সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ, ভ্রমণের সেরা ৫ টি কারণ

আসসালামু আলাইকুম পাঠকবৃন্দ। কেমন আছেন সবাই! আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভাল আছি। আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো- সাজেক সম্পর্কে, সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ, ভ্রমণের সেরা ৫ টি কারণ। চলুন শুরু যাক তাহলে-

সাজেক সম্পর্কে কিছু কথা

বাংলাদেশের অপরুপ সৌন্দর্যের মধ্যে অন্যতম একটি পর্যতন কেন্দ্র হলো সাজেক ভ্যালি। প্রকৃতির এক অপরুপ মায়ায় তৈরি হয়েছে সাজেক ভ্যালি। সাজেক ভ্যালি বাংলাদেশ এর পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের রাঙামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলায় অবস্থিত। সাজেক ভ্যালি রাঙামাটি জেলার সর্বউওরে মিজোরাম সীমান্তে অবস্থিত। বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে সেরা হিসেবে এটি পরিচিত। কেননা এর প্রতিটি স্থান আপনাকে মুগ্ধ করে তুলবে নিমিষেই। সাজেক বাংলাদেশের আয়তের দিক দিয়ে অনেক বড়। যার আয়তন প্রায় ৭০২ বর্গমাইল।

সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ

এটি উচ্চতায় প্রায় ১৮০০ ফুট উচ্চ। তাই সাজেক থেকে প্রায় বাংলাদেশের নানান পাহাড় ও পর্বত দেখা যায়। সেখানে প্রতিদিন বিকালে সূর্য তার রঙ বদলে নানান রঙ ধারণ করে। তাই সাজেক ভ্যালি পর্যটনের স্থানের দিক দিয়ে অন্যতম। এখানে প্রতিবছর নানান স্থান হতে পর্যটকরা আসে ঘরতে। পর্যটকদের জন্য রয়েছে থাকার ব্যবস্থা। এছাড়াও রয়েছে নামান ধরনের সুযোগ সুবিধা। সাজেক যেতে কত টাকা খরচ হবে, কিভাবে আপনি সাজেক যাবেন, কখন সাজেক যাওয়া বেশ ভালো হবে এসব নিয়ে নিচে আমি বিস্তারিত আলোচনা করবো। বান্দরবানের দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ

আপনি চাইলে বাংলাদেশ এর সকল অঞ্চল থেকে সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ করতে পারবেন। বাংলাদেশে সব জায়গা থেকে খাগড়াছড়ি যাওয়ার বাস রয়েছে। আপনি যদি সাজেক আসতে চান তাহলে আপনার নিকটস্থ বাস কাউন্টার থেকে টিকেট কেটে খাগড়াছড়ি আসবেন। খাগড়াছড়ি থেকে জিপ গাড়ি ভ্রমণ করে সাজেক যেতে পারবেন। সাজেক যেতে এক এক জায়গা থেকে এক এক ধরনের খরচ। নিচে এসব বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

ঢাকা থেকে সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ

আপনি যদি ষাকা থেকে সাজেক যেতে চান তাহলে আপনাকে আপনার নিকটস্থ হানিফ, সৌদিয়া, শ্যামলী ও অন্যান্য বাস কাউন্টার এ গিয়ে খাগড়াছড়ির টিকেট কাটবেন। যার প্রাইজ নন এসি ৬০০-৭০০ টাকা হবে ও এসি ১০০০-১২০০ টাকা হবে। তারপর খাগড়াছড়ি থেকে আপনি জিপ গাড়ি করে সাজেক যেতে পারবেন। জিপ বা চান্দের গাড়ি করে গেলে দিনে গিয়ে দিনে আসা খরচ নিবে ৫-৫৫০০ টাকা। আর একদিন থাকলে খরচ আসবে ৬০০০ টাকা।

চট্টগ্রাম টু সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ

চট্টগ্রাম থেকে সাজেক যাওয়ার জন্য আপনি যদি অক্সিজেন মোড় থেকে টিকেট কাটেন খাগড়াছড়ির জন্য তাহলে টিকেট মূল্য নিবে ২০০-২৫০ টাকা ও যদি BRTC করে যান তাহলে খরচ পরবে ৩০০ টাকা। খাগড়াছড়ি থেকে আপনি চান্দের গাড়ি করে সাজেক যেতে পারবেন। চান্দের গাড়ি করে গেলে দিনে গিয়ে দিনে আসা খরচ নিবে ৫-৫৫০০ টাকা। আর একদিন থাকলে খরচ আসবে ৬০০০ টাকা।

সিলেট টু সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ

সিলেট থেকে সাজেক যাওয়ার জন্য আপনার নিকএস্থ যেমন শান্তি পরিবহন বা অন্য পরিবহন করে খাগড়াছড়ি আসার জন্য টিকেট খরচ ১৮০-২২৫ টাকা লাগবে। এর পর খাগড়াছড়ি থেকে আপনি চান্দের গাড়ি করে সাজেক যেতে পারবেন। চান্দের গাড়ি করে গেলে দিনে গিয়ে দিনে আসা খরচ নিবে ৫-৫৫০০ টাকা। আর একদিন থাকলে খরচ আসবে ৬০০০ টাকা। সাফারি পার্ক ভ্রমণ কাহিনী

বরিশাল টু সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ

বরিশাল থেকে সাজেক যাওয়ার জন্য প্রথমে খাগড়াছড়ির টিকেট কাটতে হবে। যার প্রাই জ পরবে ২৫০-৩০০ টাকা। তারপর
খাগড়াছড়ি থেকে আপনি চান্দের গাড়ি করে সাজেক যেতে পারবেন। চান্দের গাড়ি করে গেলে দিনে গিয়ে দিনে আসা খরচ নিবে ৫-৫৫০০ টাকা। আর একদিন থাকলে খরচ আসবে ৬০০০ টাকা। আপনি চাইলে সিএনজি করেও ভ্রমণ করতে পারেন। তখন খরচ নিবে ২০০০-৩০০০ টাকা।

এবার আসি ভ্রমণের সেরা ৫ টি কারণ সম্পর্কে

১. ভ্রমণ জীবনকে স্মরণীয় করে তোলে

আপনি যদি সারাদিন কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর সামনে বসে থাকেন যা কখনোই আপনার জন্য সেরা স্মৃতি তৈরি করতে পারে না। বরং এগুলো আপনাকে বিরক্ত, অলস, ঐবং উদ্বেগহীন করে তোলে। কিন্তু ভ্রমণ সম্পূর্ণ বিপরীত। ভ্রমণের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সবকিছুই স্মরনীয় হয়ে থাকে।

২. ভ্রমণ আপনাকে জীবন সম্পর্কে শিক্ষা দেয়

ভ্রমণ করলে আপনি বিশ্ব সম্পর্কে জানতে পারবেন। বিভিন্ন গোষ্ঠীর আচার-আচরণ, সংস্কৃতি, ধর্ম ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে পারবেন। মনে করুন, আপনি ভারতে ভ্রমণ করতে গেছেন। সেখানে আপনি নিজের চোখে ভারতের দৃশনীয় স্থান দেখতে পারবেন, রাজনৈতিক অবস্থা, সংস্কৃতি, সমাজ ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে পারবেন। সত্যি কথা বলতে ভ্রমণের মাধ্যমে আপনি বিশ্ব সম্পর্কে কিছু না কিছু জানতে পারবেন।

৩. ভ্রমণ আপনাকে জীবন্ত করে তুলে

নতুন স্থান, নতুন পরিবেশ সবকিছু আমাদের ইন্দ্রিয়গুলিকে উত্তেজিত করে এবং সত্তার মূলে উদ্দীপিত করে তোলে।
ভ্রমণের মাধ্যমে আপনি আপনার জীবনের সকল ক্লান্তি, দুঃখ-বেদনা, সমস্ত সমস্যাবলী ইত্যাদি ভুলে যাবেন। কারণ ভ্রমণের সময় আপনি বা আমি সবকিছুই উপভোগ করি। এতে আমাদের সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়।

৪. ভ্রমণ আবেগের সম্পূর্ণ মিশ্রণ প্রদান করে

আমাদের উচিত, সাদা-কালো জীবন থেকে বেরিয়ে এসে জীবনকে উপভোগ করা। কারণ জীবনে উত্থান-পতন থাকবে। ইতিহাস পাঠ্য বইয়ে তে দুই-একজন রাজাদের কাহিনি তো পড়েছেন। তাদের জীবনেও উত্থান-পতন ছিল। তাঁরা পরাজিত হয়েছে, আবার নিজের একান্ত প্রচেষ্টা ও উদ্দাম বলে আবার রাজ্য জয় করেছেন।

তাই ভ্রমন সকলের জন্য প্রয়োজন। এটি আপনাকে প্রাণবন্ত, তীব্র এবং উচ্ছ্বসিত রাখবে। আমরা সকলেই জানি, কঠিন সময় গুলো কখনোই মজার হয় না। তবে এসব বাধা-বিপত্তি কে পিছনে ফেলে আপনাকে এগিয়ে যেতে হবে।

৫. ভ্রমণ আপনাকে নিজের সম্পর্কে শেখায়

ভ্রমণের মাধ্যমে আপনি পারস্পরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারবেন। ভ্রমণেট সময় কোন বিপদ সামনে আসে, তখন কিভাবে সেগুলো মোকাবেলা করতে হয় সেগুলো শিখতে পারবেন। তাছাড়া ভ্রমণের সময় অনেক নতুন মানুষের পরিচয় হয়ে যায়। তাদের কাছ থেকে অনেক নতুন আদর্শ বা ধারার সাথে মুখোমুখি হবেন। অনেক সময় যে গুলোর সাথে আপনি একমত নাও হতে পারেন।

আজ এই পর্যন্তই। পোস্টটি কেমন লাগলো দয়া করে কমেন্টে জানাবেন, যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যয় শেয়ার করবেন, পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এমন সব দারুন দারুন পোস্ট পেতে Grathor এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Tag:

সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ ২০২২,
সাজেক ভ্যালি রিসোর্ট,
সাজেক ভ্যালি ভ্রমণ খরচ ২০২১,
সাজেকের দর্শনীয় স্থান,
সাজেক ভ্রমণ খরচ,
সাজেক ভ্যালি কোথায়,
সাজেক ভ্যালির সৌন্দর্য,
সাজেক ভ্যালি প্যাকেজ,
সাজেকের দর্শনীয় স্থান,
ঢাকা টু সাজেক ট্রেন,
চট্টগ্রাম থেকে সাজেক যাওয়ার উপায়,
সাজেক ভ্যালি রিসোর্ট,
সাজেক ভ্রমণের উপযুক্ত সময়,
কক্সবাজার থেকে সাজেক কত কিলোমিটার,

Related Posts

6 Comments

মন্তব্য করুন