একটি মোবাইলের আত্মকাহিনী

একটি মোবাইলের আত্মকাহিনী

 

আমি এক প্রিয় জিনিস সবার কাছে। মানুষ মানুষকে ভালো না বাসলেও, আমাকে ঠিকই ভালোবেসে  সব সময় সাথে রাখে। একটু হাত ছাড়া হলেই, কেমন যেন অস্বস্তি বোধ করে আমাকে ছাড়া।  নাম আমার মোবাইল, তবে আমার জাত অনেক, স্যামসাং, ওয়ালটন, হাওয়াই, আই-ফোন, এসটিসি,স্যাম্ফনী, আরো কত কি!  তবে সম্মানের দিক থেকে আই-ফোন মাঝে মাঝে বিবাদ বাঁধায়, স্যামসাংও খুব বহুল পরিচিত বলে দাবি করে, এ নিয়ে সাম্প্রদায়িকতার শেষ নেই।

সারাদিনই মানুষের হাতে থাকি, খুব একটি বিশ্রাম পাইনা, মাঝে মাঝে মনে হয় উড়াল দিয়ে কোথাও চলে যাই, এই মনুষ্য জাতির হাত থেকে, সারাদিন কত অত্যাচার চালায় আমার উপরে, তবুও কেন জানি যাই না, একটা মায়ায় পড়ে গেছি মানুষের রক্তের সাথে মিশে।

আমার ভেতর মেমরি প্রবেশ করায়, তখন শক্তি আমার বেড়ে যায় বহুগুন, অনেক কিছু মনে থাকে, আমি তখন গাইতে পারি, নাচতে পারি, চিৎকার করতে পারে,  এই মেমোরী ছাড়া আমার চলাফেরা তেমন সুবিধা হয় না, তাইতো মেমোরিকে কানে কানে বলি, থাকো আমার সাথে, সব সময়।

মানুষ খাওয়া, নাওয়া, যাওয়া সব জায়গায় আমাকে ব্যবহার করে, আমার ও তো প্রাণ আছে নাকি?  এত কিছুর লোড তবুও আমি নিতে পারি।  মানুষ যখন মানুষের সাথে যোগাযোগ করে, তখন আমি ডেকে দেই তাদের, কথা গুলো বাতাসে ছড়িয়ে দেই, কত কথা শুনি আমি, মানুষের প্রেমের কথা, ভালোবাসার কথা, বেদনার কথা, আনন্দের কথা, চুক্তির কথা, ধ্ধংসের কথা, সাফল্যের কথা, আরো কত কত গোপন কথা, তবুও কাউকে বলি না আমি, চুপচাপ শুনে বাতাসের কাছে দিয়ে দেই, কুটনামি করে ঝগড়া লাগানোর স্বভাব মানুষের মাঝে থাকলেও আমার মাঝে নেই।

<

কখনো আমি দুর্বল হয়ে আসি, আমার শক্তির জন্য কানেক্ট করা হয় চার্জারে, যখন শক্তির প্রয়োজন তখন একটু সংকেত দেই, কিন্তু মানুষ কখনো প্রথম সংকেত শুনে আমাকে চার্জারে লাগায় না, একদম সব শেষের চিৎকারেে সময় কানেক্ট করে, তবুও চার্জারে লাগিয়ে অনেক মানুষ আমাকে ব্যবহার করে, ইচ্ছে করে ব্রাষ্ট হয়ে নিজে ধ্ধংস হয়ে, মানুষের ও নাক মুখ পুড়িয়ে দেই,  কিন্তু আমার ও জীবনের মায়া আছে, থাকি যতদিন থাকা যায়।

ঘুমানোর সময় পাশে থাকা প্রিয় মানুষটাকে সময় না দিয়ে আমাকে সময় দেয় অনেকে,  এতে অনেক ঝগড়ার কারণ হয়ে উঠি আমি।

মানুষ জিদ করে মাঝে মাঝে সে জিদ আমার উপরে মিটায়, কোমড় ভেঙ্গে ফেলে আমার, চোখের লেন্স ও হারিয়ে ফেলি, পরে চিকিৎসাটা ও করে মানুষই, ভালো হয়ে উঠি অনেক অঙ্গ প্রত্যঙ্গের জোড়া লাগানোর পর!  তবুও সবাই আমাকে ভালোবাসে, আমি সবার প্রিয়, আমাকে ছাড়া অনেকের দম বন্ধ হয়ে আসে।

আমাকে হারিয়ে ফেললে অনেকে খুব বিচলিত হয়ে পড়ে।

মানুষ আমাকে যে দিকে নেয় আমি সে দিকেই। জোড় করলেও শুনেনা। আমার দ্বারা খারাপ কাজ ও করায় অনেক অনেক, আবার ভালো কাজের ক্ষেত্রেও সাক্ষী আমি।

আজকে ভালো লাগছেনা, আমাকে আবার এখনই মানুষের হাতে যেতে হবে, বিরতি পেলে আরেক দিন বলবো, কিছু না বলা কথা।

Related Posts

14 Comments

মন্তব্য করুন