★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে ভূমিকা রাখতে পারেন এবং পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন★এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন★

অতি প্রয়োজনীয় কিছু স্বাস্থ্য টিপ্স।

কেমন আছেন সবাই?আশা করি সবাই ভালো আছেন।একটা প্রবাদ আছে;স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল।কিন্তু বর্তমানে আমরা কাজের চাপে স্বাস্থ্যের দিকে ঠিকভাবে নজর দিতে পারি না।তাই অল্প বয়সেই পরতে হয় অনেক রুগে।যার ফলে ভবিষ্যতে আমাদের অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।তাই আমাদের উচিৎ কাজের চাপটা একটু কমিয়ে সময় বের করে নিয়ে প্রতিদিন স্বাস্থ্যকে ঠিক রাখতে হবে।

অতি প্রয়োজনীয় ৬ টি স্বাস্থ্য টিপ্সঃ

১.প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে ১০-১৫ মিনিট মেডিটেশন করুন।এতে আপনি সতেজতা অনুভব করবেন,কাজ করার আগ্রহ বাড়বে।এটা নিয়মিত করুন তাহলে আপনার স্বাস্থ্য অনেক ভালো থাকবে।


২.প্রতিদিন ২০-২৫ মিনিট ব্যয়াম করুন।সেটা আপনি সকালবেলা মেডিটেশনের পরেও করতে পারেন।প্রয়োজনে জিম সেন্টারে যেতে পারেন তাছারা বাসায় থেকে ও করতে পারেন।

৩.নিয়মিত হাটার অভ্যাস করুন।আপনি রাতের বেলা বা ঘুম থেকে উঠে হাটতে পারেন।এটার উপকারীতা অনেক।হাটাহাটি করলে আপনার শরীর ঠিক থাকবে।

৪.প্রতিদিন ৬-৮ ঘন্টা ঘোমান।অনেকে আছে যারা কাজের চাপে ভালোভাবে ঘুমায় না।আবার অনেকে আছে যারা সারাদিনই ঘুমায়।এই দুই শ্রেণীর মানুষরায় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে।তাই আপনি চেষ্টা করবেন ৬-৮ ঘন্টা ঘুমানোর জন্য।


৫.বিশুদ্ধ পানি পান করুন।আপনি যখন অবিশুদ্ধ পানি পান করবেন তখন তার কুফলটা সাথে সাথে পাবেন না মানে আপনার রোগটা সাথে সাথে হবে না।প্রতিদিন এটা চালিয়ে গেলে আপনি অনেক ভয়ংকর রোগে আক্রান্ত হবেন।

৬.খাবারের দিক নজর দিন।আপনি ভালো ভালো খাবার প্রতিদিন খেতে চেষ্টা করবেন।মুখ রোচক খাবার না বরং শরীরের জন্য ভালো এইসব খাবারের অভ্যাস করবেন।

কিছু অতিরিক্ত প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য টিপ্সঃ

১.চেহেরা আমাদের পরিচয় বহন করে।যখন এই চেহারাতেই দেখা যায় নানা ধরনের ব্রন।তখন আমরা তা নখ দিয়ে আঘাত করি যা উচিত নয়।তাই এটা থেকে মুক্তির জন্য আপনি প্রতিদিন রসুনের বিচি ঘষতে পারেন।

২.চা খান প্রতিদিন।গবেষনায় দেখা গিয়েছে যারা প্রতিদিন চা খায় তারা স্ট্রক নামের ভয়ংকর রোগ থেকে মুক্তি পাচ্ছে।

৩.প্রতিদিন মাথা ব্যাথা বা পড়তে বসলে মাথা ব্যাথা শুরু হলে খাবারের তালিকায় মাছ খাওয়াটা বাড়িয়ে দিন।মাছের তেল এই সমস্ত সমস্যা থেকে সমাধান দিবে।

৪.যদি অল্প বয়সেই চুল পড়তে শুরু হয়,তাহলে পেয়াজ দিয়ে চুল পরা জায়গায় লাগাতে থাকুন।

এই স্বাস্থ্যগুলো অবশ্যই মেনে চলবেন।আর কোনো রোগ হলে তা যথাসম্ভব ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়ার চেষ্টা করবেন।ভালো থাকবেন সবাই,ধন্যবাদ।

2 Comments

মন্তব্য করুন