★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে ভূমিকা রাখতে পারেন এবং পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন★এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন★

কাঁচা ছোলার সাতকাহন,, হয়ে উঠুন বডিবিল্ডার্স!

আমরা অনেকেই স্বাস্থ্য সচেতন। কেউবা খুব বেশি সচেতন কেউবা একটু একটু সচেতন। তবে স্বাস্থ্য সচেতন হওয়া টা সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ।বর্তমান পৃথিবীতে কাজের চাপেও এবং দৈনন্দিন ব্যস্ততায় আমরা আমাদের স্বাস্থ্যের প্রতি খুব বেশি সচেতন হতে পারছি না। কিছুটা সময় এর অভাবে। আবার কিছুটা নিজের গাফিলতিতে। তবে আমাদের শারীরিক সক্ষমতা ও পুষ্টি গুণ বৃদ্ধি করতে আমাদেরকে অনেক কিছু জানতে হবে। আমরা স্বাস্থ্যবান হতে চাই যেই মনে করিনি এটা খুব কঠিন কাজ। আসলে সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হওয়াটা খুব কঠিন না। একটু সচেতন হলেই আমাদের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে পারি। এর জন্য প্রয়োজন শুধুমাত্র অভ্যাস। সেরকম একটি স্বাস্থ্যসম্মত খাদ্য হচ্ছে কাঁচা ছোলা। আমরা এটিকে ছোলা হিসেবে চিনে। তবে এর রয়েছে নানান গুণ।

জেনে নেওয়া যাক কাঁচা ছোলার সাতকাহন:

কাঁচা ছোলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন, ফাইবার, ও প্রোটিন। এটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য যেমন উপকারী ঠিক তেমনি ভিটামিন ও বিভিন্ন রকম পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ। নিয়মিত কাঁচা ছোলা সেবনে আপনি নানাবিধ উপকার পাবেন। তাছাড়া কাঁচা ছোলা খেতে খুব সুস্বাদু। অনেকে  রান্না করে কিংবা ভেজে খেয়ে থাকেন। তবে এর সবচাইতে বেশি উপকার পাওয়া যায় এটি কাঁচা খেতে পারলে। প্রতিদিন সকালবেলা এক প্লেট কাঁচা ছোলা হতে পারে আপনার সকালের নাস্তা।

কি কি উপকার পাবেন:

নিয়মিত কাঁচা ছোলা খেলে অনেক সমস্যা থেকে আপনি মুক্তিলাভ করবেন। এর উপকার এবং গুণাবলী এক কথায় অসাধারণ। আসুন জেনে নেওয়া যাক কি কি উপকার পাওয়া যায় কাঁচা ছোলা সেবন করলে।


  • এটি কোলস্টেরল ও রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণ করে।
  • শরীরের চর্বি দূর করে।
  • এতে থাকা প্রচুর পরিমাণে ফাইবার আপনার দেহকে সুষম ও বেশি শক্তিশালী করে দেয়।
  • ওজন নিয়ন্ত্রণে এর ব্যবহার সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়।
  • প্রোটিন এর সবচেয়ে বড় উৎস এই কাঁচা ছোলা তে পাওয়া যায়।
  • নিয়মিত কাঁচা ছোলা সেবনে আপনার বডি স্ট্যান্ড বেড়ে যাবে।
  • সকালবেলা অনেকের প্রস্রাব পায়খানার সমস্যা থাকে। কাঁচা ছোলা সেবনে আপনি, আপনার পাকস্থলীর পাচন প্রক্রিয়া সহজ ও সরল ভাবে নিঃসরিত হয়। যা সুস্থ থাকার একটি প্রধান নিয়ামক।
  • কাঁচা ছোলা সেবনে, আপনার শক্তি কয়েকগুণ বেড়ে যাবে।
  • যৌবন এবং তারুণ্য দুটোই কাঁচা ছোলার ভিতর পাওয়া যায়।
  •  শরীরের লাবণ্য ধরে রাখতে কাঁচা ছোলার গুনাগুন অপরিসীম।
  • যারা নিজেকে বডিবিল্ডার হিসেবে দেখতে চান, তারা প্রতিদিন কাঁচা ছোলা সেবন করুন।
  • যাদের ডায়াবেটিকস কিংবা উচ্চ রক্তচাপ আছে তারা নিয়মিত কাঁচা ছোলা খেতে পারেন। জেনে রাখবেন এটি উচ্চ চাপ নিয়ন্ত্রণে 100% সফল। আমেরিকান সাইন্স দ্বারা স্বীকৃত।
  • স্লিম হতে চান, নিয়মিত সেবন করুন। কিছুদিনের মধ্যেই খুব ভাল ফলাফল পাবেন।

এছাড়াও এটি রয়েছে আরও নানাবিধ গুণ। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন গুণাবলী আবিষ্কৃত হচ্ছে।

এবার জেনে নেওয়া যাক, কিভাবে খাবেন:

কাঁচা ছোলা দুইভাবে কি খাওয়া যায়,


  1. কাঁচা ছোলা ভিজিয়ে রাখুন। তারপর সকাল বেলা সেটুকু খাওয়া-যায়।
  2. ছোলা রান্না করে কিংবা ভেজে।

সাধারণত এভাবেই ছোলা খাওয়া যায়। আপনি চাইলে অন্য কোনো উপায়ও এটিকে খেতে পারেন। তবে খাবার পদ্ধতি দুটি বেশ জনপ্রিয়।

নোটিশ: ছোলা অবশ্যই খোসাসহ খাবেন। ওকে খুব ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। তবে আপনি খোসা ছাড়িয়ে ও খেতে পারেন। তবে সে ক্ষেত্রে গুণাগুণের মাত্রা তা অনেকাংশে কম। সুতরাং খোসাসহ খাওয়াটাই সবচেয়ে উত্তম।

সকালবেলা ছোলা খাওয়ার সবচেয়ে উত্তম সময়। এটি দিয়ে সকালের নাস্তা সেরে নিন। কারণ সকাল বেলা খাওয়ার, নিয়ম টা ই এখন পর্যন্ত জনপ্রিয়।

খাওয়া ছাড়াও অন্য ব্যবহার:

এটি শুধুমাত্র দেহের ভিতরের কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় না, বাহ্যিকভাবে  রয়েছে, এর অনন্য গুনাগুন।

  • কাঁচা ছোলা পেস্ট করে, মুখে লাগিয়ে নিন, ফেস মাক্স এর মত উপকার পাবেন।
  • যাদের ব্রণ আছে, তারা নিয়মিত খান।
  • চোখের নিচে কিংবা ঠোটের নিচের কালো দাগ দূর করুন। অবশ্যই ভালোভাবে পেস্ট করে নিবেন।
  • যাদের চামড়া ঢিলা হয়ে গেছে, নিয়মিত ব্যবহারে আপনার হারানো তারুণ্য আবার ফিরে পাবেন।

এছাড়াও এর রয়েছে আরও নানান ব্যবহার। তবে যতটুকু এখন পর্যন্ত রিচার্জের মাধ্যমে পাওয়া গেছে, ঠিক ততটুকুই এখানে বলা আছে। তবে এর গুনাগুন আছে এটি প্রমাণিত। তাই আপনি চাইলে আজ থেকে শুরু করতে পারেন। এটি স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো।

আমরা জানতে পারলাম কাঁচা ছোলা সাতকাহন ও এর গুনাগুন। বডি বিল্ডিং করতে পারেন, শুধুমাত্র সহজ এই পদ্ধতিটির মাধ্যমে। এটি সত্যিই দারুণ।

8 Comments

মন্তব্য করুন