★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে ভূমিকা রাখতে পারেন এবং পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন★এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন★

মা বা ফর্সা হওয়ার পরেও সন্তান কেন কালো হয়? বিজ্ঞান কি বলে জেনে নিন

আমরা সাধারনত জানি বা দেখি মা বাবা ফর্সা হলে সন্তানও ফর্সা হয়। অথবা মা বাবা কালো বর্ণের হলে সন্তানও কালো হয়। এটাই ঘটে বা প্রত্যাশিত। কিন্ত মা বাবা ফর্সা হওয়ার পরেও কালো সন্তান জন্মলাভ করে এমন ঘটনাও কিন্ত আছে। আসুন জেনে নেয়া যাক কেন এমনটা ঘটে?

বিষয়টি বুঝতে হলে আমাদের জীন সম্পর্কে  ধারনা নিতে হবে শুরুতেই। জিন হলো মানুষ বা অন্যান্য প্রাণীর বৈশিষ্ট্য নিয়ন্ত্রন করে।  যেমন মানুষের  চামড়ার রং, চুলের রং ও প্রকৃতি কেমন হবে তা জিন নিয়ন্ত্রণ করে।

এবার আমাদের প্রকট ও প্রচ্ছন্ন বৈশিষ্ট্য বুুুুঝতে হবে। দুটি রঙের মধ্যে যেটা প্রকাশিত হবে সেটি প্রকট ও যেটি প্রকটের কারনে প্রকাশিত হতে  পারবে না সেটি প্রছন্ন বৈশিষ্ট্য।


বুঝানোর সুবিধাার্থে একজোড়া মোরগ মুরগির উদাহরন দিতে পারি। ধরি মোরগের কালো বর্নের জন্য দায়ী প্রকট জিন B. এবং বাদামি বর্নের জন্য প্রচ্ছন্ন জিন b. এমন গ্যমেটধারি হওয়াতে মোরগ-মুরগী দুটির রং কালো হবে।  কারন বাদামির থেকে কালো প্রকট। কিন্ত বাদামির জিন বহন করে। এখন এমন দুটি মোরগ মুুুুরগির মধ্যে ক্রস ঘটানো হলে চারটি বাচ্চাা র গ্যামেট হবে BB, Bb, Bb, bb.  এখানে কালো প্রকট হওয়ার কারনে ৩ টি সন্তান কালো ও একটি বাদামি বর্নের হবে। যদিও তাদের পিতা মাতার রং কখনোই বাদামি ছিলো না।  তাহলে কেন এমন হলো? মূলত তারা কালো হলেও বাদামি বর্নের জিনের বাকহ ছিলো।

এভাবেই মানুষের ক্ষেত্রেও মা বা ফর্সা হলেও পূর্ববর্তী কোনো প্রজন্ম থেকে কালো জিনের বাহক ছিলো।

সুতরাং বন্ধুরা আশা করছি নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন।   বিষয়টি নিয়ে এ কারনেই লিখলাম কারন আমাদের দেশে এমন অনেক ঘটনা ঘটে। যার সঠিক ব্যাখ্যা না জানায় অনেক পরিবারের পুুরুষেরা মহিলাদের দায়ী করে এবং পরিবারে একটি অশান্তি তৈরি হয়। তাদের ধারনা মহিলাদের অপকর্মের দ্বারা এ সন্তানের জন্ম। যা অযৌক্তিক এবং বিজ্ঞান সমর্থন  করে না।


অন্যান্য বিষয় সম্পর্কেও আমাাদের সমাজে প্রচলিত কিছু ভূল ধারনা আছে। যেমন সন্তান ছেলে হবে না মেয়ে হবে তার জন্য মাকে  দায়ী করা হয়। কিন্ত  বিজ্ঞানের উৎকর্ষ সাধনের সাথে সাথে মানুষ  এর ব্যাখ্যা জানতে পেরেছে। সন্তান ছেলে অথবা মেয়ে হবে তার জন্য মা নয় বাবাই দায়ি। কারন পুরুষের গ্যামেট XY, যেখানে মহিলা সবসময়ই XX.অর্থাৎ, পুরুুষের  Y ও নারীর  X মিলে XY অর্থাৎ, পূত্রসন্তান হয়। আবার, পুরুষের X ও নারীর X মিলে কন্যাসন্তান জন্মলাভ করে। এখানে নারী বরাবরই X গ্যামেট প্রদান করে। পুরুুষের গ্যামেটের পরিবর্তনের সাথে সাথে সন্তানের লিঙ্গ পরিবর্তন হয়। সুতরাং আমরা বলতেই পরি সন্তান ছেলে বা মেয়ে হবে তার জন্য বাবাই দায়ি।

ধন্যবাদ সকলকে