মেয়েদের জন্য নিজেকে ধর্ষনের মূহূ্র্তে রক্ষা করার কিছু উপায়

মেয়েদের জন্য নিজেকে ধর্ষনের মূহূ্র্তে রক্ষা করার কিছু উপায়

 

আজকাল খবরের কাগজের পাতায় পাতায় , ফেসবুকের টাইমলাইনে , টেলিভিশনের খবরে, নিউজ হেডলাইনে একটায় খবর “ধর্ষনের খবর “। আজকাল মানুষ এতো নিষ্ঠুর হয়ে গেছে যে , বলার মতো নয় , ছোট ছোট শিশুদের পর্যন্ত ছাড়তেছে না । এধরণের খবর গুলো সত্যি ভয়ংকর, একটা মেয়ের জন্য । তাই সচেতনতা তৈরি করার জন্য এবং নিজেকে রক্ষা করার কিছু টেকনিক নিয়ে আসলাম । যারা এই আর্টিকেল পড়বেন ,তারা এই আর্টিকেল টিকে শেয়ার করুন , যাতে সবাই এবিষয়ে সচেতন হতে পারে । কারণ একটা দূর্ঘটনা সারা জীবনের দুঃখ , একটা পরিবারের দুঃখ ।
তাহলে চলুন জেনে নিই —

১. ভীত হয়ে প্রথমেই গা ছেড়ে না দিয়ে মাথা ঠান্ডা রাখুন।

২. ধাক্কা,থাপ্পড়, আচড় না দিয়ে পারলে নাক বরাবর ঘুষি দিন,হাত মুষ্টি ঘুষি নয় আঙ্গুল প্যারালাল রেখে লম্বালম্বি ঘুষি।এতে করে সে বেশ কিছুক্ষণ এর জন্য ব্যালেন্স হারাবে।

৩. জোরে তালি দাওয়ার মতো করে দুই হাত দিয়ে তার দুই কান বরাবর একই সাথে জোরে থাপ্পড় দিন,এতে সে পুরোপুরি ব্যালেন্স হারাবে।

৪. যতোটা সম্ভব পুরো সময়টা চিৎকার করুন।

<

৫. যখন সে আপনার দুই হাতের উপর হাত রেখে তার মুখ আপনার মুখের কাছে নিয়ে আসবে, তখন আপনার কপাল দিয়ে তার মুখে জোরে আঘাত দিন,এতে তার দাত দিয়ে তার ঠোঁট ও জিহ্বা কেটে যাবে।

৬. আপনার দুই কনুই দিয়ে তার থুতনি বরাবর আঘাত করুন,এতে সে সাময়িক সময়ের জন্য ব্যালেন্স হারাবে।

৭. কাপড়ে সেফটিপিন থাকলে ঠান্ড মাথায় সেগুলো খুলে তার গলায় ঢুকিয়ে দিন,এতে সে অঙ্গান হয়ে যাবে।

৮. ধর্ষক যখন উভয়ের কাপর অপসারনের চেষ্টা করবে সুযোগ বুঝে তার অন্ডকোষ বরাবর আপনার হাঁটু দিয়ে কিক করুন,এতে সে লুটিয়ে পড়বে।

৯. চুলে চিকন ক্লিপ থাকলে একটু কৌশলে সেগুলো খুলে তার কানের গোড়ায় অথবা গলায় ঢুকিয়ে দিন।

১০. আপনার হাত বেধে ফেলার আগেই শেষ সম্বল আপনার হাত,দুই হাতের তর্জনির আঙ্গুল ধর্ষকের দুই চোখ বরাবর ঢুকিয়ে তার চোখ নষ্ট করে দিন
মনে রাখবেন,আপনার সম্মানের কাছে দুনিয়ার কোন অপশক্তিই কিছুই না।সবাই সাবধানে থাকবেন।

আপনার একটু সাবধানতা আপনার মূল্যবান জীবন টুকু বাঁচিয়ে দিতে পারে।

তাই শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন। আর সচেতনতা তৈরি করুন ।

মেয়েদের জন্য নিজেকে ধর্ষনের মূহূ্র্তে রক্ষা করার কিছু উপায়

 

Related Posts

9 Comments

মন্তব্য করুন