Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

টিপস এন্ড ট্রিকস

হয়ে যাও উদ্যোক্তা

Sakib Rayhan

Published

on

একটা ভালো আইডিয়া , একটি ভালো পরিকল্পনা তৈরি তে সহায়তা করে । আর একটি সঠিক পরিকল্পনা ই পারে জীবন কে বদলে দিতে । আইডিয়া সঠিক সময়ে সঠিক  পরিকল্পনায়  রুপান্তরিত করলে এবং পরিকল্পনা কে বাস্তবায়ন এর উদ্যোগ নিলেই সম্ভব ভালো কিছু করে দেখানো । প্রায় সময় আমাদের মাথায় আইডিয়া গিজ গিজ করে । কিন্তু সঠিক ব্যবস্থাপনার অভাবে তা আবার অচিরেই হারিয়ে যায় । সবসময় কিন্তু আইডিয়া মাথায় আসে না , একথা মনে রাখতে হবে । আর যখন ই মাথায় কোনো আইডিয়া আসবে , তখন তা নিয়ে ভাবতে হবে । যদি কোনো ব্যস্ততা থেকে থাকে তাহলে আইডিয়ার কথা লিখে রাখতে হবে , যাতে পরবর্তীতে এ বিষয়ে ভাবা যায় । ভালো আইডিয়া হতে পারে তোমার চিন্তা  ভাবনার ক্রিয়েটিভিটি এর বহিঃপ্রকাশ । তোমার চিন্তা ভাবনার উপর নির্ভর করবে তোমার সৃজনশীলতা ।

সফলতার মুখ দেখা অন্যতম সেরা বিজনেস আইডিয়া এর বহিঃপ্রকাশ হচ্ছে  “নিউজ ক্রেড” , এটি একটি কন্টেন্ট মার্কেটিং প্রতিষ্ঠান । মার্কেটিং এর সম্ভাব্য তা চিন্তা করে প্রতিষ্ঠান টির উদ্যোগ নেয়া হয় । বিশ্বের জনপ্রিয় বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান উন্নত মানের কনটেন্ট এর জন্য নিউজ ক্রেড এর উপর নির্ভর করে । নিউজ ক্রেড একটি বাংলাদেশী কন্টেন্ট মার্কেটিং প্রতিষ্ঠান । তুমি ও চাইলে এরকম ই একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে পারো !  তবে  আরো ও অনেক বিজনেস আইডিয়া রয়েছে যেগুলো প্রতি নিয়ত আমাদের মাথায় আসে । এটি একটি উদাহরণ মাত্র , কিভাবে একটি বিজনেস আইডিয়া কে বিজনেস প্ল্যান করে বাস্তবায়ন করা যায় । আর এভাবেই নতুন নতুন উদ্যোগ তৈরি হবে । আর প্রতি টি উদ্যোগ এর সফলতা নির্ভর করবে আইডিয়া এর জন্য প্রণীত পরিকল্পনা এর উপর । শুধু আইডিয়া নয় , আইডিয়া বাস্তবায়নের জন্য আইডিয়া এর সাথে সঠিক পরিকল্পনার ও প্রয়োজন ।

একটি ভালো আইডিয়া পেয়েছি সুতরাং আমি একটি বিজনেস এর উদ্যোগ নিয়ে সফল হতে পারব এটা ভূল ধারণা । কারন শুধু ভালো আইডিয়া দিয়ে বিজনেস এ সফল হওয়া যাবে না , আইডিয়া টি বাস্তবায়নের জন্য,  আইডিয়া অনুযায়ী কিভাবে তা বাস্তবায়ন করা যায় , কিভাবে মূলধন যোগান দিতে হবে , কিভাবে প্ল্যান টি নিয়ে কাজ করতে হবে , কিভাবে উদ্যোগ টি সঠিক ভাবে সম্পন্ন করা যাবে , তার জন্য একটি পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে । মনে রাখতে হবে যে , পরিকল্পনা হচ্ছে রোড ম্যাপ এর মতো এটি একজন পাইলট এর জন্য নীল নকশা ও বটে , যা দিয়ে সে সামনে এগোতে পারে । একজন উদ্যোক্তা এর জন্য পরিকল্পনা ও ঠিক এমন যা তাকে ব্যবসায়ীক পথ দেখাবে ।  আর এ জন্য অবশ্যই আইডিয়া অনুযায়ী একটি পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে । যা উদ্যোগ কে আলোর মুখ দেখাবে ইনশাল্লাহ । সকল উদ্যোক্তা কে উদ্যোগ নেয়ার আগে এসব বিষয় বিবেচনায় নেয়া জরুরি ।

টিপস এন্ড ট্রিকস

মাত্র ১ সপ্তাহে $১৫ ডলারের গুগল প্লে গিফট কার্ড নিয়ে নিন,একদম সোজা।

Naimul Islam

Published

on

হ্যালো বন্ধুরা, তোমরা কেমন আছ? আশাকরি অনেক ভালোই আছো। আজকে আমার ব্লগের টপিক হলো বাংলাদেশ থেকে কি আমরা সত্যিই ফ্রিতে গুগল প্লে গিফট কার্ড পেতে পারি।আমি আজ এটা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব

হ্যা,বাংলাদেশ থেকে আমরা প্লে কার্ড পেতে পারি।এখন চলো আমরা ভাবি গুগল প্লে কার্ড কি কাজে লাগে:

 

  1. প্রথমত যারা Free Fire,Pubj,Clash of Clans,বা দুনিয়ার যে গেমস খেলো না কেন,সেখানে জেমস,ডায়মন্ড সরাসরি প্লে গিফট কার্ড থেকে কিনতে পারবে।
  2. কিছু প্রেমিয়াম এপ ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করতে প্লে গিফট কার্ড ব্যাবহার হয়
  3. সবশেষে $২৫ প্লে গিফট কার্ডএর মূল্য ৪,০০০ টাকা।

যাক,বুঝলে ত।

 

কিছু এপ আছে সেখানে কাজ করার মাধ্যমে তোমাকে রিওয়ার্ড হিসেবে প্লে গিফট কার্ড দেয়।যেমনঃ

  • AppNana:এই এপটি সবচেয়ে বেস্ট এন্ড্রয়েড রিওয়ার্ড  এপ ধরা হয়,যেটা তুমি বাংলাদেশ থেকে চালাতে পারবে।কিন্তু,,,,,হ্যা কিন্তু তো আছেই।সেটা হলো।মিনিমাম ২ মাস লাগবে শুধুমাত্র $ ১ = ৮০৳ ইনকাম করতে।তাই এটা সহজেই প্রত্যাখ্যান করতে পারেন।কেননা এতে ২ মাস সময় নস্ট + ৩০০ টাকার মত ডাটা নেট খরচ হবে।
  • Whaff rewards\FreeMyApps:দুটি এপই একরকম,মূলকথা নতুন নতুন এপ ডাউনলোড করুন,পয়েন্ট জমান,আর এ পয়েন্ট দিয়ে গিফট কার্ড কিনুন।কিন্তু,হ্যা,এখানেও কিন্তু আছে।আর তা হলো এটা যে প্রকার ডাটা নেট এলাও করে তা অনেক বেশি,আর এই এপ গুলা মোটেও সহজ নয়।পরিশ্রম তো করতেই হবে।আর আমাদের দেশে ইউজে কোনো অফারই পাবেন না।

তো এখন আমি একটা এপ সাজেস্ট করি।এপ্টি

আমাদের দেশে চলে না।USA এর একটি এপ।বিশ্বাস করেন এপটিতে ২ দিনে ৬৫০ পয়েন্ট করতে পারছি।২৫০০ পয়েন্ট হলেই আপনি $২৫ গিফটকার্ড পাবেন।এপটির নাম Big Cash App.বিস্তারিত বলছি কিভাবে ইউজ করবেন।

 

  1.  প্রথমেই বিপিএন ইউজ করতে হবে।প্লে স্টোরে Super VPN লিখে সার্চ দিয়ে ডাউনলোড করতে হবে।তারপর মেনু বাটনে গিয়ে USA সিলেক্ট করে বিপিএন কানেকট করতে হবে।

 

  1. তারপর প্লে স্টোরে গিয়ে Big Cash লিখে সার্চ দিলে নিচের মতো লগো থাকা এপ টি ইন্সটল করবেন।এপটির লিংক

https://www.google.com/url?q=https://play.google.com/store/apps/details%3Fid%3Dcom.bigcash.app%26hl%3Den%26referrer%3Dutm_source%253Dgoogle%2526utm_medium%253Dorganic%2526utm_term%253Dbig%2Bcash,%2Bgift%2Bcard%2Bplay%2Bstore&sa=U&ved=2ahUKEwihv-r05tDpAhUAlXIEHdAeAokQFjABegQIBhAB&usg=AOvVaw2I6AD7cgUiEZ5oCrUH0উশভ

 

অবশ্যই বিপিএন কানেক্টেড থাকতে হবে

 

প্রশ্ন হলো এপটি রিয়াল নাকি SCAM।স্কেম হলো ফেক এপ।গুগলে সার্চ দিয়ে দেখলে একটি পোস্টএ ও বলা নেই এপটি স্কেম।বলা আছে এটি Legit. মানে এটি রিয়াল।(Real) এর ডাউনলোড 1M+ আর রেটিং ৪.৩ /৫

 

এখন মূলকথায় আসা যাক।

  • ইন্সটল করার পর, Open করবেন।তারপর অটো লগিন হিয়ে যাবে।নিচের চিত্রের মতো “Account Information” অপশনে ক্লিক করে,ইনভাইট কোড আর সিক্রেট কোড মনে রাখবেন,পরে আবার ওই একাউন্ট পেতে নিচের চিত্রে “Restore Old invite” কোডে দিবেন।   তবে USA বিপিএন অন রাখা লাগবে,নয়ত এটা একাউন্ট ব্যান করে দিবে,কারন এটা USA  (আমেরিক) সারভারে কাজ করে।
  • এপ এ লগিন হলেই ৭০ কয়েন সাথে সাথে দিয়ে দিবে।
  • তারপর এখানে ইনভিটেশন কোড দিতে বলবে,কোডটি দিলেই আপনাকে ৭০ কয়েন এক্সট্রা দিবে,(সত্য)। ইচ্ছে করলে আমার ইনভাইটেশন কোডটি দিতে পারেন।আমার ইনভাইটেশন কোডটি pbojnglj  হুবুহু এটি দিতে পারেন।এতে আপনার কোনো লস নেই।
  • এখন কয়েন কিভাবে ইনকাম করবেন।
  • কতগুলো টাস্ক আছে।যেমন



#Feature Offers:এখানে কতগুলো এপ ডাউনলোড করতে বলবে।এপ গুলো প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে, ইন্সটল করে নিচের চিত্রের মতো Verify অপশনে ক্লিক করে ১ মিনিট অপেক্ষা করবেন।আর কিছু করতে হবে না, তারপর অটোমেটিক যত কয়েন দেয়ার কথা তা দিয়ে দিবে।তবে এগুলা Limited.আর প্রতিদিন চ্যাক করতে হয়,১ সপ্তাহ পর পর অফার পাল্টায়।

 

#Daily 10 points:প্রতিদিন লগ ইনে ১০ পয়েন্ট করে পাবেন।শুধু প্রতিদিন লগ ইন করে এই নিচের চিত্রে ক্লিক করবেন।অটোমেটিক এড হয়ে যাবে।

 

#Scratche Card: প্রতিদিন ৩ ঘন্টা পর পর ৩ টা করে স্ক্র‍্যাটচ কার্ড ওপেন করতে বলা হয়,ওপেন করে কয়েন পাবেন।তবে সত্যি বলতে কি ১০ কয়েনের বেশি পাবেন না,

 

#Hot Offers:হট অফার থেকে তেমন কোনো ফায়দা হবে না,আপনাকে Servey পূরন করার জন্য বলবে,আর কয়েনো বেশি দিবে। কিন্তু Servey গুলা সহজ হলেও আমাদের এই দেশের জন্য কোনো Servey দিবে না, বিপি এন কানেক্টেড থাকলেও Servey Company গুলো আপনাকে ঠিকি চিনে ফেলবে আপনি কোন দেশের।কিন্তু আই পি এড্রেস ডিটেকশন করে বলে Big cash App টি আপনাকে চিনতে পারবে না।

 

#Adgem Offers:এ অফার গুলো ফায়দাজনক,নিচের চিত্রে ক্লিক করলে আপনাকে তাদের ওয়েব সাইটে নিয়ে যাবে,আপনাকে কিছু এপ বা গেমস ডাউনলোড করতে বলে এবং কিছু শর্ত দেয়,শর্ত পূরণ করলেই Statement অপ্সনে গেলে offer completed দেখাবে।তার ২৪ ঘন্টা অতিবাহিত হলে request করবেন তারপর ১ দিন পর আপনার একাউন্টএ Coin পোছে দিবে।আর অনেক বেশিই কয়েন দিবে।যেটা দিয়ে অনেকগুলা গিফটকার্ড নিতে পারবেন।

 

তাছাড়াও ইন্সট্রাগ্রামে তাদের ফলো করলে ৬০ কয়েন,ফেসবুকে ফলো করলে ৩০ কয়েন।টুইটারে ফলো করলে ৩০ কয়েন। প্রথম ১০০০ কয়েন সহজেই নিতে পারবেন।কিন্তু তার পরবর্তী কয়েন নিতে সময় ত লাগবেই।

 

আর হ্যা বিপি এন কানেক্টেড থাকতে হবে MUST.

আর প্রতি এড দেখলে ১ কয়েন করে পাবেন।

এপটি ইন্সটল করে দেখতে  পারেন।এটি সম্পুর্ন আমেরিকার এপ।

ধন্যবাদ।

দেখা হবে আবারো।পাশেই থাকবেন।😊😊






Continue Reading

টিপস এন্ড ট্রিকস

কমপ্লিট জুতা গাইড (পুরুষ)

Arafat Hossain

Published

on

বলা হয়ে থাকে যে পোশাক পরিচ্ছেদ থেকে ব্যক্তিত্ব প্রকাশ পায়। জামা কাপড় এর মত জুতা ও অনেক বড় ভূমিকা পালন করে আপনার ইমেজে।

আজ আমরা আলোচনা করব জুতা পড়ার এবং কেনার সময়ে কোন বিষয় গুলো মাথায় রাখতে হবে এবং কোন ধরণের জুতা সমূহ অবশ্যই আমাদের থাকা উচিত।
জুতা পরার সময়ে এবং কেনার ব্যাপারে যেসব বিষয় মাথায় রাখতে হবে –

১. সঠিক সময়ে সঠিক জায়গায় সঠিক জুতা –

ফাংশন বুঝে সে অনুযায়ী জুতা পরা উচিত। আপনি জিম করার সময়ে যে জুতা পড়বেন তা পরে অবশ্যই অফিসে বা বিয়ে তে যেতে পারবেন নাহ। অকাশন বুঝে আপনাকে কি পড়বেন তা বাছাই করতে হবে।
২. কোয়ালিটি তে বিনিয়োগ করুন – প্রতিটি মানুষ তার জুতোতে কয়েক হাজার টাকা ব্যয় করতে পারে না; তবে, তার পরিবর্তে অন্য কোথাও অর্থ অপচয় করতে এবং প্রতি কয়েক বছরে নতুন নিম্ন মানের জুতা কিনতে পারেন তাদের মধ্যে অনেকে। এটি কখনই ভালো কৌশল নয়, কারণ নিম্ন মানের জুতা গুলো আঠার সাথে একসাথে রাখা হয় এবং কার্ডবোর্ড এবং কাগজের মতো সস্তা কাঁচামাল দিয়ে তৈরি করা হয় যা ভালো হয় না। আপনি একটু দাম দিয়ে ভালো মানের জুতা নিলে, দীর্ঘমেয়াদে অর্থ সাশ্রয় করতে পারেন। আমি এই বিষয়ে আরও কিছু বলতে করতে চাই; মান সম্পন্ন জুতা কিনতে, অনেককে ক্রয়ের জন্য বাজেট করতে হবে। এটি কোনো খারাপ বা বড়লোকি জিনিস নয়। বাস্তবে, এতে আপনার পণ্যের মানের প্রতি শ্রদ্ধা জাগাতে পারে এবং কেনা হলে জুতার সঠিক যত্ন নিতে আপনাকে উৎসাহিত করতে পারে। এবং অনেক বছর আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

৩. যথাযথ ফিট এবং আরাম – জুতাটির সঠিক সাইজ কিনুন, এমনকি এর জন্য যদি কিছুটা বেশি টাকা প্রয়োজন হয় তবুও। এক সাইজ বড় যেমন খারাপ দেখাবে তেমনি ছোটো হলেও আপনি পরে আরাম পাবেন নাহ।
৪. জুতার যত্ন নিন – যতো যা ই করুন,জুতার খেয়াল না রাখলে তা ভালো থাকবে নাহ।

যে সব জুতা থাকা আবশ্যিক –

১. স্নিকার- মূলত জিম করার সময়ে বা খেলাধুলা, দৌড় এইসব এর সময়ে এগুলা পড়া হয় তবে casual ভাবে ও পড়া যায়।


২. Boat shoes – এগুলো দেখতে loafer এর মত তবে সোল রাবার এর।
বৃষ্টির মৌসুমে এগুলা পড়া যায়, লেদার না হওয়া তে ক্ষতি হয় না যাতে পানি তে।

৩. ডার্বি- এগুলো কে ড্রেস শু বলা হয়ে থাকে।

৪. অক্সফোর্ড – এগুলো ও ড্রেস শু এর অন্তর্ভুক্ত, তবে একটু casual ডিজাইন ও পাওয়া যায়।

৫. বুট- সাধারণত শীত প্রধান দেশ এ এইসব বেশি চলে তবে বুট সবার ই থাকা উচিত। বিভিন্ন রকম বুট পাওয়া যায়, যেমন chukka, Chelsea ইত্যাদি।


৬. Monk strap- স্যান্ডেল থেকে inspired হয়ে বেল্ট সহ এই জুতা গুলো এসেছে, এগুলো কেউ ফরমাল সেটিং এ পড়া হয়।


৭. লোফার- ব্যক্তিগত ভাবে আমার এগুলো পছন্দ নয় তবে অনেকের ই পছন্দ এবং আরামদায়ক ও বটে।

Continue Reading

টিপস এন্ড ট্রিকস

কিভাবে কাউকে ভুলে যাবেন

Arafat Hossain

Published

on

সময় সব ক্ষত নিরাময় করে না। আপনি সত্যই পছন্দ করেছেন এমন একটি মেয়ের সাথে বিচ্ছেদের ব্যথা এবং ব্রেকআপ থেকে নিরাময় হয়তো কখনই হবে না। এটি খুব সম্ভব ১০ বছর পরেও হবে না । এখনও মনে হচ্ছে আপনি তার মতো অন্য কোনও মেয়েকে পাবেন না,কেন?
২ টি কারণ থাকতে পারে ।

১. আপনি নিজের আবেগকে ঠিক করার জন্য কখনই সময় এবং শক্তি দেননি , এবং চিরতরে গভীরভাবে দমন করেছেন, চেপে রেখেছেন  বা,

২. আপনি এ অবস্থায় থাকার অভ্যাস করেছেন এবং এখন আপনি সেই অতীতের অনুভূতিতে বাস করছেন।
সুতরাং, আপনি কিভাবে এটি থেকে মুভ অন করবেন?
১. অনুভব করুন , সেই ব্যথা অনুভব করুন। রাগ, দুঃখ, কষ্ট অনুভব করুন। আপনার চোখ বন্ধ করুন এবং কল্পনা করুন, আপনার আবেগ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করার জন্য আপনার মাথার কল্পনার সাথে পুনরায় খেলুন, সম্ভবত আপনি সেটিকে নিজের পথে অর্থাৎ সরে আসতে দেননি। এটিকে গভীরভাবে অনুভব করুন এবং নিজেকে তার থেকে আলাদা করুন। নেতিবাচকতায় ডুবে যাবেন না। তারপরে, তাকে চোখে দেখুন এবং বলুন “আমি এটি পছন্দ করি না এবং এই বেদনা প্রাপ্য নই, আমি আপনার সাথে থাকার প্রয়োজন ছেড়ে দিয়েছি এবং আমি ঠিক আছি যে আমাদের মধ্যে আর কিছু নেই ।
২. এখন আপনার চোখ খুলুন, গভীর শ্বাস নিন এবং কীভাবে জিনিসগুলি শেষ হয়েছিল সে সম্পর্কে কৃতজ্ঞ হন। আপনি কীভাবে কৃতজ্ঞ হতে পারেন?
হয়তো তিনি বিষাক্ত ছিলেন? আপনি কৃতজ্ঞ হতে পারেন যে সে আপনার চোখ খুলে দিয়েছে । আপনি কৃতজ্ঞ হতে পারেন যে তিনি আপনাকে নিজের প্রতি অসম্মান বোধ না করার জন্য দাঁড়াতে সহায়তা করেছিলেন। এটি সরে আসার অংশ। কৃতজ্ঞতার কাজটি অবশ্যই করা উচিত যাতে আপনি আপনার আবেগ এবং অতীত একসঙ্গে বাস না করে।
এগুলি লিখুন। একটি কলামে রাখুন: “আমি যা অনুভব করছি” তারপরে পরবর্তী: “কৃতজ্ঞ হওয়ার কারণ” অবশেষে, সেই মেয়েটিকে আপনি যে ভালো জিনিস দিতে পেরেছিলেন তা লিখুন এবং আপনি নিজের জন্য যে নতুন পরিচয় তৈরি করতে চান তার অংশ হিসাবে সেগুলি লিখুন।

এগুলো আপনাকে সাহায্য করবে।

আর মনে রাখবেন, আপনাকে দেখার জন্য কেউ নেই, কেউ আসবে ও নাহ।
আপনার নিজেকেই নিজে দেখে রাখতে হবে। এজন্য নিজের প্রতি ফোকাস করুন এবং এগিয়ে যান, দেখিয়ে দিন।
ধন্যবাদ।

Continue Reading