বাদুরের মাংসের উপকারিতা, বাদুর সম্পর্কে অজানা তথ্য

আসসালামু প্রিয় পাঠকগণ! আশা করি সবাই আল্লাহ’র অশেষ রহমতে ভালো আছেন। আজকে আমি আপনাদের মাঝে হাজির হয়েছি নতুন আরেকটি পোস্ট নিয়ে (বাদুরের মাংসের উপকারিতা, বাদুর সম্পর্কে অজানা তথ্য)। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে আজকের পোস্টটি। চলুন শুরু করা যাক আজকের পোস্ট।

বাদুড় নিশাচর প্রাণী। বাংলাদেশের প্রায় অধিকাংশ স্থাননে রাতের বেলা য় বাদুড় দেখা যায়। এরা যেহেতু দিনের বেলায় কিংবা সূর্যের আলোতে দেখতে পায় না তাই তারা তাদের ভরণপোষণের কাজ বেশিরভাগ রাতেই সম্পন্ন করে থাকে। আমাদের মনে অনেকের প্রশ্ন জাগে যে বাদুড়ের মাংস খাওয়া যায় নাকি খাওয়া যায় না। আবার বাদুড়ের মাংস যদি খাওয়া যায় তবে এর কোনো উপকারিতা রয়েছে কিনা। এরকম আরো অনেক প্রশ্ন আমাদের মনে ঘোরাপাক খায়। তাই আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের মনের এবব প্রশ্ন গুলোর উওর দেয়ার চেষ্টা করবো। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক বাদুড়ের মাংস খাওয়া যায় কিনা সেই প্রসঙ্গে নানা তথ্য।

বাদুড়ের মাংস কি খেতে পারবো?

ইসলামি তথ্য মতে মুসলমানের জন্য সেসব প্রাণি গুলো খাওয়া হারাম যারা নিজেরা শিকার করে। যেমনঃ বাঘ, সিংহ, শিয়াল, কুকুর, বিড়াল, ইত্যাদি। আবার পাখিদের মধ্যে ও সেসব পাখি গুলো খাওয়া হারাম যারা তাদের পায়ের মাধ্যমে শিকার করে থাকে। যেমনঃ চিল পাখি, বাজ পাখি, বড় কাক বা কালো কাক, ইত্যাদি। আর যেসব প্রাণী গুলো আমাদের জন্য হালাল সেগুলো হলো হাস, খরগোস, হরিণ, গরু, ভেড়া, মহিষ, ইত্যাদি। আর পাখিদের মধ্যে যেগুলো হালাল রয়েছে সেগুলো হলো চড়ুই, কবুতর, ইত্যাদি।

সুতরাং বাদুড় এর মাংস খাওয়া যাবে কিনা সে প্রসঙ্গে যদি আমরা বলি যেহেতু বাদুড় শিকার করে খায় না তাই এদের মাংস খাওয়া যেতে পারে। বাংলাদেশের অনেক অঞ্চলে বাদুড় এর মাংস খেতে দেখা যায়। তাই আমরা বলতে পারি বাদুড়ের মাংস খাওয়া যেতে পারে যদিও অনেকে বাদুড় এর মাংস গ্রহণীয় মনে করে না। উপস্থিত বুদ্ধি বৃদ্ধির উপায়

বাদুরের মাংসের উপকারিতা

অন্যান্য পাখির তুলনায় বাদুড় একটি ভিন্ন ধরনের পাখি। কেননা অন্য পাখি গুলে দিনের বেলায় তাদের আহরণ এর যোগান করে কিন্তু বাদুড় সম্পূর্ণ তার উল্টো। তাই অন্য পাখিদের মাংসের তুলনায় বাদুড় এর মাংস অনেকটা ভিন্ন। বাদুড়ের মাংসে রয়েছে প্রচুর পরিমানের ভিটামিন যা আমাদের শরীরে প্রচুর এনার্জি জোগায়। এর ফলে আমরা অনেকটা কর্মক্ষম থাকতে পারি। এছাড়া এই মাংস খাওয়ার ফলে শরীরের মধ্যে অনেকটা চাঙা ভাব আসে।

বাদুর সম্পর্কে অজানা তথ্য

আমরা সাধারণত রাতের বেলায় কোনো পাখি কে দেখলে চমকে উঠি এবং অনেকে ভয় পেয়ে অনেক কিছু ভাবে। তবে যাদের ক আমার রাতে দেখতে পায় সর্বোপরি তারা অধিকাংশই বাদুড় হয়ে থাকে। কেননা বাদুড় হলো নৈশচর পাখি যারা রাতে বাসা থেকে বের হয় এবং সকালে সূর্যের আলো উঠার আগেই তারা তাদের বাসস্থানে ফিরে যায়। এর মূল কারণ হলো তারা সূর্যের আলোতে চোখে দেখতে পায়না।

তাদের মধ্যে অনেক আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা অন্যান্য সকল পাখিদের চেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা। এরা কখনো দাড়িয়ে থাকতে পারেনা। এরা সর্বদা গাছের ঢালে ঝুলে থাকে তাদের পা দিয়ে। উড়ার সময় এদের মাথা মাটির দিকে থাকে। এরা সরাসরি বাচ্চা প্রসব করে। অন্যান্য পাখিদের মতো ডিম থেকে এরা বাচ্চা ফুটায় না। এরা মুখ দিয়ে বাচ্চা প্রসব করে। এরকম আরো অনেক কিছু রয়েছে যা অন্যান্য পাখির চেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা।

সর্বোপরি বাদুড় সম্পর্কে এবং বাদুড় এর মাংস খাওয়া নিয়ে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আজ এই পর্যন্তই। পোস্টটি কেমন লাগলো দয়া করে কমেন্টে জানাবেন, যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যয় শেয়ার করবেন, পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এমন সব দারুন দারুন পোস্ট পেতে Grathor এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Posts

7 Comments

মন্তব্য করুন