★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে ভূমিকা রাখতে পারেন এবং পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন★এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন★

বর্তমান সময়ে লোভি ও স্বার্থপর মানুষের সংখ্যাই বেশি…

অনেকদিন আগে এক স্বার্থপর লোক বাস করতো।অন্যের সম্পদের ভাগ বসানোর জন্য সে সব সময় সুযোগ খুজত। কিন্তু সে তার নিজের সম্পদ কখনো কারো সাথে শেয়ার করতে রাজি ছিল না, গরিবদের সাথে তো না-ই ,এমনকি তার বন্ধুদের সাথে ও না। একদিন লোকটি রাস্তায় তার ৩০টি স্বর্নমুদ্রা হারিয়ে ফেলল। তার এক বন্ধু এই স্বর্ণমুদ্রা হারানোর কথা শুনলেন,তিনি ছিলেন খুব ভালো একজন মানুষ ।ঘটনাক্রমে বন্ধুটির মেয়ে রাস্তায় স্বর্ণমুদ্রা কুড়িয়ে পেল ।সে বাড়িতে ফিরে এই কথা জানালে,তার বাবা বলে যে এটা নিশ্চয় তার বন্ধুর হারিয়ে যাওয়া সেই স্বর্ণমুদ্রা।তাই তিনি লোকটির কাছে গেল তাকে মুদ্রা গুলো ফিরিয়ে দিতে। কিন্তু তার স্বার্থপর বন্ধু যখন শুনলো তার মেয়ে এই মুদ্রা কুড়িয়ে পেয়েছে তখন সে বলল আমার মোট ৪০ টি স্বর্ণ মুদ্রা ছিল। তোমার মেয়ে নিশ্চয় এখান থেকে দশটি মুদ্রা সরিয়েছে। আমাকে তোমার চল্লিশটি মুদ্রায় ফেরত দিতে হবে। একথা শুনে লোকটি রেগে গেলেন এবং মুদ্রাগুলো সেখানে রেখে চলে গেল… কিন্তু স্বার্থপর বন্ধু ছিল নাছোড়বান্দা,সে বিচার নিয়ে আদালতে গেল, বিচারক তার অভিযোগ শুনলেন এবং সেই মেয়েকে ও তার বাবাকে তারা ডেকে পাঠালেন যখন তাদের নিয়ে আসা হল তখন,তিনি মেয়েটিকে জিজ্ঞেস করলেন সে কতটি মুদ্রা পেয়েছিল?মেয়েটা জানালো, ৩০ টি স্বর্ণমুদ্রা। বিচারক আবার স্বার্থপর লোকটিকে জিজ্ঞেস করলেন? সে কতটি মুদ্রা হারিয়েছিল, লোকটির জানালো মোট ৪০ টি স্বর্ণমুদ্রা। বিচারক এবার লোকটিকে জানালেন,মুদ্রা কুড়িয়ে পেয়েছে ,সেগুলো তার নয় কারণ মেয়েটি পেয়েছে ৩০ টি স্বর্ণমুদ্রা, কিন্তু সে হারিয়েছে চল্লিশটি মুদ্রা, বিচারক মেয়েটিকে মুদ্রাগুলো তার সাথে নিয়ে যেতে বললেন এবং যদি কেউ জানায় ৩০ টি মুদ্রা হারিয়েছে তবে তাকে আবার ডেকে পাঠাবেন। বিচারক লোকটিকে বললেন কেউ যদি খবর দেয় যে, সে চল্লিশটি স্বর্ণমুদ্রা পেয়েছে, তবে তাকে ডেকে পাঠানো হবে ।তখন সাথে সাথে স্বার্থপর লোক টি স্বীকার করল,সে মিথ্যা বলছে এবং আসলেই সে ৩০ টি স্বর্ণমুদ্রায় হারিয়েছে। তাই তাকে সেগুলো ফিরিয়ে দেয়া হোক,কিন্তু বিচারক তার কোন কথাই শুনলে না ।শেষ কথা স্বার্থপর অনেকন আগে এক স্বার্থপর লোক বাস করতো।অন্যের সম্পদের ভাগ বসানোর জন্য সে সব সময় সুযোগ খুজত। কিন্তু সে তার নিজের সম্পদ কখনো কারো সাথে শেয়ার করতে রাজি ছিল না, গরিবদের সাথে তো না-ই ,এমনকি তার বন্ধুদের সাথে ও না। একদিন লোকটি রাস্তায় তার ৩০টি স্বর্নমুদ্রা হারিয়ে ফেলল। তার এক বন্ধু এই স্বর্ণমুদ্রা হারানোর কথা শুনলেন,তিনি ছিলেন খুব ভালো একজন মানুষ ।ঘটনাক্রমে বন্ধুটির মেয়ে রাস্তায় স্বর্ণমুদ্রা কুড়িয়ে পেল ।সে বাড়িতে ফিরে এই কথা জানালে,তার বাবা বলে যে এটা নিশ্চয় তার বন্ধুর হারিয়ে যাওয়া সেই স্বর্ণমুদ্রা।তাই তিনি লোকটির কাছে গেল তাকে মুদ্রা গুলো ফিরিয়ে দিতে। কিন্তু তার স্বার্থপর বন্ধু যখন শুনলো তার মেয়ে এই মুদ্রা কুড়িয়ে পেয়েছে তখন সে বলল আমার মোট ৪০ টি স্বর্ণ মুদ্রা ছিল। তোমার মেয়ে নিশ্চয় এখান থেকে দশটি মুদ্রা সরিয়েছে। আমাকে তোমার চল্লিশটি মুদ্রায় ফেরত দিতে হবে। একথা শুনে লোকটি রেগে গেলেন এবং মুদ্রাগুলো সেখানে রেখে চলে গেল… কিন্তু স্বার্থপর বন্ধু ছিল নাছোড়বান্দা,সে বিচার নিয়ে আদালতে গেল, বিচারক তার অভিযোগ শুনলেন এবং সেই মেয়েকে ও তার বাবাকে তারা ডেকে পাঠালেন যখন তাদের নিয়ে আসা হল তখন,তিনি মেয়েটিকে জিজ্ঞেস করলেন সে কতটি মুদ্রা পেয়েছিল?মেয়েটা জানালো, ৩০ টি স্বর্ণমুদ্রা। বিচারক আবার স্বার্থপর লোকটিকে জিজ্ঞেস করলেন? সে কতটি মুদ্রা হারিয়েছিল, লোকটির জানালো মোট ৪০ টি স্বর্ণমুদ্রা। বিচারক এবার লোকটিকে জানালেন,মুদ্রা কুড়িয়ে পেয়েছে ,সেগুলো তার নয় কারণ মেয়েটি পেয়েছে ৩০ টি স্বর্ণমুদ্রা, কিন্তু সে হারিয়েছে চল্লিশটি মুদ্রা, বিচারক মেয়েটিকে মুদ্রাগুলো তার সাথে নিয়ে যেতে বললেন এবং যদি কেউ জানায় ৩০ টি মুদ্রা হারিয়েছে তবে তাকে আবার ডেকে পাঠাবেন। বিচারক লোকটিকে বললেন কেউ যদি খবর দেয় যে, সে চল্লিশটি স্বর্ণমুদ্রা পেয়েছে, তবে তাকে ডেকে পাঠানো হবে ।তখন সাথে সাথে স্বার্থপর লোক টি স্বীকার করল,সে মিথ্যা বলছে এবং আসলেই সে ৩০ টি স্বর্ণমুদ্রায় হারিয়েছে। তাই তাকে সেগুলো ফিরিয়ে দেয়া হোক,কিন্তু বিচারক তার কোন কথাই শুনলেননা ।

শেষ কথা স্বার্থপরতা ও লোভ মানুষকে ধ্বংস করে



মন্তব্য করুন