বন্ধু দিবসের স্ট্যাটাস | বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসার গল্প

বন্ধু দিবসের স্ট্যাটাস নিয়ে একটি ছোট্ট গল্প

ছেলে: কিরে কি করছিস?

মেয়ে: এইতো বসে আছি, আর তুই?

ছেলে: এই একজনের কথা ভাবছি?

মেয়ে: কার কথা ভাবছিস বল একটু।

ছেলে: ভাবতেছি একজনের কথা কিন্তু বলা যাবে না। আই এম সরি!

<

মেয়ে: আমি তোর এত ভালো বন্ধু হয়েও জানতে পারবো না, যে তুই কার কথা ভাবছিস?

ছেলে: নারে কিছু কিছু কথা বলা খুব কঠিন হয়।

মেয়ে: ও তাই? বল বল কোন মেয়ের কথা ভাবছিস কাউকে বলব না।

ছেলে: ভাবছি একটা মেয়ের কথা ঠিকই, কিন্তু তোকে হয়তো বলতে পারব না।

মেয়ে: ঠিক আছে তোর সাথে আর কথা বলবো না।

তারপর পাঁচ মিনিট পরে

ছেলে: কি রে রাগ কমলো?

মেয়ে: এসএমএস আসার 2 মিনিট পর উত্তর দিল, হ্যাঁ বল!

ছেলে: এখনো রাগ করে আছিস?

মেয়ে: না বল।

ছেলে: এত রাগ করে আছিস, তো আগে রাগ কমা তারপর বলব.. কার কথা ভাবছি।

মেয়ে: রাগ কমিয়েছি এবার তো বল।

ছেলে: জানিস অনেকদিন ধরে একটা মেয়েকে মন থেকে ভালোবেসে ফেলেছি, কিন্তু কি বলতো তাকে বলার ক্ষমতা আমার নেই, অনেকবার ভেবেছি বলব, কিন্তু সেই সাহস হয়ে উঠেনি।

মেয়ে: আজ জানলাম তুই এত ভীতু।

ছেলে: কখনো কখনো মন না চাইলেও ভীতু থাকতে হয়।

মেয়ে: তাহলে একটু নামটা বল যে সেই সৌভাগ্যবতী কে?

ছেলে: Sorry রে, এই কথাটা হয়তো বলতে পারব না।

মেয়ে: ঠিক আছে নাম বলতে হবে না, তার সম্পর্কে কিছু তো বল, যাতে আমি সেই সৌভাগ্যবতী কে চিনতে পারি।

ছেলে: ওকে বলছি তার সম্পর্কে- গোলাপি ঠোঁট তার উপর একটা ছোট্ট তিল, তানা তানা চোখ তার মধ্যে চাঁদের মত মনি, হাসলে যেন পৃথিবীর সব সুখ চলে আসে আমার মনে, এক কথায় রাজকন্যা।

মেয়ে: বাবা এইরকম রাজকন্যাকে পেলি কোথা থেকে এই পৃথিবীতে?

ছেলে: পেয়েছি অনেক কষ্টে, কিন্তু তাও আমি তাকে আমার মনের কথা বলতে পারছি না।

মেয়ে: একটু রেগে গিয়ে। আমি তো এই রাজকন্যা কে চিনতে পারলাম না, এখন তোকে ওর নাম বলতেই হবে।

ছেলে: আমি বারবার বলছি আমি এটা পারব না।

মেয়ে: দেখ তুই আমাকে তোর সব থেকে ভালো বন্ধু মনে করিস তো?

ছেলেঃ হ্যাঁ সেটা আবার বলতে হবে।

মেয়ে: ঠিক আছে, আমার দিব্যি ওর নাম বল।

ছেলে: ভালো ভালো.. তুই যেমন দিব্যি দিলি, আমি তোকে তেমন একটা দিব্যি দেবো রাখতে হবে কিন্তু।

মেয়ে: হ্যাঁ বল, রাখবো। প্রমিস!

ছেলে: ঠিক আছে, আমার দিব্যি আমাদের বন্ধুত্ব তা যেন কখনো নষ্ট না হয় যে কোন অবস্থায়।

মেয়ে: ওকে প্রমিস।

ছেলে: তোর মনে আছে আমাদের ক্লাস টেন এ বাংলাদেশের 5 জন মেয়ে পড়তো?

মেয়ে: হ্যাঁ মনে আছে,

ছেলে: ওই পাঁচজনের মধ্য থেকে একজনকে আমি ভালোবাসি।

মেয়ে: একটু পরিষ্কার করে বলতো কি নাম? আমি আবার সহ্য করতে পারতেছি না।

ছেলে: তুমি।

মেয়ে: এসএমএস করা বন্ধ করে দিল।

কিন্তু আবার 30 মিনিট পরে

মেয়ে: কিরে তুই এবার থেকে আমায় তুই বলে ডাকবে না তুমি বলবে।

ছেলে: খুব খুশী হয়ে-আই লাভ ইউ। আমি তোমাকে খুব খুব ভালোবাসি।

মেয়ে: আমিও।

[সমাপ্ত]

কি বন্ধুরা? কি বুঝলেন?

আসলে বন্ধুত্ব থেকে তৈরি ভালোবাসা গুলো একটু বেশি কিউট হয়।

ধন্যবাদ গল্পটি পড়ার জন্য। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই একটি শেয়ার দিবেন।

Related Posts

8 Comments

মন্তব্য করুন