Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

আউটসোর্সিং

Clipclaps থাকে ইনকাম করুন ৫০০ টাকা

miraz raj

Published

on

প্রিয় পাঠক-পাঠিকা,

আপনাদের সাহায্য এবং সহযোগিতার এবং আপনাদের ভিতরে প্রশ্নগুলো রিসার্চ করে প্রতি মুহূর্তে আমরা বিভিন্ন রকমের আর্টিকেল নিয়ে হাজির হয় যে আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের গোপন যে প্রশ্নগুলো সেগুলোর সমাধান দেবার জন্য।
আশা করি এই প্রশ্নটিই সবার মনে বিরাজ করছে এবং এই উত্তরটি সবার জন্য উপকারে আসবে।সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন এবং আপনাদের মনের ভিতরে যে লুকোনো প্রশ্নটি সেটার উত্তর পেয়ে যাবেন আশা করি।
বর্তমান সময়ে অনলাইন ইনকাম বা আউটসোর্সিংয়ের চিন্তা-চেতনা কারো মধ্যে নেই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। সবাই চায় ঘরে বসে মোবাইল এবং কম্পিউটারের মাধ্যমে অনলাইন থেকে ঘুরে পড়ে টাকা ইনকাম করা এবং ক্যারিয়ার গঠন করার স্বপ্ন কে বা না দেখে।
তাই আপনাদের সেই স্বপ্ন পূরণের বৃদ্ধ প্রতিজ্ঞা নিয়ে আমার এই আর্টিকেলটি জুড়ে এমনই কিছু অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে হাজির হয়েছি যে অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে আপনি আপনার হাতের হ্যান্ডসেটের মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন খুব সহজে ঘরে বসে।
আমি আজকে যে অ্যাপ্লিকেশনটি নিয়ে কথা বলব সেই অ্যাপ্লিকেশনটি বর্তমান সময়ের একটি জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশন এবং এটি ধারা ইনকাম করতে পেরেছে এমন লোক অনেক রয়েছে এবং প্রেমেন্ট পুরুষ নিয়ে আপনার কোন চিন্তা করতে হবে না কারণ এটি একটি কাসপেট এবং জনপ্রিয় এ্যাপস এখানে বর্তমান সময়ে অনেক মানুষ কাজ করে ইনকাম করছে।
Clipclaps(ক্লিপকলাপস):
এই অ্যাপ্লিকেশনটি বেশ জনপ্রিয় এখানে বিভিন্ন রকমের কাজ করে ইনকাম করছে অলরেডি। আপনিও চাইলে এখানে ছোট ছোট কাজ করে ইনকাম করতে পারেন যদি পেপাল একাউন্ট অথবা কয়েনবেস একাউন্ট থাকে সেখান থেকে আপনি উইথড্রো করতে পারবেন।
আপনি এখান থেকে অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করার পর এটি ওপেন করলে আপনাকে তিনটি অপশন দেখাবে আপনি 3 উপায়ে এখানে লগইন করতে পারবেন একটি হলো আপনার মোবাইল নম্বর আরেকটি হলো আপনার গুগোল অর্থাৎ জিমেইল একাউন্ট আরেকটি হলো আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে আপনি এখানে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।
এখন কাজের প্রসেসগুলো বলি।
এখানে আপনি ভিডিও দেখার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন এবং রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন না সব থেকে বড় কথা হচ্ছে আপনি প্রতিটি রেফারের জন্য সর্বোচ্চ 1 ডলার করে ইনকাম করতে পারবেন এবং সেই 1 ডলার আপনি সাথে সাথে উইডথড্র করতে পারবেন এবং আপনি এখানে বিভিন্ন রকমের স্পিন ঘুরিয়ে ইনকাম করতে পারেন।
খুবই সহজ কাজগুলো আপনি চাইলে খুব সহজেই কাজগুলো করতে পারেন এবং আপনি ওইটা খুব সহজেই করতে পারবেন আপনি যখন এই অ্যাপ্লিকেশনটির মধ্যে ঢুকবেন তাহলে দেখতে পারবেন এর সকল ফিচার গুলো খুব সুন্দর ভাবে এবং সহজলভ্য ভাবে সাজানো হয়েছে আপনি এখানে কোনো প্রকার ঝামেলার মধ্যে পড়তে হবে না খুব সহজভাবে সেটিংসগুলো সাজানো আছে আপনি খুব সহজে এখান থেকে তুলতে পারবেন।
তাই ধৈর্য সহকারে এবং কনফিডেন্সের সাথে কাজ করুন এখান থেকে অবশ্যই আপনি ইনকাম করতে পারবেন আমার বিশ্বাস।

অ্যাপ্লিকেশন লিংক



আউটসোর্সিং

কোন কাজ না করেই সাইট থেকে টাকা আয় করুন

kazol kobi

Published

on

আসসালামু আলাইকুম , সবাই কেমন আছেন ? আশা করি সবাই ভালো আছেন ৷ বর্তমান যূগ হলো অনলাইনের যুগ ৷ সবাই অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করছে ৷ ভবিষ্যতে এর পরিধি আরো বাড়বে৷সব সাইটে কাজের মাধ্যমে টাকা দিয়ে থাকে ৷আজকে এমন একটি সাইটের কথা বলবো যেখানে আপনাকে কোন কাজ করতে হবেনা ৷ আপনার একাউন্টে অটোমেটিক টাকা জমা হবে ৷ তো চলুন শুরু করা যাক ৷

যেভাবে রেজিষ্ট্রেশন করব

ক্রোম ব্রাউজার দিয়ে সার্চ বারে টাইপ করুন Minex.world এই সাইটে  ঢুকে নিচের দিকে দেখবেন স্টার্ট লেখা আছে ৷আপনি চাইলে পুরো পেজটিকে বাংলা করে নিতে পারেন ৷ ক্রোম ব্রাউজারের ট্রানস্লেট অপশনে ক্লিক করে বাংলা করে নিলে আপনার জন্য বুঝতে সুবিধা হবে ৷ এরপর জিমেইল আইডি দিয়ে একাউন্ট তৈরি করুন ৷ একটা ভালো পাসওয়াড দিবেন ৷ এরপর আবার লগিন অপশনে ক্লিক করে সাইটে প্রবেশ করুন ৷ সাইটে নতুন ঢোকা মাত্রই আপনি পেয়ে যাবেন ২০ হাজার গিগা হার্স ফ্রি ৷ এগুলোই আপনার মূলধন ৷

যেভাবে মুলধন ইনভেস্ট করবেন ৷ 

আপনার একাউন্ট একটিভ হলেই আপনি যে কোন একটি কয়েন বেছে নিতে পারেন ৷ এখানে বিট কয়েন সহ ডগি কয়েন রয়েছে ৷ আমি পরামর্শ দিবো ডগি কয়েন সিলেক্ট করার জন্য ৷ কারন এটাতে কম ডলার হলেই উইথড্র করতে পারবেন ৷ ডগি কয়েন সিলেক্ট করে নিচে দেখুন একটিভ লেখা আছে ৷ এটাতে ক্লিক করে রেখে দিন ৷ দেখবেন ইনকাম হওয়া শুরু হয়েছে ৷

আপনি যদি মূলধন বাড়াতে চান তাহলে তাহলে এক ঘন্টা পরপর সাইটে ঢুকে বোনাস কালেক্ট করতে পারেন ৷ বোনাস পেতে আপনাকে উপরের দিকে থ্রি ডট মেনুতে ক্লিক করতে হবে ৷ সেখানে বোনাস লেখা আছে ৷ এটাতে ক্লিক করলে দেখবেন গেট বোনাস ৷ ব্যস বোনাস নিলে আপনার মূলধন বাড়বে আর বেশি ইনকাম হবে ৷



টাকা কিভাবে তুলবেন ? 

থ্রি ডট আইকনে ক্লিক করে দেখুন উইথড্র লেখা আছে ৷ আপনার যখন ডগিকয়েন ৫৬০ এর বেশি হবে তখন ডগি কয়েনে টাকাটা ট্রান্সফার করে নিবেন ৷ এজন ডগি কয়ন অবশ্যই থাকতে হবে ৷ ইউটিউবে অনেক ভিডিও আছে কিভাবে ডগি কয়েন একাউন্ট খোলে ৷ তারপর একটা একাউন্ট খুলে নিবেন ৷ একাউন্ট ওয়ালেট নাম্বার দিয়ে টাকা উইথড্র দিতে পারবেন ৷ এখানে ডলারগুলো বিকাশে কনভার্ট করে নিলে হবে অথবা ডলার বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিক্রি করতে পারবেন ৷

তাহলে , আর দেরী কেন ? একাউন্ট খুলে রাখুন আর কোন কাজ ছাড়াই টাকা ইনকাম করুন ৷ আপনার এখানে টাকা জমা হতে থাকবে ৷ যেহেতু আপনাকে এখানে কোন কাজ করতে হবেনা শুধুমাত্র বোনাটা কালেক্ট করবেন ৷ এতে করে আপনার ইনকাম বাড়তে থাকবে ৷ তো সবাই ভালো থাকবেন ৷ আজ এ পর্যন্ত ৷

Continue Reading

আউটসোর্সিং

জরিপ করে ইনকাম করুন। (আই.পি ছাড়া)

Kazi Akash

Published

on

হ্যলো বন্ধুরা, আপনারা সবাই কেমন আছেন ? আশা করি আপনারা যে যেই অবস্থানে আছেন সুস্থ দেহে সুস্থ মনে বেশ ভালো আছেন । আমিও বেশ ভালো আছি । আপনারা যে যেই অবস্থানে আছেন সে সেই অবস্থানে থেকে সর্বদা সুস্থ দেহে সুস্থ মনে বেশ ভালো থাকুন এ প্রত্যাশাই ব্যক্ত করি সব সময়।

বন্ধুরা আমরা সকলে জরিপ সম্পর্কে কিছুনা কিছু যানি। কি এই জরিপ তা আমরা সবাই দেখেছি। আমাদের বাসা বাড়িতে সরকারি ভাবে বা অনেক কোম্পানি জরিপ করার জন্য অনেক লোক পাঠায়। বন্ধুরা জরিপ অনেক প্রকার হয়ে থাকে। সেটা পরিবার সংক্রান্ত বা আয় সংক্রান্ত এই রকম বিভিন্ন ধরনের জরিপ হয়।

বন্ধুরা এখন আমরা আধুনিক যুগে রয়েছি এই যুগে সব কিছুই অনলাইনে হয়ে থাকছে। তো জরিপ এখন অনলাইনে করা হয়ে থাকে কিন্তু বন্ধুরা আমরা এই জরিপ করে মাসে মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারি। বন্ধুরা আমরা আমরা সকলে যানি জরিপের কাজ করতে গেলে একটা ভালো আই.পি লাগে এটার দাম অনেক যা আমরা অনেকে কিনতে পারিনা। এটা অনেক বড়ো একটা সমস্যা।

তো বন্ধুরা চিন্তার কোন কারন নেই আমি আপনাদের আজ যে সাইট এর কথা বলতে যাচ্ছি সেখানে আপনি খুব ভালো ভাবে কাজ করতে পারবেন কিন্তু তার জন্য কোন আইপি লাগবেনা। আইপি ছাড়া আমরা এখন জরিপের কাজ করতে পারি। তো বন্ধুরা চলুন দেখেনি কিভাবে একাউন্ট করতে হয় কিভাবে কাজ করতে হয়।



বন্ধুরা সাইটি এর নাম হলো SuperPay.Me এখানে ক্লিক করলে আপনারা সাইটে প্রবেশ করবেন।

একাউন্ট করার নিয়ম

সাইটে প্রবেশ করে আমাদের সাইন আপ করতে হবে। সব সাইটের মতো এখানেও একটি ফর্ম দেওয়া হবে যেখানে আপনার নাম, ঠিকানা, আপনার ইমেইল, আপনার দেশ, আপনার শহর, আপনার জিপকোড, আপনার ফোন নম্বর। এই সকল কিছু দিয়ে ফর্মটা পূরন করে একাউন্ট করার নিয়মটা সম্পূর্ন করতে হবে।

কিভাবে জরিপ করবেন বা কিভাবে জরিপ পূরন করবেন

বন্ধুরা জরিপ করতে হলে আপনাকে শুধু প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। ওদের বিভিন্ন রকমের প্রশ্ন ওরা আপনার কাছে যানেতে চাইবে আর আপনি ওদের প্রশ্নের উত্তর গুলো দিবেন। তো বন্ধুরা কাজের ড্যাসবুকে এসে আমাদের প্রথমে মাই অফারে ক্লিক করতে হবে।

তারপর আমরা দেখবো এখানে অনেক জরিপ চলে এসেছে এবং প্রতিটার জন্য আলাদা আলাদা টাকা। তো বন্ধুরা আমরা যখন জরিপ করবো তখন আমরা সব সময় আমাদের বয়সটা একটু বারিয়ে দিবো তাহলে আমাদের কাজটা সম্পন্ন হবে। এটা করার কারন হলো আমরা দেখে আমাদের বাসায় যখন জরিপের কাজে আসে তখন তারা আমাদের বাবা মাকে খোজে এবং তাদের সাথে কথা বলে।

তো বুঝতেই পারছেন আমি বয়সটা কেনো বারাতে বলেছি। নিশ্চই তারা অল্প বয়সের লোকের থেকে কোনো তথ্য নিবে না তাই আমরা এটা করবো। তো সকলে এটা সব সময় মাথায় রাখবেন। আর একটা কথা কখনো এমন কোন তথ্য দিবেন না যা অতিরিক্ত মিথ্যা হয়ে যায়।

এতে করে জরিপ নাও হতে পারে। তাছাড়া তাদের যদি কোনো ভাবে সন্দেহ হয় তখন তারা সাথে সাথে আপনাকে জরিপ থেকে বের করে দিবে তাই একাজ গুলো কখনো করবেন না। তো বন্ধুরা আশা করি সকলে বুঝতে পেরেছেন কিভাবে জরিপ সম্পন্ন করতে হয়। আর এখান থেকে আপনার পেপালের মাধ্যমে আপনি মাএ $২ ডলার হলে টাকা তুলতে পারবেন।

বন্ধুরা সবাই এখানে কাজ করুন খুব ভলো একটা জরিপ সাইট। সব থেকে বড়ো কথা হলো এখানে কোন আইপি লাগেনা।

Continue Reading

আউটসোর্সিং

রিসেলিং করে ইনকাম করুন ঘরে বসে।

Kazi Akash

Published

on

হ্যলো বন্ধুরা, আপনারা সবাই কেমন আছেন ? আশা করি আপনারা যে যেই অবস্থানে আছেন সুস্থ দেহে সুস্থ মনে বেশ ভালো আছেন । আমিও বেশ ভালো আছি । আপনারা যে যেই অবস্থানে আছেন সে সেই অবস্থানে থেকে সর্বদা সুস্থ দেহে সুস্থ মনে বেশ ভালো থাকুন এ প্রত্যাশাই ব্যক্ত করি সব সময়।

রিসেলিং কি রিসেলার কাকে বলে?

বন্ধুরা আমরা হয়তো অনেকে যানিনা রিসেলিং কি রিসেলার কাকে বলে। তো বন্ধুরা এর মানে হলো কোন প্রতিষ্ঠানের পন্য কেউ যদি বিক্রি করিয়ে দিতে পারে তাকে বলা হয় রিসেলিং আর যে বিক্রি করিয়ে দেয় তাকে বলে রিসেলার। আপনার এই কাজটা করতে পারেন। এটা খুবই ভালো একটা কাজ এর মাধ্যমে আপনি মাসে ২০০০০টাকা বা তার বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

এর জন্য আপনাকে কোন টাকা দিতে হবেনা। এটি আপনি আপনার ফোন থেকে করতে পারবেন বা কম্পিউটার থেকে। তো বুঝতেই পারছেন কতো ভালো একটা কাজ। এটা আপনি আপনার ফেসবুক একাউন্ট বা আপনার ফেসবুক পেজের মাধ্যমে করতে পারেন। তো আমি এখন সব কিছু বলে দিবো কিভাবে পন্য পাবেন যা আপনি বিক্রি করবেন। কিভাবে আপনি একাউন্ট করবেন। তো চলুন বন্ধুরা শুরু করি

বন্ধুরা সাইট এর নাম হলো ShopUp এই লেখায় ক্লিক করলে আপনি সাইটে চলে যাবেন।



কিভাবে একাউন্ট করবেন?

উপরের লিংকে ক্লিক করে সাইটে যাওয়ার পর আপনাকে রেজিষ্টেশন করে নিতে হবে। এখানে একটি ফর্ম আসবে এখানে আপনার নাম, ঠিকান, জেলা, জিপকোড, আপনার নম্বর, আপনার বিকাশ নম্বর দিয়ে রেজিষ্টশন করে নিতে হবে। একটি গুরুত্বপূর্ন কথা বন্ধুরা এখানে সবার বিকাশ নম্বর থাকতে হবে কারন তারা সবটাকা বিকাশে পেমেন্ট করে। এটা সম্পূর্ন একটি বাংলাদেশি সাইট। আশা করি সকলে বুঝতে পেরেছেন কিভাবে একাউন্ট করবেন।

কিভাবে পন্য পাবেন এবং বিক্রি করবেন?

বন্ধুরা এটা মূলত একটি অনলাইন শপিং সাইট এখানে ছেলে মেয়েদের জামা কাপর, জুতা ইত্যাদি বিক্রি হয়ে থাকে। তো এখানে আপনার যেটা নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছা হয় আপনি সেটা নিয়ে কাজ করতে পারেন। তার জন্য আপনাকে প্রথমে সেই জিনিসটা সার্চ করে আনতে হবে এবার দেখবেন ঐ পন্যের নির্দিষ্ট একটা দাম ঐখানে দেওয়া রয়েছে এরং আপনাকে ঐপন্যটা কতো টাকায় বিক্রি করতে হবে সেটাও তারা বলে দিবে।

তাহলে তাদের দাম আর আমাদের বিক্রি করা দামের মধ্যে যে টাকা থাকবে সেটা হলো আমাদের লাভ। এবার আমাদের পছন্দের পন্যের কিছু ছবি আমরা এখান থেকে ডাউনলোড করবো এবং দামটা ভালো করে দেখে নিবো। তো আমরা সব সময় চেষ্টা করবো যুগের সাথে তাল মিলেয়ে চলের যখন যে পন্যটার চাহিদা থাকবে আমরা সেটা নিয়ে মার্কেটিং করবো।

এখন আমরা চলে যাবো আমাদের ফেসবুক একাউন্ট বা পেজে। অবশ্যই আমাদের একাউন্টে অনেক ফলোয়ার থাকতে হবে। তার জন্য ভালো হয় একটি পেজ থাকলে। তো এবার আমরা ঐ ছবি গুলো নিয়ে পোস্ট করবো তার সাথে কিছু লিখে দিবো যেমন দাম সাথে আরো বেশ কিছু যাতে করে মানুষ এটি দেখে আকৃষ্ট হয়।

এবার কেউ যদি আপনার পেজ থেকে পন্য অর্ডার করে তখন আপনি তার নাম ঠিকানা ফোন নম্বর নিবেন।এবার আপনি চলে আসবেন সাইটে আপনি যে পন্যটির অর্ডার পেয়েছেন সে পন্যটা এবার আপনি এখান থেকে অর্ডার করবেন তার নাম ঠিকানা ফোন নম্বর দিয়ে এবং দাম দিয়ে দিবেন। তার ফলে ShopUp তার কাছে তার পন্যটি পৌছে দিবে এরং যে লাভের অংশটি থাকবে সেটা আপনি পাবেন। এটা আপনি প্রতি সপ্তাহের সোমবার আপনার বিকাশ একাউন্টে পেয়ে যাবেন।

বন্ধুরা সবাই বুঝতেই পারছেন কতো সুন্দর একটা কাজ তো আর দের না করে আজ থেকেই শুরু করুন।

Continue Reading