★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

লোভে পাপ পাপে মৃত্যু

বিশাল এক বনের মধ্যে গ্রাম ছিল। সেই গ্রামে প্রায় ১৫ থেকে ২০ টি বাড়ি ছিল।১৫ থেকে ২০বাড়ির মধ্যে একটি বাড়িতে দুইটি মানুষ বাস করতো। স্বামী ও স্ত্রী। স্বামীর নাম ছিল মহেশ, এবং স্ত্রীর নাম ছিল রুপবতী । তাঁরা ছিল খুব গরিব।রুপবতীর স্বামী ছিল একটি কাঠুরে।রোজ বন জঙ্গলে ঘূরে কাঠ কেটে নিয়ে আসতো।এক দিন কাঠুরী কাঠ কেটে বাড়ি ফিরছিল তাঁর পিছন থেকে আওয়াজ শুনতে পেল । আওয়াজ টি ছিল আমাকে বাঁচাও।আমি মরে যাব,কেউ আছো আমাকে বাঁচাও। সেই আওয়াজ শুনতে পেয়ে কাঠুরী বললো কে তুমি, কোথায় থেকে আওয়াজ করছো।তার পর কাঠুরী পেছনে ঘুরে ধীরে ধীরে এগিয়ে গেল আওয়াজ অনুসারে। তাঁর পর কাঠুরী বোঝাতে পারলো আওয়াজ টা একটা মরা গাছের গুঁড়ির নিচে থেকে আসছে।তার পর কাঠুরী বললো কে তুমি, গাছের গুঁড়ির নিচ থেকে বেরিয়ে এসো। তার পর কাঠুরী দেখলো একটা 🐍 সাপ বেরিয়ে এলো।তখন কাঠুরী টি অবাক হয়ে 🐍 সাপ কে বললো তুমি কে।সাপ টি কাঠুরীকে বললো আমি খুবই অসুস্থ । আমাকে সাহায্য কর ।না হলে আমি মারা যাব,তখন কাঠুরী সাপকে বললো তুমি এখানে দাঁড়িয়ে থাক আমি বাড়ি থেকে খাবার নিয়ে আসি।তখন কাঠুরে তাঁর স্ত্রী কে বললো এক বাটি দুধ এবং দুই থেকে তিন টি কলা দাও। কাঠুরর স্ত্রী বললো কি করবে এগুলো নিয়ে। কাঠুরে বললো এসব বলার সময় নেই , আমি ফিরে এসে বললো তোমার কে। তখন কাঠুরে দুধ ও কলা নিয়ে গিয়ে বললো এগুলো খেয়ে নাও।সাপটি বললো তোমাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। তুমি যদি আমাকে প্রতি দিন দুধ এনে দাও আমি সুস্থ হয়ে এক দিন সুস্থ হয়ে যাব। কাঠুরে বললো ঠিক আছে আমি প্রতি দিন তোমাকে এনে খাবার দিব। তাঁর পর কাঠুরে বাড়িতে গিয়ে স্ত্রী কে সব কথা খুলে বলেন। স্ত্রী তাকে বললো এসব কাজ করার দরকার কোন দরকার নেই। কাঠুরে বললো একটি অসুস্থ 🐍 সাপ কে সাহায্য করলে আমাদের কোন ক্ষতি নেই। স্ত্রী বললো তোমার যা ভালো মনে হয় তাই কর। এভাবে দুই থেকে তিন দিন খাবার এনে দেওয়ার পর । সাপটি অল্প একটু সুস্থ হলো।তার দিনের দিন কাঠুরে যখন খাবার দিতে গেল সাপটি তখন সোনার ডিম নিয়ে বসে ছিল। সাপটি কাঠুরে কে বললো তুমি যে খাবার আমাকে এনে দাও এজন্য ডিম টি তোমার উপহার।

তখন কাঠুরে সাপকে বললো তুমি আমার পরম বন্ধু।সাপ বললো আজ থেকে আমরা বন্ধু।এই ভাবে প্রতিদিন কাঠুরে সাপকে খাবার দিত। আর সাপ কাঠুরীকে সোনার ডিম দিত। প্রতিদিন একটা করে ডিম নিয়ে যেত বাড়িতে। তখন কাঠুরে আর কাঠ কাটতনা কারন প্রতিদিন একটা করে ডিম বেঁচে সে এখন অনেক ধনী ।কাঠুরে সাপকে খাবার দিয়ে একটা সোনার ডিম নিয়ে বাড়িতে ঢুকতে তাঁর বউ তাকে বললো প্রতিদিন একটা করে ডিম আনার চেয়ে এক বারে ওই সাপের কাছে যত গুলো দিম আছে নিয়ে এসো যাও । তাঁর বউ তাকে একটি সাবল দিয়ে বললো তারাতাড়ি যাও। কাঠুরে মরা গাছের গুঁড়ি ভাঙচুর করতে লাগলো। তখন সাপ বেরিয়ে এলো। এসে বললো বন্ধু তুমি আমার বাড়ি ভাংচুর করতে চায়ছ কেন । আমি এখন তোমার কাছে যত গুলো ডিম আছে দিয়ে দাও।তখন সাপটি বোঝাতে পারলো তাঁর মনের কথা । তখন সাপ তাকে এক বারে শেষ করে দিল। লোভে পাপ পাপে মৃত্যু।।।।