টিকটিকি দূর করার ঘরোয়া উপায়

আপনি কি টিকটিকি দূর করার উপায় খুঁজছেন? কিভাবে ঘরোয়া উপায়ে টিকটিকি তাড়ানো যায় ভাবছেন? আজকে এই ব্লগে সহজ কিছু উপায় বলবো যেটা অবলম্বন করলে আশা করি আপনি টিকটিকির উপদ্রব থেকে রক্ষা পাবেন।

আমাদের প্রায় সবারই বাসা বাড়িতে কম বেশি টিকটিকির উপদ্রব দেখা যায়। যদিও আমাদের বাসা বাড়িতে যেসব টিকটিকি থাকে সেগুলো বিষাক্ত নয়, তবুও অনেকে টিকটিকি একেবারে পছন্দ করে না আবার অনেকে ভয় পায়।

টিকটিকি কি বিষাক্ত?

আমাদের বাসা বাড়িতে যেসব‌ টিকটিকি পাওয়া যায় তারা বিষাক্ত এবং ক্ষতিকারক নয়। কিন্তু এরা জীবাণু বহন করে। তাই, টিকটিকি খাবারে পড়লে সেই খাবার গ্ৰহণের মাধ্যমে অসুস্থ হবার সম্ভাবনা রয়েছে।

যদি আপনার ঘরে ১/২ টা টিকটিকি থাকে তাহলে এটা কোনো চিন্তার বিষয় নয়, কিন্তু অনেকগুলো টিকটিকির উপদ্রব হলে তখন সেটি চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।

ঘরে টিকটিকি উপদ্রব বেশি হলে সহজে তার থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায় না। তাই, টিকটিকির উপদ্রব কমাতে হলে আগে জানতে হবে টিকটিকির উপদ্রব কেন হয়?

ঘরে টিকটিকি আসার কারণ

১) পোকামাকড়:

আপনার ঘরে যদি মাকড়সা, শুঁয়োপোকা এবং পোকামাকড় থাকে তাহলে এটিই আপনার ঘরে টিকটিকি আসার কারণ। টিকটিকি মাকড়সা, শুঁয়োপোকা এবং পোকামাকড় খেয়ে থাকে। টিকটিকির আকারের ওপর এর খাদ্য গ্রহণ নির্ভর করে। তাই, ঘরকে টিকটিকি মুক্ত করতে হলে অবশ্যই আগে ঘরকে পোকামাকড় মুক্ত‌ করতে হবে।

<

২) পানি:

অন্য সকল প্রাণীর মতো টিকটিকির ও পানির প্রয়োজন হয়। বাড়ির কোথাও পানি জমা থাকলে টিকটিকির উপদ্রব হয়। তাই, ঘরকে যথাসম্ভব শুকনো রাখতে হবে।

আপনার ঘরে যদি টিকটিকির খাদ্য, পানি থাকে তাহলে আপনার ঘর টিকটিকি বসবাসের জন্য উপযুক্ত।
কিছু উপায় অবলম্বনের মাধ্যমে আপনি টিকটিকির উপদ্রব থেকে রেহাই পেতে পারেন।

টিকটিকি দূর করার উপায়:

১) ডেটল:

ঘর পরিষ্কার করার সময় পানিতে অল্প পরিমাণে ডেটল মিশিয়ে ঘর পরিষ্কার করতে পারেন। অথবা একটি ডেটল সাবান কয়েকটি ছোট টুকরো করে ঘরের কোণায় যেখানে টিকটিকির উপদ্রব বেশি সেখানে রাখে দিতে পারেন।

২) ন্যাপথলিন:

টিকটিকি তাড়ানোর জন্য ন্যাপথলিন হতে পারে একটি ভালো উপায়। ন্যাপথলিন গুঁড়ো করে ঘরের বিভিন্ন কোণায় রেখে দিতে পারেন। এতে করে টিকটিকিসহ আপনার ঘরের পোকামাকড় এর উপদ্রব কমবে।

৩) স্প্রে:

একটি স্প্রে বোতলে পানি নিয়ে এতে অল্প পরিমাণে ডেটল এবং রসুন ও পেঁয়াজ বাটা থেকে নিংড়ানো রস দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন। এরপর এটি ঘরের দেয়ালে যেখানে টিকটিকি বেশি থাকে সেখানে স্প্রে করুন। ঠান্ডা পানি মিশাতে পারেন এতে আরও ভালো উপকার পাবেন।

৪) পেঁয়াজ ও রসুন :

টিকটিকি পেঁয়াজ ও রসুন এর গন্ধ সহ্য করতে পারে না। তাই, পেঁয়াজ ও রসুন ছোট ছোট টুকরো করে কেটে ঘরের বিভিন্ন জায়গায় রাখতে পারেন, এতে করে টিকটিকি দূর হবে।

৫) ঠান্ডা পানির স্প্রে:

লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন শীতকালে টিকটিকির উপদ্রব কম দেখা যায়। তাই, টিকটিকি দূর করার জন্য ঠান্ডা পানির স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন।

৬) তেজপাতা:

তেজপাতা পুড়িয়ে ঘরের বিভিন্ন কোণায়‌ এর গন্ধ ছড়াতে পারেন। এতে করে টিকটিকি ঘর থেকে পালাবে।

৭) ময়ূরের পালক:

ময়ূরের পালক ঘরকে সুন্দর করার পাশাপাশি টিকটিকি ও দূর করে।

৮) মরিচের গুঁড়া:

টিকটিকি মরিচ এর ঝাঁঝালো গন্ধ সহ্য করতে পারে না। তাই, শুকনো মরিচ এর গুঁড়ো পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করুন। এতে করে টিকটিকি পালাবে।

টিকটিকি কিছু কিছু গন্ধ সহ্য করতে পারে না। এগুলো ঘ্রাণ টিকটিকি তাড়াতে সহায়ক হবে।

টিকটিকি যেসব গন্ধ সহ্য করতে পারে না

১) পেঁয়াজ

২) মরিচের গুঁড়ো

৩) রসুন

৪) পুদিনা পাতা

এগুলোর ঘ্রাণ টিকটিকি সহ্য করতে পারে না। আপনি চাইলে এগুলো ব্যবহার করেও টিকটিকির উপদ্রব কমাতে পারেন।

টিকটিকি তাড়ানোর জন্য এই উপায়গুলো ব্যবহার করলে আশা করি ভালো ফলাফল পাবেন। তাছাড়া, টিকটিকির উপদ্রব কমাতে ঘরবাড়ি পরিষ্কার রাখতে হবে। ঘরবাড়ি অপরিষ্কার থাকলে টিকটিকির উপদ্রব হয়। জীবাণুনাশক দিয়ে ঘর পরিষ্কার করুন। এতে করে ভালো ফলাফল পাবেন।

Related Posts