Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

আউটসোর্সিং

ব্লগিং করে আয় ও প্রফেশন তৈরি বিস্তারিত টিউটোরিয়াল ।পর্ব ১ঃ (ব্লগ সাইট তৈরি, পোস্ট সাবমিট ও কি করবেন)

Naimul Islam

Published

on

মানুষ বিচিত্র জীব। একেক মানুষের মধ্যে ভিন্ন ভিন্ন প্রতিভা আছে।যেমনঃ কেউ হয়তো খেলাধুলা বেশি পারে, কেউ পড়াশোনা তে এগিয়ে, আবার কারো লেখালেখির প্রতিভা আছে। কেউ কবিতা লিখতে জানে, কেউ গল্প লিখতে জানে।যদি আপনার লেখালেখির প্রতিভা থাকে তাহলে আমি আপনাকে সুন্দর একটি পরামর্শ দিতে পারি। সেটি হলো আপনি আপনার লেখালেখি কে ব্লগিং এ রূপান্তর করুন আর কাজ করুন নিজ ব্লগ স্পটে।

এতে দুটি সুবিধাঃ

১) আপনি আপনার লেখাগুলো অনলাইনে সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন। যেমনটা ডায়েরীতে লিখে করেন।

২)ব্লগিং এর মাধ্যমে আপনি তৈরি করতে পারেন নিজস্ব ইনকাম সোর্স। যেমনটা আপনি এড প্রদর্শনীর মাধ্যমে করতে পারবেন। যেমনঃGoogle Adsense, Adnow, RocketClick ইত্যাদি।

আজকের এই ব্লগে আমি পর্যায়ক্রমিক ডেসক্রিপশন দিব এই ব্লগিং করা নিয়ে।ব্লগিং ও আপনার প্রফেশন।অবশ্যই লেখাগুলোর সাথে থাকবেন। নিশ্চয়ই অনেক কিছু শিখতে পারবেন। যেমনঃ কিভাবে ব্লগিং করবেন,কিভাবে ব্লগ সাইট খুলবেন সবকিছু আমি ডিটেলস এ বলছি।

কিভাবে ব্লগ সাইট খুলবেনঃ

 আপনি যদি ব্লগিং করতে চান এবং ব্লগ সাইট খুলতে চান তাহলে আপনি সম্পূর্ণ ফ্রি তে খুলতে পারবেন। গুগোল ব্লগার আপনাকে সেই সুযোগ করে দিচ্ছে। প্রথমত আপনার ব্রাউজারে যেতে হবে। ব্রাউজার এ গিয়ে Google blogger লিখে গুগোল এ সার্চ দিতে হবে। অথবা এই লিংকে ক্লিক করার মাধ্যমে সরাসরি চলে যান। সেখানে আপনি আপনার জিমেইল একাউন্ট সাইন ইন করতে পারেন।

 সাইন ইন করার পর আপনাকে নতুন একটি ব্লগ সাইট খুলতে বলবে। প্রথমত আপনাকে ব্লগারএ ব্লগের নামটি লিখতে বলবে। আপনি আপনার পছন্দের নামটি দিতে পারেন। তারপর আপনাকে আপনার ব্লগের         URL দিতে বলবে।যেমনঃhttps://earningtutorialbdt.blogspor.com।  সেখানে ব্লগের একটি URL এড্রেস দিতে পারেন। আপনি চাইলে আপনার ব্লগের নামের সাথে অ্যাডজাস্ট করে URL দিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে অবশ্যই যাতে URL টি এভেইলেবল থাকে সেটি দেখবেন। যদি এভেইলেবেল না থাকে তাহলে  আপনার ইউ আর এল গ্রহণযোগ্য হবে না। আর যদি অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে নিচে লেখা থাকবে যে ইউ আর এল টি এভেইলেবেল।তখন আপনি সেই URL টি দিতে পারবেন। তারপর Create Blog অপশনটিতে ক্লিক করে আপনি আপনার নতুন ব্লগ খুলে ফেলুন।

ব্লগ খোলার পর কি করবেনঃ

ব্লগ খুলে ফেলার পর আপনি এই ব্লগে আপনার গল্পকবিতা, আপনার লেখালেখি দিতে পারেন। একটি সুন্দর ব্লগ সাইটে ফটোগ্রাফি, মুভি ডাউনলোড, ওয়েবসাইট রিভিউ, অনলাইন শপিং এ সব কিছু থাকে।ভালো ব্লগিং সেন্স কে কাজে লাগিয়ে আপনার ব্লগ সাইট কে সাজাতে পারেন। অথবা লেখালেখির মাধ্যমে নতুন নতুন কন্টেন্ট ব্লগে পাব্লিস করতে পারেন।

 বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ তবে মনে রাখবেন যখন আপনি ব্লগ লেখালেখি শুরু করবেন তখন SEO ব্যবস্থাপনাকে কাজে লাগিয়ে ব্লগিং করুন। 

কিভাবে পোস্ট সাবমিট করবেনঃ

প্রথমে আপনাকে ব্লগার ওয়েবসাইট অবশ্যই যেতে হবে। সেখানে আপনি আপনার জিমেইল সাইন ইন করে আপনার ব্লগে ঢুকবেন। আপনার ব্লগে ঢোকার পরে ব্লগে থাকা এরো বাটনে ক্লিক করে, Posts অপশনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর আপনাকে নিচের চিত্রের মত একটি পেজ আসবে। সেখানে প্লাস বাটনে ক্লিক করলে পোস্ট তৈরি করার একটি অপশন বা ইন্টারফেস চলে আসবে।

বশ্যই পড়বেনঃ#ফ্রী মোবাইল রিচার্জ সাইট।রেজিষ্ট্রার করলেই ২০ টাকা ফ্রী রিচার্জ।Grathor

#ইমেইল পড়ে, এড দেখে আয় করুন হাজার হাজার টাকা।পেমেন্ট বিকাশে।গ্রাথর

তারপর আপনাকে পোষ্টের টাইটেল দিতে হবে।নিচের চিত্রে লাল দাগাঙ্কিত জায়গায় টাইটেলএবং পোষ্টের সম্পূর্ণ ডেস্ক্রিপশন দিতে হবে নীল দাগাঙ্কিত জায়গায়। তারপর একদম ডান পাশে থাকা এরো বাটনে ক্লিক করে পাবলিশ অপশনে ক্লিক করলে সাথে সাথে আপনার পোস্ট পাবলিশ হয়ে যাবে। পোস্ট পাবলিশ হয়ে গেলে আপনি সেখান থেকে দেখতে পারবেন আপনার পোস্টটি।

Google Blogger App:তাছাড়া আপনি চাইলে গুগোল ব্লগার ইন্সটল করতে পারেন।এপটি ইন্সটল করতে এখানে ক্লিক করেন।

 এই অ্যাপটি ইন্সটল করার সুবিধা হলঃ

১)আপনি অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করে পোস্ট পাবলিশ, এডিটিং সবকিছু করতে পারবেন।

২)যেকোনো পোস্টের লেভেল অ্যাড করতে পারবেন। 

৩)ওয়েবসাইট ঘাটাঘাটি করার দরকার পড়ে না।এপে ক্লিক করলেই চলে।

৪)কাজে গুগোল ব্লগার অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল করে সেখান থেকে যেভাবে বলেছে সেভাবে সহজেই কোন পরিশ্রম ছাড়াই ওয়েবসাইট ঘাটাঘাটি না করে আপনি আপনার পোস্টটি তৈরি করতে পারেন।

৫)যখন ভালো লাগে ঠিক তখনই পাবলিশ করতে পারবেন, চাইলে অনেক গুলো পোস্ট তৈরি করে একসাথে পাবলিশ করতে পারবেন।

৬)পোস্টে সরাসরি  গিয়ে ইমেজ অ্যাড করতে পারবেন। সেই অপশন সেখানে আছে।

যদি গল্প, কবিতা, নাটক  ছোট গল্প অথবা একজন ক্ষুদ্র সাংবাদিক হিসেবে কাজ করতে চান, বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত গুলোকে মানুষের মাঝে সাজিয়ে গুছিয়ে লিখতে চান তাহলে আপনি ব্লগিং করা শুরু করতে পারেন। আপনার নিজস্ব ব্লগ থেকে আপনি নিজেকে তুলে ধরতে পারেন। অথবা যদি আপনার শখ হয়ে থাকে হয়ে থাকে তাহলে সেই ইচ্ছাকে পূরণ করতে পারবেন।এবং আপনার লেখা গুলোকে ব্লগিংয়ে রূপান্তর করে প্রফেশনাল ব্লগার হতে পারবেন।

ভালো লাগলে লাভ অপশনে ক্লিক করবেন। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে শেষ করছি। ভালো থাকবেন।

চলবে…..

Advertisement
7 Comments

7 Comments

  1. Naimul Islam

    Naimul Islam

    July 14, 2020 at 6:44 pm

    সম্পুর্ন পড়বেন।আরো পর্ব আসবে।

  2. Mojammal Haque

    Mojammal Haque

    July 14, 2020 at 6:54 pm

    Hmm

  3. Tanvir Hossin

    Tanvir Hossin

    July 14, 2020 at 8:12 pm

    Hmm

  4. Md Golam Mostàfa

    Md Golam Mostàfa

    July 14, 2020 at 8:13 pm

    হুম, বুঝলাম।

  5. Maria Hasin Mim

    Maria Hasin Mim

    July 14, 2020 at 8:15 pm

    Khub valo likhechen

  6. mis sumi aktar

    mis sumi aktar

    July 14, 2020 at 8:54 pm

    Tnx

  7. Bayazid Alam

    Bayazid Alam

    July 15, 2020 at 12:03 am

    খুব ভালো। আরো লিখতে থাকুন

You must be logged in to post a comment Login

Leave a Reply

আউটসোর্সিং

অনলাইন ইনকাম সিটি (online income city) থেকে ইনকাম করতে চাইলে পোস্টটা মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

Mojammal Haque

Published

on

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম

একটা বিষয় আমাদের সকলেরই জানা আছে যে অনলাইনে কখনল বিনামূল্যে ইনকাম করা যায় না। যা করা যায় তা নাম মাত্র ইনকাম। এই ইনকাম দিয়ে হাত খরচ চালানো অসম্ভব। অনলাইন থেকে সত্যিকারের টাকা ইনকাম কখনই ফ্রিতে হয়না। সেজন্য আমি সব সময় এমনকি এখনও পর্যন্ত অনেক সাইট এবং এপ্স খোঁজাখুজি করেছি এবং করছি। আশায় থাকি কিছুটা ইনকাম করার জন্য হলেও যদি কিছু একটা রাস্তা খুঁজল পাই। কিন্তু হায়, ফলাফল একেবারেই শূন্য। যদিও বা অল্প কিছু ইনকাম পাওয়া যায় তাও এক বা দুইবার ১০ থেকে ২০ টাকা পেমেন্ট করে আজীবনের জন্য উধাও হয়ে যায়।

এজন্য আমি বহু সময় ধরে অনলাইনে এমন একটা এপ্স বা সাইট খুঁজছিলাম যেখান থেকল সত্যিকার অর্থে ইনকাম করা যায়। এজন্য আমি অনেক অনেক ফেসবুক ও টেলিগ্রাম গ্রুপেও জয়েন হয়ে থাকতাম শুধুমাত্র ভালো একটা সাইট বা এপ্সের জন্য। অবশেষে আল্লাহর দয়ায় আজ আমি একটা গ্রুপের এক অনলাইন বড় ভাই এর সাথে যোগাযোগ করি এবং তার সাথে কথা বলতে বলতে এক পর্যায়ে তিনি আমাকে বলল যে, ইনকাম চাইলে তুমি Survey করে ইনকাম করতে পার। এখান থেকে ইনকামের যথেস্ট প্রমানও দিল। আমি প্রমানগুলল দেখলাম এবং আমার কাছে মনে হলো এর একটাও ফেক নয়।

তারপর আমি তাকে প্রশ্ন করলাম ও বললাম কাজটা করতে গেলে আমাকল কি কি করতে হবে। অনলাইনের বড় ভাই আমাকল বলল যে আমাকে আমেরিকার আইপি কিনে কাজ করতে হবে। এটা শুনে আমি বললাম আইপির দাম কত হতে পারে। তিনি বললেন, ৫০০ টাকা প্রতি ১৫ দিনের জন্য। সেই হিসেবে ১০০০ টাকা প্রতি মাস।

এটা জানার পর এখন আমি একটু ভিন্নভাবে চেস্টা করার চিন্তা করলাম। আর ভাবলাম যদি আমি একটু চেস্টা করি তাহলে তো নিজেই এ কাজটা করতে পারি। এর পর অনেক কৌশলে ভাইয়ের থেকে ওই সাইট বা এপ্সটার নাম জিজ্ঞেস করে নিলাম। সে অনেক সময় নিল। অনেক সময় নিয়ে অবশেষে আমাকে নামটা বলে দিল। তখন আমি নিজেই এপ্সটি প্লেস্টোর থেজল ডাউনলোড করলাম। এর বর্তমান রিভিউ ও রেটিংস দেখলাম।

এবার আসলো ভিন্ন ধরনের চিন্তা….
ডাউনলোড করে ইনসটল ও পরের কাজ সবকিছু শেষে আমি চেস্টা করলাম একই কাজ আইপি না কিনে করা যায় কি না। যেই ভাবনা সেই কাজ, আলহামদুলিল্লাহ আমি এটাতে সফল হলাম ও ভালল একটা ফলাফলও পেলাম। কিছু কিছু কাজ করে আমি এখান থেকে কিছু পয়েন্ট অর্জন করলাম। আর বুঝতে পারলাম যে এখানল চেস্টা করলেই হবে।

এই সাইটে অনেক রকমের কাজ আছে যেগুলো সম্পন্ন করার মাধ্যমে ভালো পরিমানে আয় করা যায়। কাজগুলো দেখে নিনঃ

১। survey complete করা।

২। PTC Add View করা।

৩। ভিডিও বিজ্ঞাপন দেখা।

৪। ভিন্নতা হলো এখানে রেফারে কোন বোনাস নেই। কাজ করে টাকা নিতে হবে।

সবকিছু দেখা ও জানার পর এটা আমার বিশ্বাস যে এখানে কাজ করলে খুবই ভাল কাজ হবে। তবে অবশ্যই কাজের গুরুত্ব দিতে হবে। তার চাইতেও বড় কথা হলো টিম হয়ে একসাথে কাজ করলে বেশি বেশি ইনকাম করা যাবে। যেমন ধরুন, আমি একটা সার্ভে সঠিকভাবে পূরন করেছি তখন আমি সেটার উত্তর গ্রুপে দিয়ে দিব যাতে অন্যরাও সঠিকভাবে সার্ভেটি পূরণ করতে পারে। আবার অন্য কেউ করলেও সেটি শেয়ার করবে যাতে আমরা সবাই মিলে সঠিকভাবে কাজটি করতে পারি।

এই এপ্সটিতে কাজ করলে ইনকাম হয় যদি সঠিকভাবে কাজ করা যায়। এই সাইটে বেশিরভাগ লোকি টাকা ইনভেস্ট করে তারপর কাজ করে। আমি একটু ভিন্নভাবে চেস্টা করছি যাতে টাকা খরচ না করে আমরা সকলেই কাজ করতে পারি।
এখানে কাজ করতে জয়েন করার গ্রুপটি নিচে দেওয়া। এই গ্রুপে যেয়ে সবাই জয়েন হয়ে নিন।

Facebook.com/online income city

জয়েন হয়ে নিয়ম অনুযায়ী কাজ করুন ও ইনকাম করুন। শুভ কামনা সবার জন্য।

Continue Reading

আউটসোর্সিং

আর্থিক স্বাধীনতা পেতে থাকুন cointx24 – এর সাথে।

Mojammal Haque

Published

on

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম

আপনি যদি আপনার জীবনে আর্থিক স্বাধীনতা চান cointx24 দিয়ে শুরু করুন আপনার অর্থনৈতিক স্বাধীনতার প্রথম ধাপ। আপনি যদি নির্ভরযোগ্য এবং লাভজনক বিনিয়োগের সন্ধান করে থাকেন তাহলে এটিই হবে অন্যতম একটি মাধ্যম। cointx24 বিটকয়েন এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা এবং লাভজনক বাণিজ্যের ভিত্তিতে সর্বাধিক মানের বিশ্বাসের সম্পদ ব্যবস্থাপনা সরবরাহ করে। অন্য কোনও বিশ্বব্যাপী আর্থিক বাজার নেই যা bitcoin এর চেয়ে বড় দামের। একমাত্র cointx24 দৈনিক লাভেড গ্যারান্টি দিতে পারে। সহযোগিতা জোরদার করার জন্য প্রস্তাবিত পদ্ধতিগুলিতে যে কেউ cripto currency ব্যবহার করে এবং এর চমৎকার সম্ভাবনা সম্পর্কে জেনে তা গ্রহণ করবে। আপনার আমানত একটি চলমান ভিত্তিতে কাজ করছে এবং তাৎক্ষণিকভাবে মুনাফা প্রত্যাহারের ক্ষমতা দিয়ে প্রতিদিন মুনাফা অর্জন করে। এটি বাজারে প্রতিটি একক উচ্চ লাভের বিনিয়োগ প্রোগ্রামকে পরাস্ত করার চেষ্টা করে। আপনিও এই সংস্থায় যোগদান করুন এবং উচ্চ মুনাফা অর্জন শুরু করুন!

কিছু নির্দিষ্ট প্লানিং করে তারা এই মুনাফা বন্টন করে থাকে। বন্টন নীতিগুলো দেখে নিন।

পরিকল্পনা – ১ঃ
১ দিনের পরে ২০%
সর্বনিম্ন আমানত ৩০ ডলার।
সর্বোচ্চ জমা ৫০০ ডলার।

পরিকল্পনা – ২
২ দিনের পরে ৫০%
সর্বনিম্ন আমানত ১০০০ ডলার।
সর্বোচ্চ জমা ৫০০০ ডলার।

পরিকল্পনা – ৩
৩ দিনের পরে ৮০%
সর্বনিম্ন আমানত ১০০০০ ডলার।
সর্বোচ্চ আমানত ২০০০০ ডলার।

পরিকল্পনা – ৪
১ দিনের পরে ১০০%
সর্বনিম্ন আমানত ৫০০০০ ডলার।
সর্বাধিক আমানত আনলিমিটেড।

(এই সংস্থা ক্রিপ্টো-মুদ্রার ক্লাউড মাইনিংয়ের জন্য কম্পিউটিং সক্ষমতা ভাড়াতে বিকল্প কিছু প্রস্তাবও করে)

আরও বিস্তারিত তথ্যের জন্য তাদের প্রশাসক এবং সহায়তা দল সর্বদা অনলাইনে আপনাকে যে কোনও সময়ে যে কোনও বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি থেকে মুক্তি দিতে সহায়তা করে থাকে।

এখানে একাউন্ট করতে এই সাইটে যান-
cointx24 এটি লিখে সার্চ করুন।

এখানে যাওয়ার পর নিয়ম ও নির্দেশনা অনুযায়ী একাউন্ট এই সাইটের সকল সুবিধাগুলো নিতে পারেন।

Continue Reading

আউটসোর্সিং

Easy  job অ্যাপ থেকে ইনকাম করুন। প্রতিদিন এবং বিকাশ এ পেমেন্ট।

সুখী মানুষ

Published

on

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।

গ্রাথোর এর আরো একটি চমৎকার পোস্ট এ আপনাদের সবাই কে স্বাগতম। আজকে আমি আপনাদের সাথে একটা আর্নিং অ্যাপস নিয়ে আলোচনা করব। এই অ্যাপস থেকে প্রতিদিন আপনি 20 থেকে 30 টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এটা হচ্ছে অনলাইন থেকে ইনকাম করার আর্নিং অ্যাপ।

প্রথমে আমি আপনাদের একটা বিষয় জানিয়ে রাখতে চাই। এরকম ক্যাটাগরির যে অ্যাপস গুলো আছে এগুলো অনেকদিন মার্কেটে থাকে না। তবে এই অ্যাপস গুলোতে সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে এখানে আপনি প্রতিদিনের পেমেন্ট প্রতিদিন নিতে পারবেন। যেমন আজকে আমি আপনাদের সাথে যে অ্যাপসটা নিয়ে আলোচনা করব এখানে আপনি মাত্র 10 টাকা হলে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

এই অ্যাপসটা আপনারা প্লে স্টোরে পাবেন না। আপনারা নিচের ডাউনলোড লিঙ্কে ক্লিক করে অ্যাপটা ডাউনলোড করতে পারবেন। অথবা আপনি টেলিগ্রাম গ্রুপে জয়েন হয়ে অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনাদের জন্য ভালো হবে যদি আপনারা ডাউনলোড লিঙ্কে ক্লিক করে সরাসরি আপনার ডাউনলোড করেন।

অ্যাপ ডাউনলোড লিংকঃ- clik for download
রেফার কোডঃ-  01874886553

লিংকে ক্লিক করার পর আপনাকে যেকোন একটা ব্রাউজার এ নিয়ে যাবে। সেখান থেকে আপনি ডাউনলোডে ক্লিক করে অ্যাপটা ডাউনলোড করবেন। আশাকরি এতোটুকু কাজ সবাই করতে পারবেন কারো কোন সমস্যা হবে না।

ডাউনলোড করার পর সবার প্রথমে আমাদেরকে এখানে একাউন্ট করতে হবে। একাউন্ট করার জন্য অ্যাপ টা ওপেন করে সাইনআপ এ ক্লিক করবেন।তারপর আপনার নাম আপনার ইমেইল আপনার মোবাইল নাম্বার পাসওয়ার্ড এবং রেফার কোড দিয়ে সাবমিট করবেন। সাবমিট করার সাথে সাথে আপনার একাউন্ট হয়ে যাবে। পরবর্তীতে আপনি আপনার মোবাইল নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে পারবেন।

এখানে আপনার কাজ শুধু ভিউ করা আর ক্লিক করা।এখানে আপনাকে বারোটা ভিউ করে একটা ক্লিক করতে হবে। বারোটা ভিউ শেষে আপনি ক্লিক করবেন এছাড়া ক্লিক করবেন না। প্রতি কাজের জন্য এখানে দুই টাকা করে পাবেন।

ভিউ করার সময় প্রতিবার আলাদা আলাদা পোস্ট ওপেন করবেন এবং সম্পূর্ণ পোস্ট দেখবেন। আপনি পোস্ট এর উপর থেকে নিচে পর্যন্ত আস্তে আস্তে নিচে নামবেন। ১২ টা ভিউ হয়ে গেলে আপনি যেকোন একটা অ্যাডে ক্লিক করবেন এবং সেখানে এক থেকে দুই মিনিট অপেক্ষা করবেন।। এতোটুকু কাজ একবার করার জন্য আপনি দুই টাকা করে পাবেন।

এই অ্যাপসে আপনি 10 টাকা হলে মোবাইল রিচার্জ নিতে পারবেন। এছাড়া আপনি এখানে 30 টাকা হলে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এখানে পেমেন্ট বিকাশ দেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পেমেন্ট দিয়ে দেওয়া হয়। যেকোনো সমস্যা হলে আপনি তাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে জয়েন হয়ে সাপোর্ট নিতে পারেন।

আশাকরি সবাই সবকিছু বুঝতে পারছেন। কারো কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্টে জানাবেন। ধন্যবাদ সবাইকে আজকের পোস্ট করার জন্য পোস্টটি যদি ভালো লাগে অবশ্যই শেয়ার করবেন। পোষ্টে যদি কোন ভুল হয়ে থাকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আল্লাহ হাফেজ

Continue Reading