ছেলেদের বাইক ফ্যাশন নিয়ে মেয়েদের মন্তব্য | বাইক নিয়ে উক্তি

আসসালামু আলাইকুম সুপ্রিয় পাঠকগণ। কেমন আছেন আপনারা সবাই?আশা করি আপনারা যে যার অবস্থানে ভালো আছেন এবং সুস্থ আছেন।সকলে নিজ নিজ অবস্থানে ভালো থাকুন এবং সুস্থ থাকুন সেই কামনাই ব্যক্ত করি।

বর্তমানে আজকাল কার ছেলেদের মাঝে বাইক একটি ফ্যাশন হয়ে দাড়িয়েছে।প্রায় একটু বড় হলে ছেলেরা তাদের বাবা মার কাছে বাইক চেয়ে বসে। অনেক বাবা মা ছেলের মনের আশাপুরনের জন্য বাইক কিনে দিলেও আবার অনেক বাবা মা বাইক কিনে দেয় না। এই নিয়ে প্রত্যেকটা ছেলের ঘরেই নানান ধরণের ঝামেলা বিদ্যমান রয়েছেই।কিন্তু ছেলের স্বপ্নপূরণের আশায় বাবা মা ভুলে যায় যে এই বাইকেই হতে পারে ছেলের মৃত্যুর পথ। কারণ শুধুমাত্র বাইক এক্সিডেন্ট করেই প্রতিবছর অনেক ছেলে মারা যাচ্ছে।
চলুন জেনে আসি বাইকের অপকারিতাঃ

১.আজকালের ছেলেরা বাইককে একধরণের ট্রেন্ড মনে করে থাকে ফলে বাইক কেনার পর তাদের অহংকার বেড়ে যাতে থাকে।

২.অনেকেই বাইক চালাতে গেলে কোন নিয়মকানুন এর তোয়াক্কা করে না। যার ফলে বাইকের জন্য নানান ধরণের আইনি জটিলতায় পড়তে দেখা যায় আজকালকার ছেলেদের।

৩.প্রতিবছর নানান ধরণের অক্সিডেন্ট হয়ে থাকে শুধুমাত্র বাইকের জন্য।

৪.বাইক দিয়ে অনেক সময় মেয়েদের ইভটিজিং এর মতো অপরাধ করে থাকে।

এছাড়াও আরও নানান ধরণের অপকর্মের সাক্ষী হয়ে থাকে এই বাইক।
অনেক ছেলে আবার শুধুমাত্র মেয়েদেরকে ইম্পপ্রেস করার জন্য বাইক কিনে থাকে। প্রত্যেক বাইকধারি ছেলের স্বপ্ন থাকে যে তার পিছের সিটে একজন মেয়ে বসবে। অনেক ছেলেরা ভাবে মেয়েরা বাইকওয়ালা ছেলেদের বেশি পছন্দ করে থাকে। কথাটি কিন্তু সত্য নয়।

কারণ সকল মেয়েরা কিন্তু বাইকওয়ালা ছেলেদের তেমন একটা পছন্দ করে না। কিছু কিছু মেয়েদের বাইক পছন্দ থাকতে পারে। আবার অনেকের বাইক খুবই অপছন্দ।অনেক মেয়েই আবার বাইকওয়ালা ছেলেদের বখাটে ছেলে ভেবে থাকে। আবার অনেক মেয়েই শুধুমাত্র ছেলের বাইক দেখে তার উপর ক্রাশ খেয়ে থাকে।

ছেলেদের একটা বয়স পরই বাইক একটি ফ্যাশন হয়ে দাড়িয়েছে। এই বাইক ফ্যাশনের জন্য নানান ধরণের অপকর্মের সংঘটিত হয়ে থাকে।আবার এই বাইকের ফ্যাশনের জন্য অনেক ছেলের মন ভাংতেও দেখা যায়।

বাইক কতটা উপকারী কতটা উপকারী না সেই তর্কে না যাই। কিন্তু বাইকের যাতে ক্ষতিকর সাইডগুলো কাউকে ক্ষতিগ্রস্ত না করে সেই জন্য কাজ করা উচিত।ছেলেদের বাইক নিয়ে আজকাল কার মেয়ে ধারণা পাল্টেছে। তাই ছেলেদের উচিত মেয়েদের পছন্দকে সম্মান দেওয়া। ধন্যবাদ সবাইকে।

ঘরে থাকুন
সুস্থ থাকুন

Related Posts

44 Comments

মন্তব্য করুন