grathor-ads

বিদেশী সাইটে কাজ করে আয় করা কি সহজ?

বন্ধুরা, তোমরা কি অনলাইনে আয় করতে চাও? অনলাইনে আয় করা কি খুবই সহজ নাকি খুবই কঠিন? আজকে আমি অনলাইনে আয় করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি টপিক বিদেশী সাইটে আর্টিকেল লিখে আয় করা কতটা ঝামেলার, তা নিয়ে আলোচনা করব।
আর্টিকেল কি?


📢 Promoted post: বাংলায় আর্টিকেল লেখালেখি করে ইনকাম করতে চান?

এটা হচ্ছে এমন কিছু লেখা, যার মাধ্যমে যে কেউ তার মনের চিন্তা ধারা তার নিজস্ব ভাষায় বা অন্য কোনো ভাষায় লিখে পাঠককে পড়তে উৎসাহিত করে। আমরা অনলাইনে যারা কম বেশি আরনিং নিয়ে ঘাটাঘাটি করি, তাদের কাছে প্রায় যে নামটি শুনা যায়, তাহলো আর্টিকেল রাইটিং। বিদেশী অনেক সাইট আছে, যারা আর্টিকেল লেখার বিনিময়ে ডলার দিয়ে থাকে। ফ্রিল্যান্সিং করা যাকে বলে আর কি! কিন্তু, সে সমস্ত সাইটে কাজ সকলেই খুঁজে পায় না। এসমস্ত বিদেশী সাইটে অনেকেই কাজ করতে পারে না। কারণ কি? কারণ একটি নয়, অনেক। চল দেখে আসি কি কি কারণ:

👉Read more: ফুল নিয়ে ক্যাপশন (সাদা ফুল, কৃষ্ণচূড়া ফুল, সূর্যমুখী, সরষে ফুল, রঙ্গন ফুল) উক্তি, স্ট্যাটাস

১) ইংরেজিতে দুর্বলঃ বেশিরভাগ লোকই যে কারণের বা যে অসুবিধার কারনে বিদেশী সাইটে কাজ করতে পারে না, তা হলো তাদের মধ্যে ইংরেজিতে দুর্বলতা রয়েছে। ইংরেজিতে পারদর্শী না হওয়ার কারনে, বা ভালোভাবে ইংরেজিতে বাক্যের বিন্যাস না করার কারণে, তাদের লেখা আর্টিকেলগুলো বিদেশী সাইটের লোকেরা গ্রহণ করে না।

ফলে রিজেক্ট করে দেয়। অনেকদিন যাবত আর্টিকেল এভাবে রিজেক্ট করতে করতে একসময় একাউন্ট ডিজেবলও করে দেয়। যার ফলে বাংলাদেশী অনেক লোক আর্টিকেল লিখে ইনকামের পথ ছেড়ে দেয়। হতাশাতে ভুগে।

grathor-ads

২) অভিজ্ঞতা থাকে নাঃ অনেক লোক আছে, যারা অনলাইন ইনকামে নতুন। তাদেরকে বিদেশী সাইট সহজেই কাজ দেয় না। কারণ, বিদেশী সাইটের কর্তৃপক্ষরা মনে করে, এরা নতুন, তাই অভিজ্ঞতা না থাকার কারণে আর্টিকেল সাবমিট করার পরেও তাতে না ভুলের ভুল খুঁজে বের করে রিজেক্ট করে দেয়। ফলে নতুন নতুন কাজ শিখতে কিছুটা সময় লাগে।

৩) পেইমেন্ট নিতে অসুবিধাঃ বিদেশী সাইটেরা সাধারণত পেইপাল, পকেট মানিসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পেইমেন্ট মেথডে পেমেন্ট করে থাকে। আর এসব মেথডে একাউন্ট ক্রিয়েট করতে জাতীয় পরিচয় পত্র কিংবা পাসপোর্ট এর প্রয়োজন হয়। আর অধিকাংশই আমরা যারা অনলাইনে কাজ করতে চাই বা করি, তারা ছাত্র।

📢 Promoted Link: Unlimited Internet Package Teletalk 2022 3G, 4G

ফলে পাসপোর্ট কিংবা জাতীয় পরিচয় পত্র বা এনআইডি আমাদের থাকে না। বাবা, মা কিংবা অন্যদের কাছে নিতে হয়। একাউন্ট ক্রিয়েট করার পর, আবার সেই ডলার বাংলাদেশী ব্যাংকে নিয়ে আসতে আরও একটা পথ অবলম্বন করতে হয়। ফলে অনেক ঝামেলা মনে করে থাকে অনেকেই। যার ফলে কাজ করতে চায় না।

৪) প্রতারণার শিকার হতে হয়ঃ বিদেশে অনেক সাইট আছে, যারা প্রতারণা করে থাকে। তারা তোমাদের দ্বারা কাজ করিয়ে নিয়ে তোমাদের বিদেশী সাইটের একাউন্টে ১০০ কিংবা ২০০ ডলার শো করাবে। কিন্তু সেই ডলার পেইমেন্ট মেথডে নিতে গেলে আসবে না। মানে সব টাকা তারাই মারে খাবে।

এভাবে প্রতারণার শিকার হওয়ার কারণে অনেকেই বিদেশী সাইটে কাজ করতে চায় না।
আরও বেশ কিছু কারণ থাকার কারণে বিদেশী সাইটে আর্টিকেল লিখে আয় করা ঝামেলাযুক্ত মনে হয়।
তোমাদের কি মতামত?

Related Posts

9 Comments

মন্তব্য করুন