ন্যাড়া করার উপকারিতা

আমাদের সমাজের প্রায় সবাইর একটি প্রচলিত ধারণা আছে যে আপনি যদি মাথা ন্যাড়া করেন তাহলে আপনার চুল আরো ঘন হবে। অর্থাৎ আপনি যদি বারবার মাথা ন্যাড়া করেন তাহলে আপনার চুল আগের চেয়ে অনেক ঘন হয়ে যাবে। আমরা সবাই কমপক্ষে ৩-৪ বার ন্যাড়া হয়েছি।

বিশেষ করে ছোট শিশুদের তো প্রায়ই ন্যাড়া করতে দেখা যায়। তাহলে ন্যাড়া হলে চুল ঘন হবে এই প্রচলিত কথা কি সত্যি? বিজ্ঞান বা বিশেষজ্ঞরা কি বলেন? বারাবার ন্যাড়া হলে চুল ঘন হবে বা ভালোভাবে ওঠবে এর কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।
চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় মাথা ন্যাড়া করা অর্থ হলো মাথার উপরে চুলের যে অংশ আছে তা কেটে ফেলা।

এর সাথে আপনার চুল ঘন হওয়ার সাথে কোনো সম্পর্ক নেই। চুলের স্বাস্থ্য অর্থাৎ চুল কতটা ঘন বা পাতলা হবে তা মূলত নির্ভর করে তার জিন বা বংশগতির ধারার উপর। আপনি যতবারই চুল ন্যাড়া করেন না কেন, আপনার চুল ঘন হবে না বরং আপনার পরিবারের অন্য সবাইর মতোই আপনার চুলের ঘনত্ব হবে।

তো বলা যায় চুল ঘন করা বা চুলের গ্রোথ বৃদ্ধির সাথে মাথা ন্যাড়া করার কোনো সম্পর্ক নেই। তবুও আপনি চাইলে ন্যাড়া হতে পারেন যেহেতু এতে বড় ধরণের কোনো অপকারিতা নেই। চাইলে কোনোদিনই ন্যাড়া না হতে পারেন।

পোস্টটি কেমন লাগলো দয়া করে কমেন্টে জানাবেন, যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যয় শেয়ার করবেন, পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এমন সব দারুন দারুন পোস্ট পেতে Grathor এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Posts

6 Comments

মন্তব্য করুন