Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

টিপস এন্ড ট্রিকস

ওয়েবসাইটে ভিজিটর ধরে রাখার জনপ্রিয় কিছু উপায়!

MD LOKMAN HOSSAIEN

Published

on

 

ওয়েবসাইটের বাউন্স রেট বৃদ্ধি পাচ্ছে ভিজিটর থাকে না।কিভাবে বাউন্স রেট কমাতে পাড়ি? এই ধরনের প্রশ্ন ওয়েবসাইটের মালিক বেশি করে থাকে। এই প্লাটফর্মে আপনি আপনার ওয়েবসাইট এ ভিজিটর ধরে রাখার গুরুত্বপূর্ণ উপায়গুলো জানতে পারবেন।এখানে কিছু জনপ্রিয় উপায় তুলে ধরা হয়েছে। আশা করি আপনি অনেক কিছু বুঝতে পারবেন।

ইউনিক এবং তথ্য বহুল কন্টেন্ট পোষ্ট করুন

বলা হয়ে থাকে “Content Is King”। তার কারণ হচ্ছে সাইটের জন্য কন্টেন্ট সব সময়ই গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে থাকে।তাই আপনার ওয়েবসাইটে কন্টেন্ট পাবলিশ করার পূর্বে অবশ্যই ইউনিক এবং ইনফরমেটিভ কনটেন্ট লিখে তারপর পাবলিশ করা উচিৎ।এতে করে ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট বেশি সময় ধরে এংগেজ থাকবে।

Place your ad code here

আকর্ষনীয় ছবি আপলোড করতে হবে

একটি ওয়েবসাইটের ১ম ছবি বা ইমেজ ভিজিটর বাড়াতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে থাকে।প্রায় ৩০% ভিজিটর ইমেজ সার্চ করে ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করে।আর তা ছাড়াও কোন কোন ভিজিটর শুধু মাএ ছবি এবং লিংকে শিরোনাম দেখেই সাইটে প্রবেশ করে।

ওয়েসবাইট দ্রুত লোডিং স্পীড

একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, একজন ভিজিটর যে কোন একটি ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য সাধারণত ৩সেকেন্ড সময় নেয়। অর্থাৎ যদি ৩ সেকেন্ডের মধ্যে ঐ সাইট লোড না হয়ে থাকে তবে ভিজিটর বিরক্ত হয় এবং সাইট ভিজিট করেন না। ফলে ওয়েবসাইটের ব্রাউনস রেট বৃদ্ধি পায়।তাই সহজেই বোঝা যাচ্ছে ভিজিটর বাড়ানো জন্য ওয়েবসাইট স্পিড গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে থাকে। 

রেসপন্সিভ বা ইউজার ফ্রেন্ডলি ডিজাইন করা

আপনার ওয়েবসাইটটি অবশ্যই অবশ্যই যেন
পিসি,ল্যাপটপ,ফোন,ট্যাবলেট ইত্যাদিতে ভালো দেখায়। তা না হলে ভিজিটর বৃদ্ধি পাবে না। আপনি হয় খেয়াল করেছেন কিছু কিছু সাইট আছে যেগুলোর কনটেন্ট ভেংগে ভেংগে আসে।তাই আপনার ওয়েবসাইট তৈরির পূর্বে খেয়াল করতে হবে সাইট টি রেসপন্সিভ হয়েছে কিনা।

কমেন্টের দ্রুত উত্তর দেওয়া উচিৎ

আপনি যদি কমেন্ট সেকশনে এংগেজ থাকেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটরের সংখ্যা কয়েকগুন বেড়ে যাবে।কারণ ভিজিটররা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন করে থাকে। এই প্রশ্নগুলো যখন ওয়েবসাইটের কতৃপক্ষের কাছে যায় তখন তিনি উত্তর দেওয়ার ফলে ভিজিটর মেইল চেক করে থাকেন। আর যখনই ভিজিটর তার জিমেইল চেক করেন তখনই আবার আপনার ওয়েবসাইট টি আরেকবার ভিজিট করে।

ভিজিটর ডাটা এনালাইসিস করুন

অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর ডাটা এনালাইসিস করা উচিৎ। তার কারন হচ্ছে ভিজিটর কত তারিখে, কোন সময়ে, কোন দেশ থেকে, কত বয়সে,কোন কোন ডিভাইস দিয়ে, কতটুকু সময় ধরে ওয়েবসাইট এ থাকে ইত্যাদি খুব সহজেই বোঝা যায়। আপনি সেই অনুযায়ী ডাটা এনালাইসিস করে পরবর্তী পোষ্ট গুলো ইমপ্লিমেন্ট করলে ভিজিটর সংখ্যা অবশ্যই বাড়বে। এর জন্য আপনি চাইলে গুগল এ্যানালাইটিকস ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে একটিভ থাকা

আপনার ওয়েবসাইট এ ভিজিটর ধরে রাখতে
আরেকটি গুরুত্বপূর্ন কাজ হলো বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে একটভি থাকা।কারণ এর ফলে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর আসার চান্স বেড়ে যায়।

ওয়েব পেজ লিংক বৃদ্ধি করতে হবে

আপনার কনটেন্টের যে কোনো পোষ্টের হাইপার লিংক/ইন্টারর্নাল লিংক একটি খুবই গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে থাকে।মনে করুন আপনি একটা আর্টিকেল লিখছেন ইংল্যান্ডের জনপ্রিয় কিছু খাবারগুলো নিয়ে। কিন্তু আপনি এর আগেই ইংল্যান্ডের স্ট্রিট ফুড নিয়ে একটি আর্টিকেল লিখেছেন। আপনি চাইলে আপনি আপনার মেইন আর্টিকেল এর সাথে স্ট্রিট ফুড এর টাইটেলটি ট্যাগ করে দিতে পারেন। ফলে মেইন কন্টেন্ট এর জন্য আপনি তো ভিজিটর পাচ্ছেনই আবারও এর পাশাপাশি ইন্টার্নাল লিংক করা পেজটি ভিজিট করার একটা চান্স থাকবে।

আশাকরি এই আর্টকেল টি পড়ে কিভাবে ওয়েবসাইটের এ ভিজিটর ধরে রাখা যায় সে ব্যাপার গুরুত্বপূর্ন কিছু ধারনা পেয়ছেন। কয়কেদিন পর আমি আবারও নতুন কোনো আর্টকেল নিয়ে হাজির হবো।সেটি পড়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়ে বিদায় নিচ্ছি ভালো থাকুন আল্লাহ হাফেজ। আমার এই লেখা আর্টিকেলটি আপনার ভালো লাগলে অবশ্যই সবার সাথে শেয়ার করুন।ধন্যবাদ

Advertisement
7 Comments
Subscribe
Notify of
7 Comments
Oldest
Newest
Inline Feedbacks
View all comments
Mojammal Haque

Good

Shanta Akter

নাইস পোস্ট

Md Golam Mostàfa

So good!

Maria Hasin Mim

Thank you

Anisur Rahman

well

Marzia Rahman

ভালো তথ্য হয়েছে। ধন্যবাদ

Azfar Mustafiz

thanks

টিপস এন্ড ট্রিকস

আনলিমিটেড ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করুন একদম বিনামূল্যে।(শেষ পর্ব)

Arman Hossan

Published

on

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও ভাল আছি।আজ আনলিমিটেড ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করুন একদম বিনামূল্যে এর শেষ পর্ব।গত পর্বে আমরা জেনেছি কিভাবে ড্রয়েড ভিপি এন এ একটি একাউন্ট নিবন্ধন করাতে হয়।

 

এইবার আসুন কিভাবে অ্যাপটি চালু করবেন সেটা নিয়ে কথা বলি।অ্যাপটি ওপেন করে বাম কোনায় টোগল বাটনে ক্লিক করে একাউন্ট এ প্রবেশ করতে হবে। সেখানে আপনার ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে সেভ অপশনে ক্লিক করুন।তারপর সেটিং অপশনে ক্লিক করুন।সেখান থেকে TCP এবং HTTP তে ক্লিক করুন।তারপর Remote Tcp port এ ৪৪২ সিলেক্ট করুন।

Place your ad code here

এখন local tcp port থেকে 0 সিলেক্ট করুন। তারপর আসুন HTTP HEADER অপশনে। সেখানে জেনারেট অপশনে ক্লিক করুন। তারপর পোস্ট অপশন এ গিয়ে সেখানে টাইপ করুন_

১. জিপি সিম হলে,
http://www.gpeasynet.com/
২.রবি সিম হলে কিংবা এয়ারটেল সিম হলে কিংবা আধার অপারেটর হলে,
http://www.m.facebook.com/

ফ্রন্ট কোয়েরি, অনলাইন হোস্ট, ফরওয়ার্ড হোস্ট,কিপ এলাইভ, user-agent ইত্যাদি অপশনে টিক মার্ক দিয়ে সেভ অপশন এ ক্লিক করুন।

এবার আসুন UDP setting এ, এখান থেকে রিমোট ইউডিপি পোর্ট 4356 সিলেক্ট করুন। লোকাল ইউডিপি পোর্ট থেকে 0 সিলেক্ট করুন।
চৌস ইউডিপি মোড় থেকে মোড ওয়ান সিলেক্ট করুন। টিক কাউন্ট থেকে 4444 সিলেক্ট করুন এবং আরকাউন্ট থেকে 3সিলেক্ট করুন। এইবার আইসিএমপি সেটিং থেকে স্ট্যাটিক seq number সিলেক্ট করুন।

এতটুকু সেটিং করার পর আমাদের ভিপিএন ফ্রি ইন্টারনেট এর জন্য রেডি। এখন স্টার্ট অপশনে ক্লিক করলে ভিপিএন কানেক্ট হয়ে যাবে এবং আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে।

সতর্কতাঃ এটি একটি ভিপিএন সফটওয়্যার এটি প্রক্সির জন্য ব্যবহার করা হয়। এখান থেকে বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহার করা গেলেও ইন্টারনেটে কোনো কিছু আপলোড করতে পারবেন না কারণ এতে করে আপনি কপিরাইটের ফেঁসে যাবেন এটি ব্যবহার করে শুধুমাত্র ইন্টারনেট ব্রাউজ ইউটিউব ডাউনলোড ইমু হোয়াটসঅ্যাপ ফেসবুক গুগল ইত্যাদি সবকিছুই ব্যবহার করতে পারবেন।

আজ এ পর্যন্তই।দেখা হচ্ছে পরের পর্বে। পোস্টটি ভাল লাগলে এবং এ থেকে আপনারা উপকৃত হলে শেয়ার করবেন এবং অন্যকে ব্যবহার করার জন্য সুযোগ করে দেবেন। ততক্ষণ সকলেই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আসসালামু আলাইকুম।

Continue Reading

টিপস এন্ড ট্রিকস

আনলিমিটেড ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করুন একদম বিনামূল্যে। (অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট (পর্ব-১)

Arman Hossan

Published

on

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও ভাল আছি।আজ আমি আপনাদের কাছে একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কথা বলব।

আসলে বর্তমানে আমরা যারা স্মার্টফোন ব্যাবহার করি,তারা সকলেই মোটামুটি ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকি।কেউ ওয়াই-ফাই ব্যাবহার করে আর কেউ ডাটা ব্যাবহার করে ইন্টারনেট ব্রাউজ করি।আর এগুলোর জন্য অবশ্যই কম বেশি অর্থের প্রয়োজন হয়।কিন্তু আজ আমি আপনাদের কাছে এমন একটি নতুন কৌশল এর কথা বলব যার মাধ্যমে আপনারা বিনামূল্যে আনলিমিটেড মেগাবাইট ব্যাবহার করতে পারবেন।তো আর দেরি না করে চলুন চলে যাই সেই কৌশলে।

বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে হলে আপনার একটি অ্যাপ ইনস্টল করতে হবে।এপসটির নাম হচ্ছে ড্রয়েড ভিপি-এন।আপনারা প্লে স্টোর থেকে এটি ইনস্টল করতে পারবেন।এর জন্য আপনাকে প্লে স্টোর এ গিয়ে ড্রয়েড ভিপি-এন লিখে সার্চ করতে হবে।মাত্র চার মেগাবাইট এই অ্যাপ।সেখানে থেকে এটি ইনস্টল করে নিবেন।

Place your ad code here

এবার আসুন এটির ব্যাবহার নিয়ে কথা বলি। ড্রয়েড ভিপি-এন ব্যাবহার করতে হলে আপনার একটি একাউন্ট করতে হবে।

একাউন্ট নিবন্ধনের জন্য অ্যাপটিতে প্রবেশ করতে হবে।তারপর বাম কোনায় টোগল বাটনে ক্লিক করে অ্যাকাউন্ট অপশনে প্রবেশ করতে হবে।সেখানে সাইন আাপ ফর ফ্রী তে ক্লিক করতে হবে। তারপর সেখানে আপনার সব প্রয়োজনীয় তথ্য যেমন,আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস,ফাষ্ট নেম, লাষ্ট নেম,পাসওয়ার্ড, কনফার্ম পাসওয়ার্ড ইত্যাদি দিয়ে সাইন আপ এ ক্লিক করতে হবে। তাহলেই আপনার অ্যাকাউন্টটি ক্রিয়েট হয়ে যাবে।

একাউন্ট অ্যাক্টিভেট এর জন্য আপনার ইমেইল এ একটি অ্যাক্টিভিশন লিঙ্ক আসবে।সেখানে ক্লিক করলে আপনার একাউন্টটি অ্যাকটিভেট হয়ে যাবে

এখন আমারা জানব কীভাবে এটি ব্যবহার করে বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহার যায়।বলে রাখা ভাল একটি একাউন্ট থেকে ২০০MB করে পওয়া যায়।প্রথম একাউন্ট একটিভেট করলে ৩০০ MB পাওয়া যাবে। পরবর্তীতে ২০০ MB করে পাবেন।

এখন আপনাদের মনে নিশ্চয়ই প্রশ্ন জাগছে যে আনলিমিটেড ফ্রি ইন্টারনেট কিভাবে ব্যবহার করবেন।তাই নয় কি????

তো চলুন বলি কিভাবে আনলিমিটেড ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন। এখানে একটি একাউন্ট এ ২০০ MB পাওয়া যায়। আপনার এইরকম যতটি একাউন্ট থাকবে ততবার ২০০ MB করে ব্যবহার করতে পারবেন।পাঁচটি একাউন্ট থাকলে ১০০০ MB পাবেন।এইভাবে ১০টি একাউন্ট থাকলে ২০০০ MB পাবেন।এইভাবে আনলিমিটেড ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন।

 

আজ এ পর্যন্তই।দেখা হচ্ছে পরের পর্বে। ততক্ষণ সকলেই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আসসালামু আলাইকুম।

Continue Reading

টিপস এন্ড ট্রিকস

কিভাবে নিজের ইউটিউব চ্যানেলের ক্ষতি নিজেরাই করি

Pingky Akther

Published

on

আস্সালামু আলাইকুম কেমন আছেন বন্ধুরা? বন্ধুরা আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করবো কিভাবে আমরা নিজের ইউটিউব চ্যানেলের ক্ষতি নিজেরাই করি।

বন্ধুরা আমরা মনিটাইজেশন পাওয়ার জন্য অনেক সময় নিজেদের ফোনে একাধিক আইডি ব্যবহার করি কিন্তু আমরা নিজেরাই জানি না এটা আমাদের চ্যানেলের জন্য কতটা ক্ষতিকর। ইউটিউব প্রাইভেসি চেক করে দেখুন। ইংরেজিতে এই কথাটা পাবেন (Video will be labelled as low quality playbascks) ভিডিও কে লো কোয়ালিটি আওতায় রাখা।

যখন আমরা ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইব,ওয়াচ বাড়ানোর জন্য একাধিক আইডি ব্যবহার করি সেটা ইউটিউব বুঝতে পারে যখন আমরা এই ইমেল টি দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল খুলি তখন ইউটিউব আমাদের আইপি এড্রেস টা সেভ করি। রাখে এবং একি ডিভাইস এ অন্য ইমেইল দিয়ে লগিন করে ভিডিও ওয়াচ করলে ইউটিউব বুঝে যাই।

Place your ad code here

যদি অন্য ফোন থেকে বা কম্পিউটার থেকে আমরা একই কাজ করি তাও ইউটিউব বুঝতে পারে যদি চ্যানেলের ইমেইল আইডি টা কখনো ঐ টা তে লগিন করা হয় তখন ইউটিউব আমাদের সম্পর্কে খারাপ ধারণা করে আর ভিডিও টা লো কোয়ালিটি করে দেয়।ভিডিও লো কোয়ালিটি হলে কি হবে দেখুন ইউটিউব পলিসি তে বলা হয়েছে। (freezing channel metrics,discarding channel) ভিডিওর ভিউ থামিয়ে দেওয়া,চ্যানেল বাতিল করে দেওয়া।

ইউটিউব বলছে যাদের ভিডিও লো কোয়ালিটি এর অন্তর্ভুক্ত হবে তাদের ভিডিওর ভিউ থেমে যাবে মানে আমাদের ভিডিও তে ভিউস আসবে মানুষ দেখলে ও ভিউস টা বাড়বে না থেমে যাবে আর না হলে চ্যানেল টা বাতিল করে দিবে তবে বাতিল খুব কমই করা হয়। তবে যদি আমাদের চ্যানেলে ভিউস না বাড়ে তাহলে তো বাতিল করা না করা একি। এরপর আমরা যত ভিডিও আপলোড করবো সব ভিডিও তে কিন্তু একি হবে। তাছাড়া ইউটিউব আমাদের ভিডিও কে আর প্রমোট ও করবে না।

আর আমরা সবাই জানি ইউটিউব যদি আমাদের ভিডিও প্রমোট না করে আমাদের ভিডিও রেংক ও করবেনা ভিউস ও আসবেনা। শুধুমাত্র আমরা যদি ফেসবুকে শেয়ার করি তবেই ভিউস আসবে কিন্তু কাউন্ট হবেনা। তাই বন্ধুরা এই ভুল টা আর করবেন না নিজের ভিডিও নিজে আর দেখবেন না।

যদি ইতোমধ্যে আপনি এই কাজ করে থাকেন তবে ঐ চ্যানেল নিয়ে আর কষ্ট করে কোনো লাভ নেই আপনি বরং ঐ চ্যানেল বন্ধ করে নতুন চ্যানেল খুলে ভিডিও আপলোড করুন এবং অবশ্যই ইউটিউব পলিসি পড়ে নিয়ম মেনে ভিডিও আপলোড করবেন।আর বেশি কিছু বলবোনা। সুস্থ থাকবেন, ভালো থাকবেন

Continue Reading






গ্রাথোর ফোরাম পোস্ট