Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

টিপস এন্ড ট্রিকস

একবার হলেও পড়ুন কখনো অসফল হবেন না

mannan Mannan

Published

on

১.বিল গেটস:বিল বিল গেটস বলেন গরীব হয়ে জন্মানো আপনার দোষের নয়,কিন্তু আপনি যদি গরীব থেকেই মারা যান এটি আপনার দোষ|বিল গেটস আরও বলেছেন পরীক্ষায় আমি কিছু সাবজেক্টে এ ফেল করেছিলাম,কিন্তু আমার বন্ধুরা সব সাবজেক্টে পাস করেছিল,যারা পাস করেছিল তারা আজ আমার কোম্পানিতে কাজ করে আর আমি কোম্পানির মালিক|পরীক্ষায় পাস করা বা ফেল করা এটা কখনোই নির্ধারণ করে না আপনি ভবিষ্যতে কি হতে চলেছে|পরীক্ষাটা হলো সামান্য মাপকাঠি|

২.রতন টাটা: রতন টাটা বলেন,আমি সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়াটা কে পছন্দ করিনা আমি আগে সিদ্ধান্ত নিই এবং পরে তা সঠিক করি|সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় অনেকেই ভাবতে পারেন এটাই সঠিক সিদ্ধান্ত কিন্তু ব্যর্থ হওয়ার পরে বল না এটা সঠিক ছিল না আসলে কোনটা যে সঠিক সিদ্ধান্ত তারা নিজেরা কখনোই বুঝতে পারে না,তাই আমি মনে করি যেকোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার পরে সেটাকে সঠিক প্রমাণ করায় উচিত|

৩.স্বামী বিবেকানন্দ:স্বামী বিবেকানন্দ বলেছিলেন আপনি একটি সঠিক সিদ্ধান্ত নেন আর এই সিদ্ধান্ত কেই আপনি আপনার জীবন তৈরি করুন,তার সম্পর্কে ভাবুন তার সম্পর্কে চিন্তা করুন,তার সাথে প্রতিটা মুহূর্তে চলুন,আপনার মস্তিষ্ক মাংসপেশি ও প্রতিটি শিরা-উপশিরা কে সেই সিদ্ধান্তের মধ্যে ডুবিয়ে দিন,এবং বাকি সমস্ত চিন্তাকে দূরে রাখুন,এটাই হলো সফল হওয়ার সবথেকে ভালো উপায়|জীবনের রাস্তায় কেউ আপনাকে তৈরি করে দেবে না আপনাকেই তৈরি করে নিতে হবে,যে যেমন রাস্তা তৈরি করবে সে তেমনই গন্তব্য পাবে|পৃথিবী আপনাকে ছেড়ে চলে যাবে বা আপনাকে নিয়ে মজা করবেন কিন্তু এসব কিছু ভুলে গিয়ে আপনার কাজ আপনাকে করতে হবে|

Place your ad code here

৪.ওয়ারেন বাফেট:ওয়ারেন বাফেট বলেন আমার মধ্যে সবসময় একটা বিশ্বাস ছিল যে, আমি ধনী হতে চলেছি|আর আমি কখনো নিজের ওপরে সন্দেহ করিনি,তিনি আরো বলেন আমি কখনো ৬০ ফুট দূরত্ব দেখিনি আমি শুধু দেখেছি ১ ফুট এর দূরত্ব|আমি সেটা অতিক্রম করে যাই,আপনার এবং আপনার জীবনের একশটা কারন এর দরকার নেই,শুধুমাত্র একটি কারণ দরকার সেই কাজটি করার জন্য,যে কাজটি আপনি করতে চান,জীবনে সফল হওয়ার জন্য বেশি নয় শুধুমাত্র একটি উদ্দেশ্য যথেষ্ট|

5.ডক্টর এ. পি. জে. আবদুল কালাম:ডক্টর এ. পি. জে. আবদুল কালাম বলেছেন আমি কোন হ্যান্ডসাম মানুষ নই,কিন্তু আমার হাত সে সকল মানুষের হাতে দিতে পারি যাদেরআমাকে দরকার|সৌন্দর্য আপনার ভেতরে থাকে আপনার চেহারাতে নয়|আপনার প্রথম সফলতার পরে আপনি কখনোই বিশ্রাম করবেন না,কারণ দ্বিতীয়বার হেরে যান বা বিফল হন তবে অনেকেই আপনাকে এটা বলবে যে প্রথম সফলতা আপনি আপনার ভাগ্যের জোরে পেয়েছেন|আপনার যে কোন স্বপ্ন সফল হওয়ার আগে আপনাকে আগে স্বপ্ন দেখা শিখতে হবে|

৬.মার্ক জুকারবার্গ:একজন ১৯ বছরের ছেলে কি করতে পারে এর উত্তর হলো অনেক কিছুই করতে পারে,আর এমনটাই কিছু করে দেখিয়েছেন মার্ক জুকারবাগ| তিনি ছোট বয়সেই তার বন্ধুদের নিয়ে ফেসবুক তৈরি করেন|আর মার্ক জুকারবার্গ বলেন সেই প্রশ্ন যা আমি প্রতিদিন নিজেকে জিজ্ঞেস করি,আর তা হলো আমি কি সেই গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করতে পারছি যা আমি করতে পারি|এটা অনেক ভালো আপনি চেষ্টা করেন আর অসফল হয়ে যান,এর থেকে যে কিছুই করছে না|

৭.জ্যাক মা:জ্যাক মা বলেন,আজকের দিন টা হয়তোবা অনেক খারাপ কালকে আরো খারাপ হতে পারে কিন্তু তার পরের দিন অবশ্যই ভালো হবে|পরশু তো আপনার জয় নিশ্চিত, তাই কাজ ছেড়ে না দিয়ে করতে থাকুন সফলতা হয়তোবা আপনার আসছে না কিন্তু এমন একদিন আসবে সফলতা আপনার কাছে নিজে থেকে আসবে সেদিন হয়তো আপনি সফলতার জন্য তৈরি হয়ে থাকবেন না কিন্তু আপনাকে বরণ করে নেওয়ার জন্য সফলতা তৈরি থাকবে|

৮.মোহাম্মদ আলী:গ্রেট বক্সার মোহাম্মদ আলী বলেন আমি ট্রেডিংয়ের দিনগুলোকে ভীষণভাবে ঘৃণা করতাম,কিন্তু আমি নিজেকে বলেছি হার মেনে নিও না এখন একটু সহ্য করে নাও|যাতে বাকিটা জীবন একজন চ্যাম্পিয়ান এর মত করে বাঁচতে পারো|তিনি আরও বলেন আমি সবথেকে মহান আমি নিজেকে একথা তখনই বলেছিলাম, যখন আমি কিছুই ছিলাম না|একজন চ্যাম্পিয়ান হতে হলে এই কথাটাকে বিশ্বাস করতেই হবে|একজন চ্যাম্পিয়ান হতে চাইলে এই কথাটাকে বিশ্বাস করতেই হবে, যে আপনি সর্বশ্রেষ্ঠ আর এটি যদি আপনি নাও হন তাও দেখানোর চেষ্টা করুন যে আপনি শ্রেষ্ঠ|তিনি আরো বলেছেন চ্যাম্পিয়ন কোন জিমে তৈরি হয় না চ্যাম্পিয়ন তৈরি হয় মানুষের ভিতরে|যা আপনাকে সবকিছু করার শক্তি দেয়,সামনে থাকা পাহাড় আপনাকে আটকাতে পারবেনা আপনাকে আটকে দেবে আপনার জুতোর ভিতরে থাকা সামান্য পাথরের টুকরো|পৃথিবীকে প্রমাণ করে দেখান আপনি কতটা যোগ্য|

তো আজকে এই পর্যন্তই যদি ভালো লাগে তবে শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের মাঝেও সফলতার আগ্রহটা বাড়িয়ে দিন|

টিপস এন্ড ট্রিকস

adsense থেকে ইনকাম এর ট্রিপস। ব্লগিং এর জন্য সেরা ১০ টি নিস।

সুখী মানুষ

Published

on

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ

আশা করি আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন। আজকে আমি আপনাদের সাথে ব্লগিং এর নিস নিয়ে আলোচনা করন। এটা ব্লগিং এর অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আপনি যদি এ বিষয় টা জানতে চান সম্পূর্ণ টা পড়বেন।

প্রথম এ একটা বিষয় ক্লিয়ার করতে চাই নিস কি। নিস হচ্ছে বিষয়। মনে করেন আপনি একটা ওয়েবসাইট খুল্লেন। এখন সেখানে যখন যেটা ইচ্ছে লিখতে পারেন না। আপনাকে সবকিছু একটা নিয়ম মাফিক করতে হবে।

Place your ad code here

এখন আপনি আপনার ওয়েবসাইট এর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখালেখি করতে পারেন। প্রথম এ আমি কিছু নিস পরে সেগুলোর সাব নিস নিয়ে আলোচনা করব।

১) জব নিউজ
২) অনলাইন ইনকাম
৩) নিউজ
৫) রিভিউ
৬) টেক
৭) স্বাস্থ্য
৮) এসএমএস
৯) গল্প ও কবিতা
১০) লাইরিক্স

এগুলো হচ্ছে এক একটা নিস। আপনি আপনার ওয়েবসাইট এ যেকোনো নিস নিয়ে লেখালেখি করতে পারেন। এর অনেকগুলো সাব নিস ও রয়েছে।

যেমন নিউজ হচ্ছে একটা নিস। এর আওতায় অনেক গুলো সাবনিস রয়েছে। আমি যদি সেগুলো একটা করে তুলে ধরি। আপনি খেলার খবর দেশের খবর, আন্তর্জাতিক খবর সহ অনেক খবর এর উপর ব্লগ সাইট তৈরি করতে পারেন। আপনি চাইলে সাব নিস গুলোই একটা নিস করতে পারেন।

এর মানে হচ্ছে আপনি চাইলে শুধু খেলাধুলার খবর এর উপর একটা সাইট করতে পারেন। আবারো আপনি চাইলে সবগুলো খবর নিয়ে একটা ওয়েবসাইট এ লেখতে পারেন।

রিভিউ এর আওতায় অসংখ্য সাব নিস রয়েছে। আপনি চাইলে সবগুলো সাব নিস নিয়ে একটা আলাদা ব্লগ করতে পারেন। যেমন মোবাইল রিভিউ নিয়ে একটা সাইট, লেপটপ রিভিউ নিয়ে একটা সাইট এরকম প্রতিটি জিনিস এর জন্য আলাদা আলাদা সাইট করতে পারেন। আবার চাইলে একটা সাইট এ সবগুলো বিষয় নিয়ে একটা ওয়েবসাইট করতে পারেন।

আশা করি নিস ও সাব নিস কি এটা সবাই বুঝতে পারছেন। এখন সবাই নিস খুজে সহজে বের করতে পারবেন। এখন আর একটা কমন সমস্যা থাকে সেটা হলো নিস চয়েস করা। কে কি নিস নিয়ে কাজ করবে বুঝতে পারে না।

এই ব্যাপার এ আমি আপনাদের একটা সাজেশন দিতে পারি। যদিও আপনার ইচ্ছে বা আপনার দৃষ্টি ভুিন্ন হতে পারে। নিস চয়েস করার ক্ষেএে আমি আপনাদের যে বিষয় গুলো লক্ষ রাখতে বলব তাহলোঃ-

সবার প্রথম নিজের অভিজ্ঞতা। যে নিস নিয়ে আপনি কাজ করবেন তার সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকতে হবে। নাহলে আপনার কোন ভালো ফল আশা করতে পারবেন না। তারপর যে বিষয় লক্ষ রাখতে হবে নিজের ইচ্ছে ও কম্পিটিশন। আপনি যদি এমন নিস নেন যার শত শত ওয়েবসাইট আছে। তাহলে আপনি সফল হতে পারবেন না। আর যদি কাজ এর প্রতি কোন ইচ্ছে না থাকে তাহলে আপনি কিছুদিন করার পর হয়তো করবেন না।

আশা করি নিস কি, সাব নিস ও নিস চয়েস করা নিয়ে আপনাদের সামান্য ধারনা দিতে পেরেছি। আর আলহামদুলিল্লাহ আমার ওয়েবসাইট এ আমি এডসেন্স পেয়েছি। ভাল থাকবেন সবাই। আল্লাহ হাফেজ।

Continue Reading

টিপস এন্ড ট্রিকস

সেলাই কাজের প্রয়োজনীয় টিপসও সহজ নিয়ম

Nusrat Jahan

Published

on

আসসালামু আলাইকুম,

সবাই কেমন আছেন।সবার সুস্হতা কামনা করছি। আমি আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করবো কিভাবে ঘরে বসে সেলাই কাজ শিখে নিজে নিজে করতে পারবেন।অনেকে ভাবে অনেক টাকা লাগে কাজ শিখতে করতে। ভুল ধারনা ।খুব সহজ এবং অল্প খরচে কাজ শিখতে পারবেন।আশা করছি আমার এ টিপস গুলো কাজে আসবে। যারা এতদিন এ ধারনা নিয়ে ছিলেন সবাই এ ধারনা থেকে বের হয়ে আসুন ।খরচ খুব কম হবে ।একদিনে তো হবে ধীরে ধীরে দেয্য সহকারে শিখতে হবে।

 

Place your ad code here

 

 

 

 

 

 

যারা একদম নতুন তাদের খুব কঠিন বিষয় এটা। কি ভাবে কি দিয়ে শুরু করবেন। আমি সব বলব কি ভাবে শুরু করবেন।প্রথমে আপনার জানতে হবে।

গজ,মাপ,ইন্চি,কিভাবে কাটতে হবে,প্রসেস এসব না জেনে কখনও কাজ শিখতে পারবেননা।এসব জানার জন্য একজন দক্ষ লোকের সাহায্য নিতে হবে।এখন মেয়েরা বাহিরে গিয়ে কাজ শিখতে চায়না। এখন উন্নত যুগ সবকিছু হাতের নাগালে পাওয়া যায়। আপনারা চাইলে আমার সাথে যোগাযোগ করে কাজ শিখতে পারেন।আর পোস্টটাও শেয়ার করে সবাইকে সাহায্য করতে পারেন।যতই মানুষ মুখে বলে সমাজটা উন্নত কিন্তু মেয়েরা আজও অবহেলিত। নিজেকে খুব গর্বিত মনে হয় নিজের, একটা হাতের কাজ আছে অন্তত কারো কাছে হাত পাততে হয়না।সবসময় নিজের উপর আত্মবিশ্বাসী হতে হয় ।

 

 

 

 

 

 

আমরা কম বেশি সবাই  জ্যামিতি ড্রয়িং  সবাই  পারি।এটাকে কাজে লাগিয়ে আমরা কাজ শিখে ফেলতে পারি।গুন ভাগ সবাই পারি এদুটোকে কাজে লাগিয়ে আমরা কাপড় কেটে ফেলতে পারি ।বিভিন্ন কিছু কেটে হাতে সেলাই করে ফেলতে পারি।সরন্জাম গুলোও হাতের নাগালে পাওয়া যায়। দামও সাধ্যের মধ্যে ।নিজের কাজ নিজে করলেও খারাপ না ।আপনারা চাইলে আমার সাহায্য নিতে পারেন।

সরন্জামঃ

ফিতা

চক

কাঁচি

স্কেল

ড্রয়িং পেপার

এ কটা জিনিস হলেই আপনারা ঘরে বসে কাজ শিখতে পারেন।আমি পরবর্তীতে তোমাদের জন্য নিয়ে আসবো কিভাবে কাপড় মাপ, গজ ,ইঞ্চি,প্রসেস এসব কিভাবে করতে হবে। সবার মতামত আশা করছি…..reading continue

Continue Reading

টিপস এন্ড ট্রিকস

সব সময় পজিটিভ থাকুন,জীবন পজিটিভ হবে|

mannan Mannan

Published

on

কোন কিছু নিয়ে অনেক বেশি ভাববেন না কারণ সময় সীমিত,আপনি যদি ভাবতেই সকল সময় শেষ করে দেয় তাহলে কাজের জন্য আলাদা সময় পাবেন না তাই ভাবনা পরে ভাবুন কাজ আগে শেষ করুন|সকল মানুষকে অনেক বেশি বিশ্বাস করবেন না কারণ মানুষের বৈশিষ্ট্য হলো সামনে ভালো সম্পর্ক রাখা আর পিছনে সমালোচনা করা,যতই একা বোধ করুন না কেন কখনো নিজের সিদ্ধি উদ্ধারের জন্য অন্যের পায়ে পড়বেন না কারণ আজকে আপনাকে যারা জীবনের অপরিহার্য মনে করছে কালকে আপনাকে ছেড়ে যেতে দুবার ভাববে না|

আসলে আমরা নিজেদের সামর্থ্য হলে মানুষের পিছে দৌড়াই তাই মানুষ আমাদের ছেড়ে চলে যায়,আপনি যদি একা থাকেন তবে একাই থাকেন হয়তো অনেকে আপনাকে বোকা মনে করবে কিন্তু একা থাকাটাই অনেক বেশি ভালো কাউকে পরোয়া করবেন না| খুঁজলে তোর সফলতা পাওয়া যায় তাই সৃষ্টিকর্তার প্রতি আস্থা রাখুন,কারো সাথে খারাপ ব্যবহার করার আগে এটুকু ভাবুন আপনার সঙ্গে যদি এরূপ ব্যবহার হয় তাহলে আপনি সহ্য করতে পারবেন তো|

জীবনে একটা কথা ভালোভাবে মনে রাখবেন যারা আপনার কথা ভাবেনা আপনার কথা মনে করে না তাদের পিছে শুধু শুধু দৌড়াবেন না,ছোটবেলা সাইকেল চালিয়ে যে আনন্দ হতো বড় হয়ে বিলাসবহুল গাড়ি চালিয়ে সে আনন্দ হয় না|আমাদের নিজের লড়াই আমাদের নিজেকে লড়তে হবে কারন একটা কথা মাথায় রাখবেন জ্ঞান দেওয়ার জন্য অনেকেই আছে কিন্তু পাশে থাকার মতো কেউ নেই|যে সকল মানুষ সময় বুঝে আপনার কত করে তারা কখনই আপনার আপন মানুষ হতে পারে না,কেননা সময় বুঝে শুধু উদ্দেশ্য সাধন করা যায় কোনো সম্পর্ক তৈরি করা যায় না|

Place your ad code here

কখনো আসা ছাড়বেন না কে বলতে পারে আগামীকাল হয়তো বা আজকের চেয়ে অনেক ভালো হবে|আপনার মন সবসময় পরিষ্কার রাখুন কেননা কাজের হিসাব হবে উপার্জনের হিসাব হবেনা আপনার কাজের হিসাবে আপনার কাজের ধরন আপনার কাজের মান আপনাকে মানুষের সামনে শ্রেষ্ঠ প্রমাণ করবে|ভালোবাসা এমন একটা অনুভূতি যা মৃত মানুষকে ছুঁলে জীবিত হয়ে যায় আবার কেউ কেউ বেঁচে থেকেও মৃত হয়,আপনি তখনই সফল হবেন যখন আপনি নিজেকে বদলাতে পারবেন একটা কথা মনে রাখবেন পুরো পৃথিবী কে বদলানোর মতো ক্ষমতা আপনার নেই তাই আপনি আপনাকে বদলে ফেলুন আপনাকে গড়ে তুলুন এমনভাবে যাতে আপনার ভিত মজবুত হয়|

যে ব্যক্তি জেনেও কিছু বলে না তাকে বোঝা এত সহজ নয় তাই নিজেকে আগে বুঝুন নিজের সঙ্গে নিজে বন্ধুত্ব করুন তাহলে আপনি প্রকৃত সম্পর্কের অর্থ বুঝতে পারবেন|পরিবর্তনকে কখনো ভয় পাবেন না আজকে আপনি যা হারাচ্ছেন একদিন এমনও হতে পারে এর চেয়ে অনেক বেশী আপনি পাবেন তাই পরিবর্তনকে মেনে নিন আপনার জীবনকে পরিবর্তনের সাথে পরিবর্তন করে ফেলুন কারণ যে সময়ের সাথে পরিবর্তন হতে পারে না সে জীবনের উন্নতি করতে পারে না,মানুষের সঙ্গে সব সময় ভালো ব্যবহার করুন যদি কখনো মানুষ আপনার সরলতাকে দুর্বলতা মনে করে তাহলে এটি তাদের সমস্যা আপনার কোন সমস্যা নয় আপনি আপনার জায়গায় স্থির থাকুন মানুষকে ভালবাসুন কখনো মানুষের ক্ষতি করবেন না সৃষ্টিকর্তার আপনার ক্ষতি হতে দেবে না|আপনি যেমন সাদা মানুষ এমনই থাকুন নিজের রং পাল্টাবে না|

সব সময় একলা চলা শিখে নিন কারণ আজকে আপনার সঙ্গে যে আছে কালকে সে নাও থাকতে পারে,কেউ একা এর মানে এই নয় যে তাকে কেউ পছন্দ করে না বরং তার পৃথিবীর সমস্ত রহস্য তা জানা হয়ে গেছে|একটা কথা মনে রাখবেন যে ব্যাক্তি আপনার সামনে আপনার ভুল বা দোষের কথা বলতে পারে তার মতো ভালো বন্ধু এই পৃথিবীতে আপনি একটি ও পাবেন না|জীবনে চলতে কিছু মানুষ পাবেন যাদের খারাপ সময়ে আপনি তাদের পাশে থাকবেন কিন্তু আপনার খারাপ সময়ে তারা আপনাকে একা করে চলে যাবে,আসাভালোবাসা অল্প বয়সে হয়ে যায় আর তারপর মানুষ সমজ দার হয়ে যায়|

যারা আপনার সাথে কথা বলার জন্য আপনার সময় দাবি করে না শুধু আপনার জন্য অপেক্ষা করে তাদের জন্য কিছু সময় বের করুন,তাদের থেকে সাবধান থাকুন যাদের ভিতরে কি না থাকা সত্ত্বেও স্বাথের জন্য সম্পর্ক করে এবং একসময় একা করে দূরে চলে যায়|অনেক মানুষ নিজের সীমার মধ্যে থাকতে পছন্দ করে কিন্তু অন্যরা একে অহংকার মনে করে,আপনি ভেবে দেখুন না যে মানুষটাকে এক সময় আপনি আপনার জীবনের চেয়ে বড় মনে করেছিলেন সেই আজ কোথায়|
সবসময় নিজেকে ও নিজের জীবনকে বেশি ভালোবাসুন কারন আপনার জীবন আপনার এর সফলতা ও সুখ আপনি ভোগ করবেন ঠিক তেমনই দুঃখ বেদনা যন্ত্রণা আপনাকে সইতে হবে|
আশা করি আমার এই লেখাটির মূল বক্তব্য বুঝতে পেরেছেন এবং এখান থেকে উপকৃত হবেন, অনেক ধন্যবাদ এতক্ষণ আমার সঙ্গে থাকার জন্য সব সময় মোটিভেটেড থাকুন সব সময় পজিটিভ থাকুন|

Continue Reading






গ্রাথোর ফোরাম পোস্ট