কোন প্রাণীর বুদ্ধি সবচেয়ে বেশি

আসসালামু প্রিয় পাঠকগণ! আশা করি সবাই আল্লাহ’র অশেষ রহমতে ভালো আছেন। আজকে আমি আপনাদের মাঝে হাজির হয়েছি নতুন আরেকটি পোস্ট নিয়ে (কোন প্রাণীর বুদ্ধি সবচেয়ে বেশি)। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে আজকের পোস্টটি। চলুন শুরু করা যাক আজকের পোস্ট।

কোন প্রাণীর বুদ্ধি সবচেয়ে বেশি

পৃথিবীতে মানুষ ছাড়া এমন কিছু প্রাণী রয়েছে যারা অত্যন্ত বুদ্ধিমান। এসব প্রাণী গুলো এমন এমন বুদ্ধির জবান দেয় মাঝে মাঝে দেখলে আপনি নিজেও অবাক হবেন। এসব প্রাণীরা ধরতে গেলে মানুষের পরেই তাদের স্থান বুদ্ধিমানের দিক দিয়ে। তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক পৃথিবীর সবচেয়ে বুদ্ধিমান প্রাণী গুলো সম্পর্কে।

১) শিম্পাঞ্জিঃ পৃথিবীর মধ্যে যেসব প্রাণী রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হলো শিম্পাঞ্জি। এরা দেখতে বানরের মতো হলেও এদের দেহ অনেকটা সাস্থবান বানরের চেয়েও এবং এরা খুআই শক্তিশালী। শিম্পাঞ্জি প্রাণীদের মধ্যে ছেলে লিঙ্গের ওজন প্রায় ৬০-৭০ কেজি ও মহিলা লিঙ্গের ওজন প্রায় ২৫-৩০ কেজি। অন্যান্য প্রাণীর চেয়ে এরা অনেকটা বিরল প্রজাতির। এদের বুদ্ধি মাঝে মাঝে মানুষের বুদ্ধি কেও হার মানাতে সক্ষম। উপস্থিত বুদ্ধি বৃদ্ধির উপায়

এরা শিকার করে তাদের আহার গ্রহণ করে। শিকারের ক্ষেএে এরা খুবই চত্বুর এবং যাকে টার্গেট করে তাকে সহজে ছাড়ে না। এরা যা পায় তা খেয়ে ফেলে। যেমন কলা, বিভিন্ন ফল, ইত্যাদি। এরা মানুষের ইঙ্গিত বুঝতে পারে। এদের মধ্যে একতা রয়েছে যার ফলে খুব সহজেই তারা যেকোনো সমস্যা মোকাবিলা করতে পারে।

২) হাতিঃ হাতিরা হলো খুবই শক্তিশালী ও অধিক বুদ্ধি সম্পন্ন বিকট প্রাণী। এদের দেহ অন্যান্য সকল প্রাণীর চেয়ে অনেক বড়। এদের শ্রবণ শক্তি খুব বেশি। এরা তৎক্ষনাৎ মানুষের আবাস বুঝতে পারে। এরা সাধারণ কলা ও কলা গাছ খেতে বেশি পছন্দ করে। শক্তির দিক দিয়ে হাতির সাথে কোনো প্রাণীরই তুলনা করা যায় না।

এরা নিজেদের খাদ্য আহরণের পর আবর্জনা গুলো নিজেরাই সেগুলো পরিষ্কার করে ফেলে। এরা একতা সম্পন্ন প্রাণী হওয়াই যে কেউ সহজে তাদের সাথে পেরে উঠতে পারে না। তারা তাদের বুদ্ধি কে কাজে লাগিয়ে যে কোনো পরিস্থিতি সহজেই বুদ্ধি খাটিয়ে মোকাবিলা করে ফেলে। তাই অন্যান্য প্রাণীর চেয়ে এরা অনেকটা আলাদা ও একতা সম্পন্ন ভাবে বসবাস করে এবং যেকোনো সমস্যা কে তারা বদ্ধ হয়ে সমাধান করে জীবনযাপন করে।

৩) কুকুরঃ: পৃথিবীর মধ্যে বন্ধুসূলভ প্রাণীর মধ্যে কুকুর অন্যতম। এরা মানুষের সাথে খুব ভালো বন্ধুত্ব গড়ে তুলতে পারে। তাই এরা মানুষের সাথে অতি অল্প সময়ে জায়গা করে নেয়। অন্যান্য প্রাণীদের মধ্যে এরা খুবই চালাক এবং তৎক্ষনাৎ বুদ্ধি সম্পন্ন হয়ে থাকে। যার ফলে তারা সহজে কোনো বিপদে পড়লে তার হাত থেকে রক্ষা পেয়ে যায় তাদের বুদ্ধিমওা কে কাজে লাগিয়ে।

এদের কে মানুষ অনেকে পোষা হিসেবে রাখে কেননা তারা বিশেষ করে চোর ও শত্রুর জন্য অনেকটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে মালিকের পক্ষ হয়ে। এরা সকল সমস্যা একতা বদ্ধ হয়ে সমাধান করে। এদের বিশেষ একটি গুণ হলে এরা এদের বাচ্চার প্রতি খুবই যত্নবান হয়ে থাকে এবং নিজেকে উৎসর্গ করে হলেও তাদের বাচ্চার জীবনকে বাচাতে তারা সবসময় প্রস্তুত থাকে।

৪) কাকঃ কাক হলো একটি পাখি প্রজাতির প্রাণী। এদের বুদ্ধি সম্পর্কে জানলে যে কেউ অবাক হবে। এরা খুবই একতা বদ্ধ সম্পন্ন। যখন কোনো কাক কে কেই আক্রমণ করে তারা সেই আক্রমণ কারীর ওপর দলবদ্ধ হয়ে জাপিয়ে পড়ে। এরা মানুষের বিভিন্ন খাদ্য চুরি করে কিংবা কুড়িয়ে তাদের খাদ্য আহরণ করে। তারা তাদের সন্তানের প্রতি অতি মায়াবান হন। এদের বুদ্ধি অন্যান্য প্রাণীর চেয়ে সাধারণত বেশি। যার ফলে এরা সকল সময়ে নিজেদের মানিয়ে নিতে পারে।

আজ এই পর্যন্তই। পোস্টটি কেমন লাগলো দয়া করে কমেন্টে জানাবেন, যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যয় শেয়ার করবেন, পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এমন সব দারুন দারুন পোস্ট পেতে Grathor এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Posts

6 Comments

  1. অসাধারণ পোষ্ট নি-সন্দেহে শিম্পাঞ্জির বুদ্ধি রয়েছে। আমি শিম্পাঞ্জি ব্যতিত্ব বাকি প্রাণীগুলোর বুদ্ধির প্রমান নিজ চোখে অপলকন করেছি।

মন্তব্য করুন