২০২২ সালের সূর্য গ্রহণ বাংলাদেশ সময় এবং চন্দ্রগ্রহণ

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা! কেমন আছেন আপনারা? তো আশা রাখছি বেশ ভালো থাকবেন সকলে। বেশ কিছুদিন পর আবারো চলে আসলাম নতুন একটি আর্টিকেল নিয়ে। টাইটেল দেখে নিশ্চই বুঝে গিয়েছেন যে আমাদের আজকের আলোচনার টপিক মূলত সূর্য গ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ নিয়ে (২০২২ সালের সূর্য গ্রহণ বাংলাদেশ সময় এবং চন্দ্রগ্রহণ)। ২০২২ বাংলাদেশের সূর্যগ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ কখন হবে এবং এর বাংলাদেশ সময় সম্পর্কে আজকে আপনাদের সম্পূর্ণ তথ্য প্রদান করতে চলেছি।

২০২২ বাংলাদেশ সূর্য গ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ এর সময় ও তারিখ সম্পর্কে জেনে নেওয়ার আগে আমরা গ্রহন কেন হয় এই বিষয়ে জানবো। আপনাদের মধ্যে অনেকে আছেন যারা এখনো পর্যন্ত সূর্যগ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ কেন হয় এই বিষয়ে অবগত না। একজন মানুষ হিসেবে আপনার অবশ্যই এসব জ্ঞান রাখা জরুরি। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

সূর্যগ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ কেন হয়?

আমরা ছোট থেকে জেনে আসছি সূর্যকে ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে পৃথিবী। আবার সেই পৃথিবীকে ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে চন্দ্র। সে আদিকাল থেকে চলে আসছে এই আবর্তন প্রক্রিয়া। এই আবর্তন প্রক্রিয়া চলতে চলতে একটা সময় পৃথিবী ও চন্দ্র একই সরলরেখার ন্যায় অবস্থান নেয়। ঠিক তখনই মূলত চন্দ্রগ্রহণ বা সূর্যগ্রহণ ঘটে। বিজ্ঞানীদের মতে চন্দ্রগ্রহণের তুলনায় সূর্যগ্রহণ বহুবার ঘটে।

পৃথিবী আর চন্দ্রের এই আবর্তন প্রক্রিয়ায় সূর্য এবং পৃথিবীর মাঝখানে যখন চন্দ্র এসে অবস্থান নেয় ঠিক তখন পৃথিবীর দর্শকদের পর্যবেক্ষণের সাপেক্ষে সূর্য চন্দ্রের পেছনে অর্থাৎ আড়ালে চলে যায়। তখন সূর্যগ্রহণ ঘটে।

অন্যদিকে পৃথিবী যখন চন্দ্র এবং সূর্যের মাঝামাঝি চলে আসে তখন পৃথিবীর আড়ালে চাঁদ ঢাকা পরে যায় এবং সৃষ্টি হয় চন্দ্রগ্রহণের। যেহেতু পৃথিবীর অবস্থান বড় সেহেতু পৃথিবীর ছায়া চাঁদকে পুরোপুরি ঢেকে ফেলতে সক্ষম হয়। ফলে চন্দ্রগ্রহণ পৃথিবীর কোনো কোনো জায়গাতে পূর্ণগ্রাস নামে দেখা দেয়। আর এই পূর্ণগ্রাস পৃথিবীর সকল স্থান থেকে দৃশ্যমান।

আশা করছি চন্দ্র এবং সূর্যের এমন বিচিত্র গ্রহন সম্পর্কে আপনি বেশ ভালোমতো জানতে পেরেছেন। তাহলে এইবার চলুন ২০২২ সালের চন্দ্র এবং সূর্যগ্রহণ এর তারিখ এবং সময় এর ব্যাপারে জেনে নেওয়া যাক।

২০২২ সালের সূর্য গ্রহণ বাংলাদেশ সময় এবং চন্দ্রগ্রহণ তারিখ ও সময়

১. আংশিক গ্রাস সূর্যগ্রহণ (বাংলাদেশে অদৃশ্যমান)

গ্রহণের তারিখঃ ৩০ শে এপ্রিল ২০২২ইং
সময়ঃ রাত ১২.৪৬ মিনিটে শুরু হয়ে শেষ রাত্রি ৪.৩৮ মিনিটে সমাপ্তি।
গ্রহণের স্থিতিঃ ৪ ঘণ্টা ৫২ মিনিট

(ইতিমধ্যে গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে)

২. পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ ( বাংলাদেশে অদৃশ্যমান)

গ্রহণের তারিখঃ ১৬ ই মে ২০২২ইং
সময়ঃ দিবা ৮.২৮ মিনিটে শুরু হয়ে দিবা ১১.৫৫ মিনিটে সমাপ্তি।
গ্রহণের স্থিতিঃ ৩ ঘণ্টা ২৭ মিনিট

(ইতিমধ্যে গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে)

৩. আংশিক (খন্ড) গ্রাস সূর্যগ্রহণ (বাংলাদেশ ও ভারতে দৃশ্যমান)

গ্রহণের তারিখঃ ২৫ অক্টোবর ২০২২ইং
সময়ঃ দিবা ২.৫৯ মিনিটে শুরু হয়ে রাত্রি ৭.০২ মিনিটে সমাপ্তি।
গ্রহণের স্থিতিঃ ৪ ঘণ্টা ৩ মিনিট

৪. পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ ( বাংলাদেশ ও ভারতে গ্রস্তদয় দৃশ্য)

গ্রহণের তারিখঃ ৮ই নভেম্বর ২০২২ইং
সময়ঃ দিবা ৩.০৯ মিনিটে শুরু হয়ে রাত্রি ৬.৪৯ মিনিটে সমাপ্তি।
গ্রহণের স্থিতিঃ ৩ ঘণ্টা ৪০ মিনিট

পোস্টটি কেমন লাগলো দয়া করে কমেন্টে জানাবেন, যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যয় শেয়ার করবেন, পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। এমন সব দারুন দারুন পোস্ট পেতে Grathor এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Posts

14 Comments

মন্তব্য করুন