Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

শিক্ষা

একটি ইজারাপত্র দলিল বা বন্ধকনামা দলিল

Md Rana

Published

on

 

মাতা মোছাঃ রাশেদা বেগম, ধর্ম-ইসলাম, পেশা-কৃশিকার্য্য, জাতীয়তা-বাংলাদেশী, সাং-গড়জরিপা, ডাকঘর-গড়জরিপা, উপজেলা- শ্রীবরর্দী, জেলা- শেরপুর।

দাতাঃ মোঃ সাকিব হোসেন, পিতা মোঃ আমজাদ আলী, মাতা মোছাঃ শিরিনা বেগম, ধর্ম-ইসলাম, পেশা-কৃশিকার্য্য, জাতীয়তা-বাংলাদেশী, সাং-গড়জরিপা, ডাকঘর-গড়জরিপা, উপজেলা- শ্রীবরর্দী, জেলা- শেরপুর।

 

মৌজা- গড়জরিপা
জমির পরিমান- ৫০(পঞ্চাশ) শতাংশ জমি মাত্র।
মূল্য- ১,০০,০০০/- ( এক লক্ষ) টাকা মাত্র।
বার্ষিক কর্তন- প্রযোজ্য নহে
উপজেলা- শ্রীবরদী, জেলা- শেরপুর।

পরম করুনাময় আল্লাহতায়ালার নামে ইজারাপত্র বা বন্ধকনামা দলিল সৃষ্টির উদ্দেশ্য নিন্মে বর্ণনা করিতেছি যে, আমার সাংসারিা কার্য পরিচালনা করার জন্য নগদ টাকার বিশেষ প্রয়োজন হওয়ায় অন্য কোন উপায়ে টাকা সংগ্রহ করিতে না পারায় আমার স্বত্বদখলিয় নিন্ম তফসিল বর্ণিত ৫০ (পঞ্চাশ) শতাংশ জমি ইজারাপত্র বা বন্ধক দেওয়ার প্রস্তাব করিলে তাহা আপনি উক্ত জমি ইজারা বা বন্ধক নিতে ইচ্ছুক হওয়ায় সে মতে উক্ত জমির সর্বোচ্চ্য বন্ধকী মূল্য মং- ১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকা মাত্র সাব্যস্থ করিয়া মূল্যের সাকুল্য টাকা নিম্ন স্বাক্ষীগণের মোকাবেলায় অদ্য নগদ আপনার নিকট হইতে গ্রহণ করিয়া উক্ত জমি আপনার বারবার দখল ছাড়িয়া দিলাম। উক্ত টাকা অদ্য তারিখ হইতে আগামী ০২(দুই) ফসলের পর যে কোন মৌসুমী ফসল উঠার পর আপনার দেওয়া টাকা একযুগে আপনাকে ফেরৎ প্রদান করিলে আপনি গ্রহীতা উক্ত জমি আমার নিকট বুঝাই দিবেন। প্রকাশ থাকে যে, আপনার দেওয়া টাকা না দিয়া উক্ত জমিতে গেলে আমি বা আমার স্থলবর্তী/ পরবর্তী ওয়ারিশগনদের মধ্যে যদি কেউ উক্ত জমিতে যায় তবে তাহা সর্বআইনে অগ্রাহ্য হইবে। আরও প্রকাশ থাকে যে, আমার অভাবে আমার ওয়ারিশগন আপনার দেওয়া টাকা আপনাকে বুঝাইয়া দিয়া উক্ত জমি ভোগদখল করিতে পারিবে টাকা না দিয়া উক্ত জমিতে গেলে তাহা আইনত অগ্রাহ্য ও বাতিল বলিয়া গণ্য করা হইবে। এতদ্বার্থে স্বেচ্ছায় স্বজ্ঞানে অত্র ইজারাপত্র বা বন্ধকনামা দলিল লেখাইয়া দিয়া ইহাতে স্বয়ং সম্পাদন করিলাম। ইতি তারিখঃ ১৬/০৯/২০২০ ইং

 

তফসিল জমির চৌহুদ্দিঃ-

জেলা- শেরপুর, উপজেলা- শ্রীবরদী, মৌজা- গড়জরিপা।

সাবেক- —————————- নং খং ও হাল ——- নং খতিয়ান।
দাগ নং- সাবেক ——— নং দাগের হাল- ৮৭১,৮৭২ নং দাগ নামা।
অত্র দাগের ভূমি হইতে———— ৫০ (পঞ্চাশ) শতাংশ জমি মাত্র।

মোয়াজী- পঞ্চাশ শতাংশ জমি মাত্র।

অত্র দলিল পাঠ করিয়া উহার মর্ম অবগত হইলাম।

দলিল লেখকের পূর্ণনাম, ঠিকানা, সনদ নম্বর ও স্বাক্ষরঃ-

মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম
সাং- গড়জরিপা
সনদ নং- ১১৭
এস আর অফিস শ্রীবরদী, শেরপুর।

 

ইশাদি

১।

২।

৩।

৪।

৫।

Advertisement
1 Comment
Subscribe
Notify of
1 Comment
Oldest
Newest
Inline Feedbacks
View all comments
Maria Hasin Mim

hmm

শিক্ষা

অনলাইন ক্লাস নিয়ে যতো কথা ?

Ifti Haque

Published

on

আজকে আমরা অনলাইন ক্লাস এর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো।অনলাইন ক্লাস আমাদের জন্য কতটা উপযোগী।অনলাইন ক্লাস করলে লাভ,ক্ষতির ব্যাপার টাও আজকে বলবো।

 

পুরো দেশে যখন একটা মহামারী চলতেছে। আর এই মহামারী আমাদের জীবন কে কি থামিয়ে দিতে পেরেছে ?
পারেনি।একদিক দিয়ে বাধা আসলে আমরা অন্য একটা উপায় বের করে আমাদের সমস্যা গুলো সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।যেমন টা প্রভাব ফেলেছে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও।কোভিড-১৯ এর কারনে আমাদের জীবন অনেকটাই পাল্টে গেছে। আমাদের নিজেদের সুস্থতা নিশ্চিত এর জন্য আমাদের সাস্থ্য বিধি মানতে হচ্ছে।সমাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হচ্ছে।
আর এই সামাজিক দুরত্ব মেনে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার জন্য অনলাইন ক্লাস এর গুরুত্ব অপরীসিম।

এখন অনেকেই বলে তাদের অনলাইন ক্লাস করতে ভালো লাগে না।দোষ দেয়া হয় মোবাইল/কম্পিউটার/ল্যাপটপ কে।অনেকেই বলে এতক্ষণ স্ক্রিন এর দিকে তাকিয়ে থাকতে ভালো লাগে না।

আসলে পড়াশুনা করাই ভালো লাগে না।আমাদেরকে যদি ক্লাস না করিয়ে বলা হতো এখন নেটফিলিক্স থেকে একটা মুভি দেখানো হবে।তাহলে আমরা ঘন্টার পর ঘন্টা দেখতে পারবো। তখন আমাদের করো মাথা ব্যথা থাকবে না।শুধু পড়া লেখার বেলাই যত মাথা ব্যথা।আমার নিজের ক্ষেত্রেও এমন।তবে আমাদের এই সমস্যার মধ্যেই পড়া লেখা চালিয়ে যেতে হবে।

এখন অনলাইন ক্লাস করবো না আমি।সব কিছু স্বাভাবিক হলে আমি ফিজিকাল ক্লাস করবো।এই ভেবে যদি বসে থাকি।শুয়ে দিন পার করি তাহলে কি কোন ক্ষতি হবে ?

এক কথায় উত্তর দিতে গেলে,চরম একটা ভুল হবে।অনেক বড় ক্ষতি হবে।

কেনো ক্ষতি হবে ?
এখন তার ব্যাখ্যায় আসি।

বিশেষজ্ঞদের মতে এই কোভিড-১৯ এর তান্ডব আরো ১০ বছর চলবে।
তাহলে কি আমরা ১০ বছর শুয়ে বসে কাটিয়ে দিব ?
না এটা তো আমরা করতে পারি না।
এই পরিবর্তন টা আমাদেরকে মেনে নিতে হবে।যদি আমরা অনলাইন ক্লাস করে অভ্যস্ত না।তবুও আমাদের এই পরিস্থির সঙ্গে অভিযোজন ঘটাতে হবে।
দেখ তুমি আমি যদি এখন অনলাইন ক্লাস না করি তাহলে আমরা অন্যদের তুলনায় অনেক পিছিয়ে পরবো।যারা অনলাইন ক্লাস করবে তারা আমাদের থেকে অনেক এগিয়ে থাকবে।নিজেকে পিছিয়ে রাখলে হবে না।সবারই একটা ভবিষ্যত আছে।সময় কিন্তু থেমে নেই। সময় ঠিক নিজের নিয়মেই সামনে অগাচ্ছে।আর যদি আমরা এখন বসে থাকি তাহলে একটা ভালো ক্যারিয়ার গঠন করা সম্ভব হবে না।

 

এবার অনলাইন ক্লাস এর কিছু উপকারী দিক তুলে ধরি :

অনলাইন ক্লাস এর মাধ্যমে আমরা ঘরে বসেই ক্লাস করতে পারি।যার ফলে আমাদের কে বাস,রিকসা করে জ্যাম ঠেলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে হচ্ছে না। এতে আমাদের অনেক টা সময় বেচে যাচ্ছে।
আগে যেমন ক্লাস এর পেছনে বসলে বোর্ড এর লেখা দেখা যেতো না এরকম সমস্যা আর হবে না।
যেহেতু অনলাইন ক্লাস টা নিজ গৃহে একা বসেই করা হয় তাই আর দুষ্টামি করার সুযোগ টা নেই, যার ফলে সম্পূর্ণ ক্লাস পুর্ণ মনোযোগ সহকারে করা সম্ভব।

পরিশেষে বলবো,এই পরিবর্তন এর সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে হবে।হাতের কাছে একটা ভালো ডিভাইস রাখতে হবে যাতে ক্লাস এর পড়া ও লেখা ভালো মতো দেখা যায় এবং শুনা যায়।

আর যদি কারো মতামত থাকে নিচে কমেন্টে আমাদেরকে জানাতে পারো।
সবাই ভালো থাকবে,সুস্থ থাকবে।
পড়ালেখা চালিয়ে যাবে।
এই কামনাই করছি।

Continue Reading

শিক্ষা

জবের জন্য ইন্টারভিউ কল না পাবার ছোট্ট ভুল।

Ifti Haque

Published

on

কোন সেক্টরে “জবের জন্য ইন্টারভিউ কল” পাবার জন্য এখন লিংকডউইন প্রোফাইল দেখার পাশা পাশি ফেসবুক প্রোফাইল টাও দেখা হয়।

এখন প্রশ্ন , কেনো ভাই জব পাবার জন্য লিংকডউইন প্রোফাইল দেখার পাশা পাশি ফেসবুক প্রোফাইল টাও দেখা হবে কেনো ?

খুব সহজ বিষয়,আপনাকে যে একটা প্রতিষ্ঠান এ নিয়োগ দেয়া হবে আপনি আসলেই মানুষ টা কেমন তা তো প্রতিষ্ঠান এর জানতে হবে।আপনি কি চুপ-চাপ নাকি বেশি কথা বলেন।আপনি কি কাজ কর্ম নিয়ে আসলেই গুরুত্ব দেন নাকি হেলায় ফেলায় সময় নষ্ট করে।আপনি মানুষের সঙ্গে কি সহানুভূতিশীল নাকি অন্য কিছু।মোট কথায় আপনি মানুষটা কেমন তার সব কিছুই কিন্তু আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পর্যবেক্ষণ এর মাধ্যমে জানা সম্ভব।কারন লিংকডউইন এ সবাই সুট-টাই পরে পিক দিলেও ফেসবুকে এ তার আসল পরিচয় পাওয়া যায়।ফেসবুকে এ কে কি করে না করে সব রেকর্ডেড থাকে।করো ফেসবুক প্রোফাইল ঘাটলেই তার সম্পর্কে একটা সুস্পষ্ট ধারণা অটোমেটিক হয়ে যায়।খুব সহজ একটা পদ্ধতি।এখন সবার প্রশংসাপত্রে ভালো দেয়া থাকে।তাই বলে কি আসলেই সবাই ভালো।তাই ভালভাবে জানার জন্যই এই পদ্ধতি।
এখন একজন প্রতিষ্ঠাতার জায়গায় নিজেকে বসিয়ে একটু ভাবুন।আপনি যাকে নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন তার বিষয়ে কি ভালো ভাবে যাচাই বাছাই না করেই নিয়োগ দিবেন ?
আপনার ছোট্ট একটা ভুল আপনার প্রতিষ্ঠান এর লাল বাতি জ্বালাতে পারে। আবার আপনার একটা সুষ্ঠ পদক্ষেপ আপনার কোম্পানির মুনাফা উর্ধগমী বৃদ্ধি করতে পারে।
কেউ নিশ্চত চাইবেন যে তার কম্পানির লাল বাতি জলুক।

আসলে যেটা বলতে চাইছি,আমরা অনেকেই ইচ্ছেবসত কিংবা আবেগের বসে ফেসবুকের অপব্যবহার করে থাকি।আমরা কেউ কেউ কমেন্টে খারাপ গালাগাল দিয়ে যাচ্ছি।কোন পোস্ট যাচাই বাছাই না করেই শেয়ার করে যাচ্ছি।এমন অনেক পোস্ট আছে যেগুলো আমাদেরকে অমানবিক প্রমান করে ঐসব কাজ আমরা প্রতিনিয়ত করেই যাচ্ছি।এসব অমানবিক কাজ থেকে এখনি আমাদের সরে দাঁড়াতে হবে।

এতক্ষণ তো হলো জব নিয়ে কথা।আসলেই কি বাস্তব জীবনে উল্টা পাল্টা ট্রল,মীমী নিয়ে পড়ে থাকার কোন লজিকাল অর্থ আছে।
যদি একজন মানুষ এর গড় আয়ু ৬০ বছর হয় আর এই সময়ে প্রতিদিন ৮ ঘন্টা করে ঘুমালে দিনের এক অষ্টমাংশ এখানেই শেষ ।হিসাব করলে দেখা যাবে মাত্র ৪০ বছর আমরা জেগে আছি।এই মূল্যবান সময় কে যদি কাজে লাগাতে না পারি তাহলে আর এই পৃথিবীতে থাকা মূল্যহীন।সামান্য কিছু অসতর্কতা,সামান্য কিছু ভুলের মাসুল অনেক বড় গুনতে হবে।

আপনি যতো দূরে যেতে পারেন না,তার থেকেও বেশি দূরে যাওয়ার ক্ষমতা আপনার ফেসবুক অকাউন্ট রাখে।তার মধ্যে যদি আপনার এবাউট আজে বাজে ডিটেইলস দেয়া থাকে ,তাহলে শতোভাগ নিশ্চিত থাকেন আপনি জীবনেও ইন্টারভিউ কল পাবেন না।
মনে রাখবেন “আগে দর্শনধারী,তারপর গুনবিচারী।”
ডিজিটাল যুগে আপনার ফেসবুক অকাউন্ট আপনার দর্শনধারীর ভুমিকা পালন করে।
তাই আমাদের উচিত হবে এসকল আনফেয়ার কৃতি থেকে দূরে থাকা।

চলুন নিজে সতর্ক হই। অন্যকেও সতর্ক করি।ভালো কাজ করি।
ভালো জীবনযাপন করি।

Continue Reading

শিক্ষা

জেনে নিন মানবদেহের কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।।।।

Shahriar Hasan

Published

on

আসসালামু আলাইকুম সম্মানিত দর্শকমণ্ডলী।। আজকে আমি আমাদের মানবদেহের কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে আলোচনা করব।।তো চলুন শুরু করা যাক।।

১. আমাদের মানবদেহের হাড় সংখ্যা ২০৬ টি।।

২.আমাদের মানবদেহের পেশি সংখ্যা ৬৩৯ টি।।

৩. আমাদের মানবদেহের কিডনি সংখ্যা ২টি।।।

৪. আমাদের মানব দেহের দুধ দাঁতের সংখ্যা 20 টি।।।

৫. আমাদের মানব দেহের পাজর সংখ্যা 24 টি(১২ জোড়া)।।

৬. আমাদের হৃদপিন্ডের চেম্বার সংখ্যা ৪ টি (ডান অলিন্দ, ডান নিলয়, বাম অলিন্দ, বাম নিলয়)।।

৭. স্বাভাবিক রক্তচাপ ১২০/৮০ (সিস্টোলিক- ডায়াস্টলিক)।।

৮. আমাদের শরীরের রক্তের স্বাভাবিক pH এর মান ৭.৪।।।

৯. আমাদের মেরুদণ্ডের হাড়ের সংখ্যা ৩৩ টি।।

১০. মাঝারি কানের হাড়ের সংখ্যা ৬ টি।।।

১১. আমাদের মুখের হাড় সংখ্যা ১৪ টি।।

১২. আমাদের স্কালের মধ্য হাড় সংখ্যা ২২ টি।।

১৩. আমাদের বুকে হাড় সংখ্যা ২৫ টি।।

১৪. আমাদের প্রতিটি কানের ভিতর তিনটি করে হাড় থাকে মেলিয়াস, ইনকাস, স্টেপিস।। ( কানের বাহির থেকে ভেতরের দিকে সিরিয়াল অনুযায়ী মনে রাখার সুত্র হল MIS)।।

১৫. কানে মোট ছয়টি হাড় থাকে,  এর মধ্যে স্টেপিস হল  মানবদেহের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম হাড়।।।

১৬. আমাদের শরীরে বাহুতে পেশীর সংখ্যা ৭২ টি।।

১৭. আমাদের শরীরের বৃহত্তম অঙ্গ হল চামড়া।।

১৮. আমাদের শরীরের বৃহত্তম গ্রন্থি হল লিভার।।

১৯. আমাদের শরীরের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম কোষ হলো রক্তের কোষ।।

২০.প্রতিদিন আমাদের হৃদপিণ্ড ১০০ বার করে রক্ত ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে প্রবাহিত করে।।

২১. আমাদের চোখের একটি পাপড়ি ১৫০ দিন বেঁচে থাকে তারপর নিচ থেকেই ঝরে যায়।।

২২. আমাদের চোখের উপর ভ্রুতে প্রায় ৫০০ টি লোম  রয়েছে।।

২৩. 100 বিলিয়ন এর অধিক নার্ভ সেল নিয়ে আমাদের মানব দেহ গঠিত।।

২৪. মানুষ চোখ খুলে হাচি দিতে পারে না।।

২৫. পাথর থেকে আমাদের শরীরের হাড় চারগুণ বেশি শক্ত।।

২৬. আমরা যখন খাবার খাই তখন সেই খাবারের স্বাদ      আমাদের মুখে দশ দিন পর্যন্ত থাকে।।।

২৭. মানুষ হাটুর ক্যাপ ছাড় জন্মগ্রহণ করে এবং তা ২ – ৬ মাস পর্যন্ত দেখা যায় না।।

২৮. শিশুরা সাধারণত বসন্ত কালে বেশি বৃদ্ধি পায়।।

২৯. মানুষের চোখ সাধারণত একই রকম থাকে কিন্তু নাক ও কান বৃদ্ধি পাওয়া কখনই থেমে থাকে না।।।

৩০. মানুষ জন্মগ্রহণ করে প্রায় ৩০০ টি হাড় নিয়ে কিন্তু প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর মানুষের  দেহে ২০৬ টি হাড় থাকে।।।

৩১. যখন আমরা হাচি দেই তখন আমাদের শরিরের সব কাজ বন্ধ থাকে এমনকি হার্টবিটও।।

৩২. মানবদেহের সবচেয়ে বড় হাড় হল উরুর হাড় (Thighbone)।।  এর নাম হল ফিমার।।

Continue Reading






গ্রাথোর ফোরাম পোস্ট