Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

ভ্রমণ ও পরিবহন

ভ্রমণপিপাসুরা অল্প খরচেই ঘুরে আসতে পারেন প্রকৃতির অনন্য সৌন্দর্য্য নেত্রকোনার বিরিশিরি থেকে

Maruf hasan Tanim

Published

on

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা। কেমন আছেন সবাই।আশা করি সবাই ভালই আছেন।আমার আজকের পোস্টটি হচ্ছে ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য।আজকে আমি আলোচনা করব নেত্রকোনা জেলার অন্তর্ভুক্ত দূর্গাপুর উপজেলার বিরিশিরি এবং সেখানে অবস্থিত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কালচারাল একাডেমি নিয়ে।পুরো পোস্টটি পড়বেন আশা করি আপনাদের সবার কাছে পোস্টটি ভাল লাগবে।

বাংলাদেশে আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য অনেক পুরনো।আদিবাসীরা অনেক কাল আগে থেকেই এদেশে বসবাস করে আসছে।কিন্তু তাদের সংখ্যা বাংলাদেশের মূল জনসংখ্যার তুলনায় কম।এই সকল ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠী তাদের সংস্কৃতিকে নিজের মধ্যে লালন করছে।তাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণে ও উন্নয়ন এর জন্য বাংলাদেশ সরকার প্রতিষ্ঠা করেছে “ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কালচারাল একাডেমি “।

এই একাডেমি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৭৭ সালে।।এটি ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনা জেলার দূর্গাপুর উপজেলায় অবস্থিত।এখানে বিভিন্ন উপজাতি যেমন হাজং,গারো,ডালু,বানাই,কোচ বসবাস করে আসছে। কালের বিবর্তনে তাদের সংস্কৃতি হারিয়ে যাচ্ছে।কোন কোন উপজাতির সংস্কৃতি পুরোপুরি হারিয়ে গেছে।বর্তমানে “ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কালচারাল একাডেমি ” নামক প্রতিষ্ঠানটি এসব ক্ষদ্র নৃগোষ্ঠীদের মুল্যবান সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণ করে আসছে।এছাড়াও সেখানে চিনামাটির পাহাড় ভ্রমন করতে পারবেন।অনন্য সুন্দর এই পাহাড় আপনাকে মুগ্ধ করবে।সেক্ষেত্রে আপনাকে বিরিশিরি একদিন অবস্থান করতে পারলে ভাল হয়।তাহলে ভালভাবে ঘুরে আসতে পারবেন।
আবাসনঃকালচারাল একাডেমির নিজস্ব আবাসন ব্যবস্থা রয়েছে।এছাড়া উপজেলা ডাক বাংলো রয়েছে।এক্ষেত্রে আপনাকে আগে থেকে যোগাযোগ করে যেতে হবে।

যেভাবে যাবেনঃআপনারাও নিজের পরিবার অথবা বন্ধুদের সাথে গিয়ে ঘুরে আসতে পারেন এই একাডেমি। একানে বেশী কষ্ট করতে হবে না।।ঢাকার মহাখালী থেকে সরাসরি দূর্গাপুরের বাস পাওয়া যায়।এক্ষেত্রে আপনার ভাড়া গুনতে হবে ৩৫০ টাকা।এছাড়া প্রথমে আপনাকে ময়মনসিংহ যেতে হবে। ময়মনসিংহ পর্যন্ত ভাড়া ১৫০-২২০ (বাস ভেদে)।সেখান থেকে ময়মনসিংহ -গৌরীপুর ব্রীজ থেকে সিএনজি দিয়ে সহজেই পৌছে যাবেন দুর্গাপুর।সিএনজি ভাড়া ১২০ টাকার মত। এছাড়া যারা বাস পছন্দ করেন না তারা ট্রেনে করে যেতে পারবেন।ঢাকার কমলাপুর অথবা বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ট্রেনে নেত্রকোনা পর্যন্ত যেতে পারবেন।সেখান আবার সিএনজি দিয়ে দূর্গাপুর যেতে হবে।দুটি ইন্টারসিটি মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস এবং হাওর এক্সপ্রেস আর একটি লোকাল কমিউটার ট্রেন র‍য়েছে।

সময়সূচিঃবছরের যেকোনো সময় যেতে পারবেন।।তবে শুক্রবার আর শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। অর্থাৎ রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার অফিস চলাকালীন সময়ে ভ্রমন করতে পারবেন।

যারা ” ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কালচারাল একাডেমি ” এবং বিরিশিরিতে চিনামাটির পাহাড় দেখতে ইচ্ছুক তাদের জন্য এই তথ্যগুলো সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।কোন ভুল ত্রুটি থাকলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

Advertisement
18 Comments
Subscribe
Notify of
18 Comments
Oldest
Newest
Inline Feedbacks
View all comments
Nila Islam

gd.

Reman Roy Tripura

Nice

Sakib khan

Nc

Utsa Kumer

wow

Tamim Ahmed Sakib

Nice to

Ratul Foysal

Gd post

Tamim Ahmed Sakib

Gd

Utsa Kumer

nc

Nemon Rudra

Super

Muktadir Hasan

wow

firoz alam niloy

Supper

Avijit Sharma

valo

Fozle Rabbi Deen

I will try

anik adam

ওকে

Tntu Karmokar

rm

Md Golam Mostàfa

সুন্দর !!

Anisur Rahman

good

Sayem Ahmed

Dekhi ki aita

ভ্রমণ ও পরিবহন

দেশের বাস রুটের সার্ভিস মাস্টারের বিস্তারিত তথ্যাবলি জানুন

Sheikh Sahin

Published

on

আসসালামুয়ালাইকুম পোস্ট ভিউয়ার্স আশা করি আল্লাহর রহমতে আপনারা সকলেই আলহামদুল্লিলাহ ভালো আছেন। আমার আজকের এই পোস্ট এ আমি তুলে ধরছি দেশের পরিবহন জগতে নন এসি কোচ দিয়ে সার্ভিস দিয়ে যাওয়া সার্ভিস মাষ্টার বাস কোম্পানির সকল তথ্যাবলি। মনোযোগ সহকারে পোস্ট টি পড়বেন যেনো ট্রান্সপোর্ট রিলেটেড সকল কিছু সম্বন্ধে জানতে পারেন।

শুধুমাত্র Non এসি বাস দিয়ে বাস দিয়ে সার্ভিস দিয়েই তারা বিভিন্ন এসি বাস কোম্পানির সার্ভিস কেও Beat করে ফেলে।এই সার্ভিস মাষ্টারের নাম হচ্ছে Unique Service.

সেই ১৯৮৮ সালের কোনো এক শুভক্ষণে হাজী শামসুল হুদা সাহেবের জবানে উচ্চারিত হয়েছিলো যাত্রীসেবার শপথবাক্য।সেই যে শুরু,আজও দুর্গম-সুগম পথ অতিক্রম করে এবং এখনো যাত্রীসেবায় সেবারত এই সার্ভিস।

এখন আপনাদের মাথায় প্রশ্ন আসতে পারে যে –

ইউনিক কেনইবা সার্ভিস্মাষ্টার বাস কোচ কোম্পানি হিসেবে খ্যাত।-মূলত এই ইউনিকই একমাত্র বাস কোচ সার্ভিস যারা তাদের বহরে নন এসি বাসেও যাত্রীসেবাতে নিজেদের পার্ফরমেন্স অক্ষুণ্ণ রেখে তারা দেশের মধ্যে তাদের সার্ভিস Provide করে যাচ্ছে।

এই ইউনিক এর পথচলা ১৯৮৭ সালে জনাব হাজী মোঃ- শামসুল হুদার মালীকানাধীন ইউনিক সার্ভিস নামে HINO 172 বাস দিয়ে যাত্রীসেবা দিয়ে যায়।প্রথম থেকেই তাদের লক্ষ ছিলো কীভাবে যত্রীসেবার মান বাড়ানো ও উন্নয়ন করা যায়,যে ধারা এখনো তারা অব্যাহত রেখেছে।বর্তমানে তাদের বহরে সব নন এসি হিনো একে ১জে বাস থাকলেও কোনো এক সময়ে ইউনিকের বহরেও ছিল এসি বাস।সম্ভবত ১৯৯২ সালে ইউনিক প্রথম এসি সার্ভিস চালু করে এবং যেটা ছিলো হুসাইন,গ্রীনলাইন,কেকে,সোহাগের পরে দেশের মধ্যে ৫ম তম এসি বাস।যদিও মাত্র ৩ মাস চলার পর বাসগুলোকে Shohagh Paribahan এর কাছে বিক্রয় করে দেয়।তারপর থেকে তাদের ব্যানারে আর কোনো এসি বাস যুক্ত হয় নি।

বর্তমানে ইউনিক সার্ভিস একক ভাবে দেশের ৭ টি রুটেও জয়েন ভেঞ্চারে ৪ টি রুটে সার্ভিস দিয়ে থাকে।চলুন জেনে নেওয়া যাক বাসগুলো কোন রুটে এবং কত টাকা ভাড়াতে সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছেঃ-

ইউনিক সার্ভিসেরঃ-

  • ঢাকা-সিলেট রুটের ভাড়াঃ- ৪৭০ টাকা।
  • ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের ভাড়াঃ- ৪৮০ টাকা।
  • ঢাকা-কক্সবাজার রুটের ভাড়াঃ- ৮০০ টাকা।
  • সিলেট-চট্টগ্রাম রুটের ভাড়াঃ- ৭০০ টাকা।
  • ঢাকা-বান্দরবন রুটের ভাড়াঃ- ৬২০ টাকা।
  • ঢাকা-রাঙ্গামাটি রুটের ভাড়াঃ- ৬২০ টাকা।
  • ঢাকা-দর্শনা রুটের ভাড়াঃ- ৪৫০ টাকা।
  • চট্টগ্রাম-সিরাজগঞ্জ রুটের ভাড়াঃ- ৭০০ টাকা।
  • চট্টগ্রাম-বেনাপোল রুটের ভাড়াঃ- ৯০০ টাকা।
  • চট্টগ্রাম-যশোর রুটের ভাড়াঃ- ৯০০ টাকা।
  • চট্টগ্রাম-দর্শনা রুটের ভাড়াঃ- ৯০০ টাকা।

এই ইউনিক সার্ভিস এর বিশেষ দিকটি হচ্ছে তাদের বহরে কোনো প্রকার পুরাতন গারি নেই।নিয়মিত তারা তাদের বহরে নতুন গাড়ি যোগ করে থাকে।অধিকাংশ বাসের সীট লেগরেস্ট যুক্ত এবং ৩৬ সীটের হওয়ায় লেগস্পেসও অনেক যার ফলে জার্নি হয়ে থাকে আরামদায়ক।তাদের বহরে সবগুলো বাসই হিনো কে ১জে বাস।

 

তো এতক্ষনে আপনারা হয়তোবা বুঝেই গিয়েছেন এই ইউনিক পরিবহনের সার্ভিস মাষ্টার হওয়ার কারণ,আশা করি আপনারা এই বাস গুলোতে জার্নি করেছেন এবং যদি করে থাকেন তাহলে আমাকে আপনাদের জার্নি এক্সপেরিয়েন্সটি আমার সাথে শেয়ার হবেন।ট্রান্সপোর্ট রিলেটেড তথ্যাবলি জানতে হলে আমার সাথেই থাকবেন।

 

Continue Reading

ভ্রমণ ও পরিবহন

জেনে নিন বাংলাদেশ ও বিশ্ব বিমানের বিস্তারিত খবর

Sheikh Sahin

Published

on

আসসালামুয়ালাইকুম ভিউয়ার্স।আশা করি সকলেই আল্লাহর রহমতে আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছেন।

আমার আজকের এই পোস্ট টি তে আমি তুলে ধরলাম News and updates of Bangladesh & Global Airlines. আশা করি সকলেই পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পরবেন এবং কিছু তথ্যাবলি তে সাহায্য প্রয়োজন হলে কমেন্টবক্স এ কমেন্ট করবেন।

 

মহামারী কোভিড-১৯ এর জন্য টানা ৬ মাস বন্ধ থাকার পর আগামী পহেলা অক্টোবর থেকে ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুট এর ফ্লাইট চালু হতে যাচ্ছে।The National Flag Carrier এর আওতায় Oparate হবে ফ্লাইট গুলো এবং প্রতি সপ্তাহে একটি করে  (বৃহস্পতিবারে) ফ্লাইট ঢাকা-সিঙাপুর-ঢাকা তে চলাচল করবে।

এই ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটের ফ্লাইট যে চলাচল করবে তার সঠিক তথ্য এবং কনফার্মেশনটি Bangladesh Biman এর Managing Direct and CEO Mokabbir Hossain; সোসিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে জানিয়েছেন।তাছাড়া আগামী ৪ই অক্টোবর রোজ রোববার থেকে SOUDIA AIRLINES এর টোকেন দেওয়া হবে এবং ৪ই অক্টোবর থেকেই বিশ্ব মুসলিমবাসী ওমরাহ করতে পাড়বেন।

অন্যদিকে গত ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০২০ এ আকাশ বাতাস কম্পিত করে দেশের মধ্যে আগমন করে C130 ZET PLANE. নিয়মানুযায়ী তাদের অভ্যররথণা জানায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনী।বিমানগুলো তৈরি হয়য় যুক্তরাষ্ট্রে;তবে বাংলাদেশ এই বিমানগুলো ক্রয় করে যুক্তরাজ্য থেকে।একই মডেলের আরও ২ টি বিমান শিঘ্রহই আসবে বাংলাদেশ এ।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ঃ৩০ এ এই বিমানটিকে বিমান বাহীনি ঘাটি বঙ্গবন্ধুতে নিয়ে আসে তারা। সহকারী বিমান বাহীনি প্রধাণ বলেন “অত্যাধুনিক এই বিমান যুক্ত হও্যায় আরও একধাপ এগিয়ে গেলো বাংলাদেশ বিমান।যুক্তরাজ্য থেকে মোট পাচটি প্লেন আমদানী করা হয়েছে যার ৩ টি প্লেন এসে গিয়েছে আর বাকি দুটিও আসছে শীঘ্রহই।

 

এই ছিলো আজকের বাংলাদেশ বিমান এর বিস্তারিত খবর।এখন চলুন শুনে নেই এক মর্মান্তিক দূর্ঘটনার খবর।

গত ২৫শে সেপ্টেম্বর ইউক্রেন  এ সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়।এতে ২ জন আহত হয় এবং ২৫ জন নিহত হয়েছে।ইউক্রেন এর চুগিয়েফ নামক শহরের কাছে মোট ২৮ জন আরোহী নিয়ে Crash করে Andronov AM26 নামক প্লেন টি।প্লেনটিতে থাকা নিহতরা সকলেই খারগিসা বিমান বাহীনির শিক্ষার্থী।চুগিয়েফ শহরের ২ কিলোমিটার পূর্বেই দূর্ঘটনাটি সংগঠিত হয়।

এই মর্মান্তিক দূর্ঘটনাটির জন্যে ইউক্রেন সরকার সহ পুরো বিশ্ববাসী গভীরভাবে শোকাহত।

 

এই পর্যন্তই ছিলো আজকের বিমান বিষয়ক আপডেট ও নিউজ।আশা করি ভালো লেগেছে আপনার এই পোস্ট টি।দেশের ট্রান্সপোর্ট বিষয়ক সব ধরণের তথ্যাবলি জানতে আমার সাথেই থাকবেন।

ধন্যবাদ।

Continue Reading

ভ্রমণ ও পরিবহন

জেনে নিন ইন্দোনেশিয়ান দোতলা বাসটির সকল তথ্য।

Sheikh Sahin

Published

on

আমার গত পোস্ট টিতে আমি তুলে ধরেছিলাম “দেশের মধ্যে আসা নতুন দোতলা এসি বাস” নামক নিউজের বিস্তারিত তথ্য এবং তখন আমি বলেছিলাম ইন্দোনেশিয়া থেকে আসা এই Laksana Multi Axcle SCANIA K410 Double Decker বাস গুলোর মধ্যে কী কী সুবিধা রয়েছে বাসগুলোর ডিলার কে বা কারা ও বর্তমানে বাসগুলো কোথায় অবস্থিত আছে তা নিয়েই বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করবো। আশা করি সকলেই এই পোস্ট টি পড়বেন।তো চলুন শুরু করা যাক।

About the features of Indonessian Laksana Multi Axcle K410 Double Decker Bus:-

প্রথম পোস্ট এ যেমনটি বলা হয়েছিলো  যে বাসগুলো Scania Multi Axcle K410 চ্যাসিস এর উপর দোতলা বডি দেওয়া হ।বাসটি ৪১০ হর্স পাওয়ার সম্বৃদ্ধ।বাসটিতে দেওয়া হয় Deep Silver (Metallic/Powdercoat) Colour. তাছাড়াও বাসটির ফ্রন্ট এন্ড রিয়ার লাইট গুলো সবচেয়ে আকর্ষণীয়,বাসের ইঞ্জিন টি পেছনে স্থাপন করা হয়েছে।

বাসগুলোর ইন্টারিয়র বা ভেতরের লাইটিং সিস্টেমটি অন্যান্য বাস থেকে সম্পুর্ণ আলাদা ও আকর্ষণীয়।এই বাসগুলোর লোয়ারডেক অর্থাৎ নিচের তলায় ১১ টি ও উপর তলায় ৩৪ টি মিলিয়ে মোট ৪৫ টি সিট রয়েছে ও সাথেই রয়েছে একটি স্লিপিং বেড.৪৫ সিটের এই বাসটি হচ্ছে বিজনেস ক্লাস বাস যেখানে বিজনেস ক্লাস বাস বলতে বোঝানো হয়য় বাসের এক পাশের row তে একটি করে সিট এবং অপর পাশে থাকে দুটি করে সিট। বাসগুলো যখন থেকে দেশের রুটে তাদের যাত্রীসেবা দেওয়া  শুরু করবে তখন হয়তোবা সত্যিই  দেশের সড়ক পথে যাত্রীরা বিমানের ছোয়া পেয়ে থাকবে।

 

Indonessian Laksana SCANIA SR2 Multi Axcle K410 Double Decker বাসগুলোর ডিলার যথাক্রমে ইন্দোনেশিয়া থেকে লাকসানা কোম্পানি এবং বাংলাদেশের INNOVATIVE MOTORS. এখন প্রশ্ন আসতে পারে যে, “এই ইনোভেটিভ মটরস আবার কে?” 

তো এই ইনোভেটিব মটরস হচ্ছে সোহাগ পরিবহন এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান এবং দেশের একমাত্র Scania Bus এর ডিলার। মহামারী কোভিড-১৯ এর জন্যে আসতে পারছে না ইন্দোনেশিয়া থেকে বাকি ৮ ইউনিট বাস।বাসগুলো তাই ইন্দোনেশিয়ার লাকসানা শোরুমে অবস্থিত রয়েছে এবং কবে দেশে আসবে তা নিয়ে কেউই কিছু বলতে পারে না।

তবে এখনো বাসগুলো কোন ব্যানারে চলবে বা কোন বাস অপারেটরের নামে ও কোন রুটে চলাচল করবে তাও কেউ জানে না।কিন্তু অনেকেই বলছে যে বাসগুলো দেশের নামকরা বাস ট্রান্সপোর্ট সেক্টর সোহাগ পরিবহনের হয়ে দেশে যাত্রীসেবা দিয়ে যাবে। তবে কেউই এই ব্যাপারে সঠিক জানে না।

এই ব্যাপারে সঠিক তথ্যাবলি জানতে পারলে আপনাদের কাছে আবারও পোস্টের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

ততক্ষণ আমার সাথেই থাকবেন।

ধন্যবাদ

Continue Reading






গ্রাথোর ফোরাম পোস্ট

Mojammal Haque
অনুরোধ
Saleh Mohammed
কমেন্ট