★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে ভূমিকা রাখতে পারেন এবং পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন★এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জানুন★

সবাই তো বলে ব্যবসা করতে হলে এটা করতে হবে, সেটা করতে হবে । কিন্তু আমি আজ বলছি আপনি ব্যবসা করবেন না যদি না আপনার এই গুন না থকে ।

 

এতদিন অনেক কথাই শুনে এসেছেন যে ব্যবসা করতে কি কি করতে হবে । সফল ব্যবসায়ি হওয়ার কি কি উপায় আছে ।  ব্যবসায়িক আইডিয়া সম্পর্কে অনেক বিখ্যাত ব্যাক্তিদের বানীও শুনে এসেছেন । কিন্তু আপনাকে কেও সহজে এটা জানায় নি যে ব্যবসা শুরু করার আগে কি কি না করা উচিৎ, কোন ভুল গুলো মাথায় রেছে সাবধান হওয়া উচিৎ, আসল সত্যিটা আপনাকে কেও কখনো বলে নি ।

তাই আপনি যদি সত্যি ব্যবসা করতে মনযোগী হয়ে থাকেন তাহলে আমার লিখাটা সম্পূর্ন পরুন । আপনি নিশ্চয় অনলাইনে অনেক সফল ব্যবসায়িকদের সম্পর্কে পড়েছেন বা জেনেছেন, তাদের জীবন সম্পর্কে জেনেছেন তারা কিরকম বাড়িতে থাকে, কি রকম গাড়ীতে চড়ে, তারা কিভাবে একটা পার্টিতে যায়, তারা কিভাবে একটা স্টার্ট আপ শুরু করে কত সাধারন অবস্থা থেকে একটা বিশাল যায়গায় উঠে এসেছে এবং শেষ পর্যন্ত আপনার মনে হয় যে ওই গাড়িটা ওই গাড়িটা এগুলো আমিও চাইলে পেতে পারি । আমিও একটা স্টার্ট আপ ব্যবসা শুরু করবো । কিন্তু এখানে আমি আপনাকে ৫টি সতর্ক বাণী বলবো যা দিয়ে আপনি যাচাই করে দেখবেন যে আপনি হয়তো এখনো ব্যবসা শুরু করার জন্য তৈরি নন ।


নাম্বার ১/ আপনি একটা ব্যবসা শুরু করবেন না যদি না আপনার কাছে যথেষ্ঠ টাকা না থাকে । ঠিক শুনেছেন টাকা না থাকলে ব্যবসা শুরু করবেন না । আপনার শরীরে যেমন রক্ত না থাকলে শরীর চলতে পারে না তেমনি টাকার ফ্লো না থাকলে একটা ব্যবসা চলতে পারে না । ব্যবসা থেকে লাভ করতে চাইলে তাঁর জন্য সময় লাগবে । আপনি যদি ভেবে থাকেন যে আমি ব্যবসা শুরু করার এক সপ্তাহ পর থেকে বা এক মাস পর থেকে লাভের টাকা ঘড়ে আনতে শুরু করবো তাহলে আপনি মস্ত বড় ভুল করছেন । এটা কোন চাকরি নয় যে সপ্তাহ শেষে বা মাসের শেষে করকরে টাকা আপনার হাতে চলে আসবে । এটা একটা ব্যবসা যেখান থেকে আপনার লাভ আসতে হয়তো ৬ মাস, হয়তো এক বছর, হয়তো দুই বছরও লেগে যেতে পারে কিন্তু এর মধ্যে আপনাকে তো, খেতে হবে, আপনাকে বিদ্যুৎ বিল দিতে হবে, আপনাকে আপনার গাড়ির পেট্রোল ভরতে হবে । যদি সত্যিই আপনার কাছে এই মুহুর্তে টাকা না থাকে তাহলে আপনি কি করবেন ? আপনি তাহলে এখন একটা চাকরি করুন । ব্যবসা নয় একটা ব্যবসাকে সময় দিতে হয় পরিশ্রম দিতে হয় এবং তাঁর সাথে তাকে টাকা দিতে হয় ।

নাম্বার ২/ একটা ব্যবসা শুরু করবেন না যদি না আপনার সেই ব্যবসা সম্পর্কে যথেষ্ঠ অভিজ্ঞতা না থাকে । এটা কোন গেম না যে আপনার ভালো লাগলো কারো মুখে শুনলেন, কারো কাছে দেখলেন, আপনি ফেসবুকে পড়লেন এবং সেটা ডাউনলোড করে খেলতে শুরু করে দিলেন । যদি আপনি আপনার বিষয়টা সম্পর্কে ভালো করে না জেনে থাকেন এখন অব্দি তাহলে সবার আগে সেটা নিয়ে ভালো করে জানুন সেটা শিখুন । খাবারের ব্যবসা খুব ভালব্যবসা কিন্তু সেটা আপনার জন্য ভালো নয় কারন আপনি এখনো জানেনি না যে সেই ব্যবসার ভিতরের প্যাচ গুলো কি আছে ।

নাম্বার ৩ / এ ক্ষেত্রে বুঝতে হবে যে আপনার কাছে কতটা সোয্য ক্ষমতা আছে । মানে আমি বলতে চাইছি আপনার মানসিক দৃঢ়তা কতটা ? একজন ব্যবসায়িক হতে হলে সবথেকে জরুরী যে গুনটা আপনার থাকা দরকার সেটা হচ্ছে আপনার মানুষীক দৃঢ়তা  আপনার কঠিন পরিস্থিতিতে  সয্য ক্ষমতা । কষ্ট সয্য করতে হবে এবং সেটা দির্ঘ দিন ধরে ওই দামি গাড়ীর জন্য ওই দামি বাড়ির জন্য আপনাকেও কিছু দিতে হবে । সেটা হল আপনার যন্ত্রনাটা দিনের পর দিন নিংড়ে দিতে হবে । সবাই ব্যবসার চকচকে দিকটা নিয়ে কথা বলে । কেও বলে না এর অন্ধকার দিকটার কথা । সেই রাত গুলোর কথা যে রাত গুলো টেশন করে না ঘুমিয়ে ছটফট করে কাটাতে হয়েছে ।


নাম্বার ৪/ এ ক্ষেত্রে বলা যায় ব্যবসা শুরু করবেন না যদি আপনি ফ্রি টাইম পাওয়ার আশা করে থাকেন । আমরা ভাবি যে চাকরি ছেড়ে দিয়ে ব্যবসা শুরু করবো তাহলে আর আমাকে ১০টা-৫টা  ডিউটি করতে হবে না । আমার ব্যবসার মালিক আমি নিজেই, আমার স্বাধীনতা পুরোপুরি, পুরো সময়টাই আমার আপনি যদি এরকম ভেবে থাকেন তাহলে আপনি মূর্খের স্বর্গে বাস করছেন । এখানে স্বাধীনতা বলে কিছু নেই । আপনাকে এখানে মনের মধ্যে কাজ করতে হবে ২৪ ঘন্টা । আপনাকে আপনার ব্যবসার মধ্যে বেঁচে থাকতে হবে ৩৬৫ দিনের প্রতিটা মূহুর্ত, আপনি আপনার কাষ্টমারদের নিয়ে ভাবতে হবে, আপনার কর্মচারিদের নিয়ে ভাবতে হবে, আপনাকে আপনার অর্ডারনিয়ে ভাবতে হবে এবং সব যায়গায় সব কিছুকে ঠিক ঠাক রাখার পর তবেই আপনি সবার শেষে নিজের জন্য কখনো সময় বেচে থাকলে সেই সময় টুকু পাবেন । যারা সফল ব্যবসায়ী তারা প্রত্যেকে জীবনে শুরুর ১০ বছর ১৫ বছর নিজের জন্য একফোটা সময় পান নি । তাঁর পর ব্যবসা একটা যায়গায় পৌছানোর পর তারা হয়ত একটু দম ফেলার ফুসরত পেয়েছেন । আপনি যদি পরাধীনতা মেনে নিতে না পারেন এই কম্প্রোমাইজ করতে রাজি না থাকেন তাহলে আপনার এই রাস্তায় পা না বাড়ানোই ভালো ।

নাম্বার ৫ এবং সর্বশেষ / এ ক্ষেত্রে বলবো কিছুতেই ব্যবসা শুরু করবেন না যদি না আপনি কোনকিছু শেষ করার ব্যবপারটা বোঝেন । আপনাকে কাষ্টমারের সাথে কোথায় ব্যবসা শেষ করতে হবে, আপনাকে আপনার সাপ্লায়ারের সাথে কোথায় গিয়ে ব্যবসা ক্লোজ করতে হবে । আপনাকে এটা শিখতে হবে, জানতে হবে, যদি আপনার এই দক্ষটাতা না থাকে তাহলে আপনি ব্যবসার জন্য অযোগ্য ।  আপনার জন্য ব্যবসা নয় ।

তাহলে আমি বলবো আপনি আগে কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান-এ থেকে সেই ব্যবসাটা শিখুন যেটা আপনি করতে চায়  তারপর ব্যবসা শুরু করুন তাহলে দেখবেন আপনাকে সেই লাইন থেকে আর ছিটকে পড়তে হবে না । ধন্যবাদ ।