★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে ভূমিকা রাখতে পারেন এবং পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন★এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন★

ইউটিউব নাকি টিকটক কোনটি আপনার জন্য বেস্ট।

আশা করি সবাই ভালো আছেন।বর্তমানে ভারতে একটা বিষয় নিয়ে অনেক আলোচনা হচ্ছে আর সেটা হলো টিকটক নাকি ইউটিউব কোনটি বেস্ট।যারা টিকটক করে তারা ইউটিবারদেরকে অপমান করছে আর যারা ইউটিউবিং করছে তারা টিকটকারদেরকে অপমান করছে।আমার ধারণা থেকে আজকে এই দুইটা বিষয় নিয়ে সব আলোচনা করবো:

১.ইনকাম কোনটার বেশি?

যারা ইউটিউবিং করে তারা গুগল এড,স্পনসর,এফেলিয়েট মার্কেটিং আরও অনেক উপায়ে টাকা ইনকাম করতে পারে অন্যদিকে যারা টিকটক করে তারা শুধু স্পনসর থেকে টাকা ইনকাম করে।আর তারা স্পনসর পাওয়ার জন্য তাদের মিনিমাম এক-দুই লাক্ষ ফলোয়ার থাকতে হবে।আর তাদের চ্যানেলটা অনেক হাই-ফাই হতে হবে।


এই ক্ষেত্রে ইউটিউবারদের ইনকাম বেশি।

২.ইউটিউবার নাকি টিকটকার কাদের পরিশ্রম বেশি?

টিকটক যদি আপনি লক্ষ কিরেন তাহলে সেইখানে ১৫-২০ সেকেন্ডর ভিডিও আপলোড করা হয়।আর তাদের সেই ভিডিও গুলোকে এডিট করার সবকিছু থাকে এপ্পসটাতে।আর কিছুই ব্যবহার করতে হয় না।অন্যদিকে যারা ইউটিউবার তাদের ভিডিওকে ট্যাগ,থাম্বনেইল,ডেসক্রিপশন সবকিছু করতে হয় আবার তো এডিট আছেই।


তাই ইউটিউবারদের পরিশ্রম এবং সময় অনেক বেশি নষ্ট হয় টিকটকদের তুলনায়।

৩.টিকটক নাকি ইউটিউব কোনটার বেশি ভিওস হয়?

টিকটক দেখে ১২-১৮ বছরের ছেলে-মেয়েরা বেশি।আর তাদের যখন মন খারাপ থাকে বা বোরিং লাফে তখন বিনোদনের জন্য টিকটক দেখে।আর অন্যদিকে ইউটিউব বেশি দেখে ১৮-৩০ বছরের মানুষেরা বেশি।তারা মূলত কিছু শিখার জন্য ইউটিউব ব্যবহার করে।

তাই দুইটাতেই ভিওস ভালো হয়।

৪.কোনটাতে ভাইরাল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে?

এটা তো অবশ্যই টিকটক হবে।কারনে টিকটকে আমরা কয়েকদিন পর পর দেখি একজন নতুন কেও এসে ভাইরাল হয়ে গেছে।আর ইউটিউবে ভাইরাল হতে হলে অনেক ভিডিও আপলোড করতে হয়।তারপর কোনো একটা ভিডিও ভাইরাল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

তাই টিকটকে ভিডিও ভাইরাল হওয়ার সম্ভাবনা ইউটিউব থেকে বেশি।

৫.কোনটাতে বেশি সম্মার্ন আর মনমতো ভিডিও পেতে পারেন?

ইউটিউবে সার্চ করলে আপনি বিশ্বে ঘটে যাওয়া সকল আলোচিত খবরগুলো পাবেন।অন্যদিকে টিকটকে আপনি পাবেন না।সেইখানে শুধো যেই বেক্তির টিকটক ভিডিও দেখতে চান তার নাম সার্চ করতে হয়।আর ইউটিউবের ভিডিওগুলো টিকটক থেকে বেশি ভালো হয়।কারনে টিকটকে অনেক খারাপ ভিডিও মাঝে মাঝে দেখা যায়।যা ইউটিউব সার্পোট করে না।

তাই নিজের ইচ্ছেমতো ভিডিও দেখতে ইউটিউব টিকটক থেকে বেশি ভুমিকা পালন করে।

তাই দুইটাদিক বিবেচনা করে মনে হয় দুইটাতে ভালো-খারাপ সব আছে।তাই আপনার পার্সোনালি কোনটা ভালো লাগে সেটা কমেন্ট করুন।