দাতের ফাকা দূর করার উপায়, ফাঁকা দাঁত সমান করুন

আসসালামু আলাইকুম। প্রিয় পাঠক, আশা করি সবাই অনেক ভাল আছেন। আমিও আল্লাহ তায়ালার অশেষ রহমতে অনেক ভাল আছি। আজকের বিষয়ঃ দাতের ফাকা দূর করার উপায়, ফাঁকা দাঁত সমান করার উপায় । তো আর দেরি না করে চলুন শুরু করা যাক।


দুই দাঁতের মাঝখানে ফাঁকা কেন হয়?

আমরা আমাদের চারপাশে অনেক মানুষের দাতের মাঝখানে ফাঁকা দেখতে পাই। দাতের মাঝখানে ফাঁকা হওয়ার পিছনে কারণ থাকতে পারে। অনেকের কোনো কারণ ছাড়াই দাঁত ওঠার সময়ই দুই দাতের মাঝখানে ফাঁকা হয়ে থাকে। অনেকের আবার পরে ফাঁকার সৃষ্টি হয়।

দাতের মাঝখানে ফাঁকা হওয়ার কারণ হল

আমরা নরমালি যে খাবারগুলো খাই তা প্রায়ই দাঁতের ফাঁকে আটকে থাকে। এগুলো আস্তে আস্তে পচে এসিড এ পরিণত হয় এবং দাতের মাঝখানে ফাকের সৃষ্টি হয়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনাকে খাওয়ার পর ক্ষারজাতীয় টুথপেস্ট দিয়ে ব্রাশ করে ফেলতে হবে। কারণ আমরা জানি টুথপেস্টে ক্ষার থাকে এবং দাঁতে লেগে থাকা খাবারের এসিড বিক্রিয়া করে লবণ এবং পানি উৎপন্ন করবে, এতে এসিড দ্বারা দাঁত ফাঁকা হওয়া বন্ধ হবে। দাঁত আর ফাঁকা হবে না।

দাতের ফাকা দূর করার উপায়

দুই দাতের মাঝখানে ফাঁকা থাকলে দেখতেও সুন্দর দেখা যায় না এবং এ থেকে বিভিন্ন ধরনের দাঁতের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। দাতের ফাঁকা অংশ থেকে নানা ধরনের দাঁতের ক্যাভিটি সৃষ্টি হয়, এতে দাঁত ব্যথা হতে পারে এবং অনেকেরই ইনফেকশন দেখা দেয়। দাঁতের ফাঁকা অল্প থাকা অবস্থায় ব্যবস্থা না নিলে এটি ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পায়।

দাঁত ফাঁকা দূর করার জন্য আপনি খাবার পরেই ডেন্টাল ফ্লস ব্যবহার করতে পারেন। ডেন্টাল ফ্লাস হল প্লাস্টিকের তৈরি এক ধরনের সাদা সুতো। আপনি খাবার পর ডেন্টাল ফ্লস দিয়ে দাতে লেগে থাকা খাবার ভালো করে পরিষ্কার করে ফেললে দাতে আর খাদ্যকণা লেগে থাকবে না এবং সেখান থেকে দাতে আর ফাকের সৃষ্টি হবে না ।

দাতের ফাকা দূর করার উপায়

নিয়মিত দাঁত পরিষ্কার না করলে আস্তে আস্তে দাঁত ক্ষয় হয়ে যায় বাংলা নষ্ট হয়ে যায় এতে দুই দাতের মাঝখানে ফাঁকা সৃষ্টি হয় । তাই নিয়মিত দাঁতের যত্ন নেওয়ার অভ্যাস সৃষ্টি করতে হবে। লাইট কিউর ফিলিং পদ্ধতিতে দাতের ফাকা দূর করা যায়। এক্ষেত্রে তাতে কালার অনুযায়ী ফিলিং করে দাঁতগুলো কে একত্রে করা হয়।

অনেকেই দাতের ফাকা দূর করার জন্য পোরসেলিন ক্যাপও ব্যবহার করে থাকেন। একজন ডেন্টাল সার্জনের পরামর্শ নিয়ে পোরসেলিন ক্যাপ ব্যবহার করা যেতে পারে। ডাক্তারের পরামর্শমতো অর্থোডন্টিক পদ্ধতি অবলম্বন করে দাতের ফাকা দূর করা যায়।

এক্ষেত্রে ব্রেসেস নামক এক ধরনের বন্ধনী ব্যবহার করা হয় যার সাহায্যে ফাঁকা জায়গা কমিয়ে আনা যায়, তবে এটি একটি ব্যয়বহুল পদ্ধতি। ব্রেসেস নামক বন্ধনী এক থেকে দুই বছর পর্যন্ত ব্যবহার করার প্রয়োজন হতে পারে। এবং এতে 50 থেকে এক লাখ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে।

পোস্টটি কেমন লাগলো দয়া করে কমেন্টে জানাবেন, যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যয় শেয়ার করবেন, পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এমন সব দারুন দারুন পোস্ট পেতে Grathor এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Posts

8 Comments

মন্তব্য করুন