যে কোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রে বন্ধুত্ব কতোটা গুরুত্বপূর্ণ

যে কোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রে বন্ধুত্ব কতোটা গুরুত্বপূর্ণ

যে কোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রে বন্ধুত্ব কতোটা গুরুত্বপূর্ন

সকল সম্পর্কের মুল হচ্ছে বন্ধুত্ব । এর মতো আর কোনো সম্পর্ক হয় না । এটি এমন একটি সম্পর্ক যেটা ভেংগে যাওয়ার পসিবিলিটি কম । টেকসই আর মজবুত সম্পর্ক । সুতরাং সম্পর্কে বন্ধুত্ব থাকাটা জরুরী ।

বন্ধুত্ব সম্পর্ক টা একটা কমন সম্পর্ক । আপনার বন্ধুত্ব যে কারো সাথেই হতে পারে , আপনার চেয়ে বয়সে বড় ও কিন্তু আপনার বন্ধু হতে পারে ,এতে কোনো ধরাবাঁধা নিয়ম নাই যে, আপনার বন্ধু আপনার সমবয়সী হবে । বন্ধুত্ব যে কোনো সম্পর্কের শুরু ও বলা যায়। আর বন্ধুত্ব আপনার সম্পর্কের জন্যে কতোটা দরকার ? চলুন জেনে নিই আমরা

* বন্ধুত্বের সম্পর্কে তো বন্ধুত্ব থাকবেই এটাই স্বাভাবিক । বন্ধুত্ব হলো মজার সম্পর্ক , এখানে মজা, হাসি, তামাসা ,ঠাট্টা সবকিছুই করতে পারি । এখানে আপনি আপনার ভালো লাগা মন্দ লাগা গুলো শেয়ার করতে পারবেন ।

* বৈবাহিক সম্পর্কে বন্ধুত্ব ঃ আমরা এমন ও সম্পর্ক দেখি তারা প্রথমে বন্ধু ছিল পরে বৈবাহিক সম্পর্কে জড়িয়েছে । আর বৈবাহিক সম্পর্কে বন্ধুত্ব খুবি জরুরী, যদি এরকম সম্পর্ক না হয় তাহলে আপনি আপনার ভালো মন্দ কিছুই শেয়ার করতে পারবেন না , আর যদিও বা শেয়ার করতে পারেন তারপরও তার সাথে ওতোটা ভালো লাগবে না । আমরা এমোনো দেখেছি যে , স্বামী – স্ত্রী তারা এমন মিছেমিছি মারা মারি কারছে , একটি চিমটি দিচ্ছে, আবার একটু চুল টানছে , আবার ফাজলামি করছে, তাদের মধ্যে কিন্তু আন্ডার্স্টান্ড টা খুবি ভালো , তাদের সম্পর্ক টা অনেক গভীর । এরকম কিভাবে হলো ? বন্ধুত্বই তাদের মধ্যে এরকম একটা সম্পর্ক গড়ে তুলেছে । এভাবে একে অপরের সাথে খুবি ভালো টাইম স্পেন্ড করতে পারে ।
আর বৈবাহিক সম্পর্ক গুলো টেকসই হয় । এ গুলো আমাদের সমাজের জন্যে উদাহরণ হয় ।

* অফিসে বন্ধুত্ব পূর্ণ সম্পর্ক ঃ
অফিসে আমাদেরকে বেশি সময় দিতে হয় ।যতোটা সময় আমরা বাড়িতে থাকি তারচেয়ে বেশি সময় কর্মস্থলে বেশী থাকি তাই আমাদের সহকর্মী দের সাথে ভালো সম্পর্ক গড়ে তোলা আপনার জরুরী । সহকর্মীদের একটা ভালো সম্পর্ক আপনার অনেক ভাবে কাজে আসতে পারে । হয়তো আপনারা এর থেকে অনেক সু্যোগ কাজে আসবে । তাছাড়াও তারা বিপদে আপদে আপনার পাশে থাকবে তাই তাদের সাথে বন্ধুত্বসুলভ হওয়া টা উচিত ।

<

* ভাই বোনের মধ্যে বন্ধুত্ব সম্পর্ক ঃ ভাই আর বোনের সম্পর্ক টা একটা মারামারি , চুল টানাটানি , একজনের খাবার কেড়ে নিয়ে খাওয়া এগুলো করাও কিন্তু বন্ধুত্ব
পূর্ণ সম্পর্কের কারনে হয়ে থাকে ।

তাই আমি বলবো প্রতিটি সম্পর্ক যদি বন্ধুত্ব পূর্ণ হয় তাহলে আমাদের সম্পর্কটা মধুর সম্পর্ক হয়। যে সম্পর্ক গুলো টেকসই হয় সেগুলো তো আমাদের সমাজের উদাহরণ হয় । আমাদের উচিত প্রতিটি সম্পর্ককে বন্ধুত্বের মতো মধুর করে গড়ে তোলা। তাই সবাই বলি বন্ধুত্বের মতো সম্পর্ক হয় না ।
ক্ষুদ্র লেখকের ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা,
পাঠ করার জন্য ধন্যবাদ ।

Related Posts