Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

ইন্টারনেট

অ্যাপেলের জাদুকরের জীবনযাত্রা সম্পর্কে কিছু কথা-২

Taskin Jahan

Published

on

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা।

স্টিভ জবস সম্পর্কে পূর্বের পোস্টে তার কর্মজীবন নিয়ে আলোচনা করেছিলাম।

আজকের আলোচনা করব তার শৈশব ,শিক্ষাজীবন ও পারিবারিক জীবন সম্পর্কে।

Place your ad code here

চলুন শুরু করা যাক।

পল জবস নামে একজন গাড়ির মিস্ত্রি ও তার স্ত্রী ক্লারা জবস, স্টিভ জবসকে দত্তক নিয়েছিলেন, যিনি জন্মগতভাবে পরিত্যক্ত ছিলেন।

পল ও ক্লারা স্টিভকে অত্যন্ত ভালোবাসতেন।জবসের মা তাকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাওয়ার আগেই শিখিয়েছিলেন কিভাবে পড়তে ও লিখতে হয়।

তাই তিনি যখন বিদ্যালয় গেলেন তখন তিনি দেখলেন যে ,শিক্ষকরা পড়াচ্ছেন তিনি তার সবকিছুই জানেন।

একটি মোড় পরিবর্তনকারী ঘটনা ঘটলো যখন তিনি চতুর্থ শ্রেণীতে ছিলেন। তার শিক্ষিকা ইমোজিন হিল তাকে খুব কাছ থেকে কিছুক্ষণ পর্যবেক্ষণ করলেন এবং দেখতে পেলেন তিনি কিভাবে পরিচালিত হন ও তাকে দিয়ে কিভাবে কাজ করানো যায়।

তাকে দিয়ে কিছু করানোর জন্য তিনি তাকে অর্থ ও খাবার দিতেন। একদিন স্কুল ছুটির পর তিনি জবসকে গণিত সমস্যা সম্বলিত একটি অনুশীলন বই দিলেন। তিনি বললেন “এটা তুমি বাড়ি নিয়ে যাও এবং এটা করো”।তিনি জবসকে একটা বিশাল ললিপপ দেখিয়ে বললেন যখন তুমি এটা শেষ করে ফেলবে ,যদি তুমি এটার বেশির ভাগ সঠিক করো আমি তোমাকে এটি এবং ৫ ডলার দেব। দুই দিনের মধ্যে জবস গণিত সমস্যার সমাধান করে ফেললেন এবং তার শিক্ষিকার কাছে অনুশীলনের বইটি ফেরত দিলেন।

কয়েক মাস ধরে এটা চলতে থাকল এবং জবস শেখা এতই উপভোগ করলেন যে তার আর বিনিময়ের প্রয়োজন পরলো না।

তিনি তার শিক্ষিকাকে খুব পছন্দ করতেন এবং তাকে খুশি করতে চাইতেন।

চতুর্থ শ্রেণীর শেষে জবস খুব ভালো করলেন।তিনি যে অসাধারণ মেধাবী ছিলেন তা শুধু জবস ও তার পিতামাতার কাছেই না, শিক্ষকদের কাছেও পরিষ্কার ছিল।

বিদ্যালয় তাকে দুই শ্রেণীতে না পড়ে সপ্তম শ্রেণীর প্রস্তাব করলো। এর অর্থ এই পড়াশোনা জবস এর কাছে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ন মনে হবে এবং তিনি পড়াশোনায় উদ্বুদ্ধ হবেন। তার পিতা-মাতা তাকে মাত্র এক শ্রেণী বাদ দেওয়ালেন।

হাইস্কুল শেষ করার পর জবস পোর্টল্যান্ড ,ওরিগণ এ অবস্থিত রিড কলেজে ভর্তি হন। কিন্তু ছয় মাসের মধ্যেই কলেজ ছেড়ে দেন। এবং পরবর্তী ১৮ মাস বিভিন্ন ক্রিয়েটিভ কোর্স করেন।১৯৭৪ সালে জবস ‘আর্টারির’ হয়ে একজন ভিডিও গেমস ডিজাইনার হিসেবে যোগ দেন।

১৯৯১ সালের ১৮ই মার্চ জবস লরেন পাওয়েলকে বিয়ে করেন। তিনি তার পরিবার সম্পর্কে কাউকে তেমন কিছু বলতেন না।তবে জানা যায় যে , লরেনের সাথে তার তিন সন্তান এর বাহিরেও ২৩ বছর বয়সে প্রেমিকা  ক্রিসান ব্রেনানের গর্ভে লিসা নামে তার একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়েছিল।

জবস তার কন্যা লিসার সাথে তার সাত বছর বয়স হওয়ার আগ পর্যন্ত কোন প্রকার যোগাযোগ করেননি। পরবর্তীতে লিসা কিশোর বয়স থেকে বাবার সাথে থাকতে শুরু করেন।

জবসের জীবনকাহিনী থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বেশ কয়েকটি সিনেমা তৈরি হয়েছে।যার মধ্যে ২০১৩ সালে নির্মিত ও অতি সমালোচিত “জবস” এবং ২০১৫ সালে নির্মিত ও ড্যানি বয়েল পরিচালিত “স্টীভ জবস” অন্যতম।

২০১১ সালের ৫ই অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের পালো আলটাতে ৫৬ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন প্রযুক্তি জগতের এই মহান পুরুষ। তিনি প্রায় ৮ বছর যাবৎ অগ্নাশয়ের ক্যান্সারের সাথে লড়াই করেছিলেন।

আমাদের সকলের এই মহান নেতার অনুসরণ করা উচিত।

তাহলেই জীবনে সফল হওয়া সম্ভব।

আশা করি সবার ভালো লেগেছে।

অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

আল্লাহ হাফেজ।।

Advertisement
7 Comments
Subscribe
Notify of
7 Comments
Oldest
Newest
Inline Feedbacks
View all comments
Shanta Akter

Hmmm

Md Golam Mostàfa

OKKKKK ……

Rajiya Aktar

Right

Md. Mashum Ali

Welcome.

ইন্টারনেট

এয়ারটেল সিমের গুরুত্বপূর্ণ কিছু কোড সমূহ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Mainul islam Robin

Published

on

আসসালামু আলাইকুম। বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভালই আছেন। আমিও ভালো আছি। করোনারি এই মহামারী যে সবার খুব একটা ভালো থাকার কথা না। সবাই সব রকম নিয়মে মেনে ঘরে অবস্থান করুন। আজ আমি আপনাদেরকে গুরুত্বপূর্ণ একটি টিপস শেয়ার করব। আমি যেই ট্রিক্স টি নিয়ে কথা বলব সেটি হল এয়ারটেল সিমের গুরুত্বপূর্ণ কিছু কোড সমূহ। আপনারা যারা এয়ারটেল সিম ব্যবহারকারী রয়েছেন তাদের জন্য এই পোস্টটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হবে। তাই যারা এয়ারটেল সিম ব্যবহার করেন কিন্তু অনেক কোড রয়েছে যা আপনারা জানেন না তাই মনোযোগ সহকারে আপনারা পোস্টটি দেখে নিন। তাহলে কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক।

 

১. এয়ারটেল সিমের ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল করুন- *778#

Place your ad code here

 

২. এয়ারটেল সিমের নিজের নাম্বার চেক করার জন্য ডায়াল করুন – *121*6*3#

 

৩. এয়ারটেল সিমে যে কোন প্যাকেজ চেক করার জন্য ডায়াল করুন- *121*8#

 

৪. এয়ারটেল সিমের মিনিট দেখার জন্য ডায়াল করুন- *778*5# বা *778*8#

 

৫. এয়ারটেল সিমের এসএমএস চেক করতে ডায়াল করুন- *778*2#

 

৬. এয়ারটেল সিমের এমএমএস চেক করার জন্য ডায়াল করুন- *222*13#

 

৭. এয়ারটেল সিমের ডাটা প্যাক বা এমবি চেক করতে ডায়াল করুন- *778*39# বা *778*4#

 

৮. এয়ারটেল সিমে ফিরতি কল রিকুয়েস্ট বা কল মি ব্যাক করার জন্য ডায়াল করুন- *121*5#

 

৯. এয়ারটেল সিমের নেট রিকোয়েস্ট করতে ডায়াল করুন- *140*7#

 

১০. এয়ারটেল সিমের মিসকল এলার্ট চালু করতে ডায়াল করুন- *121*3*4#

 

১১. এয়ারটেল সিমে নিজের ইন্টারনেট অফার চেক করতে ডায়াল করুন- *222*5#

 

১২. ইন্টারনেট বোনাস চেক করতে ডায়াল করুন- *778*7#

 

১৩. বোনাস চেক করতে ডায়াল করুন- *778*1#

 

১৪. এয়ারটেল কাস্টমার কেয়ারের জন্য ৭৮৬

 

১৫. এয়ারটেল শোরুম অ্যাড্রেস এর জন্য ডায়াল করুন – *121*11#

 

আপনারা চাইলে এয়ারটেল এর বিভিন্ন আকর্ষণীয় অফার এর জন্য গুগল প্লে স্টোর থেকে মাই এয়ারটেল অ্যাপস টি ডাউনলোড করে নিতে পারেন। মাই এয়ারটেল অ্যাপসে আপনারা বিভিন্ন আকর্ষণীয় অফার পেয়ে যাবেন।

 

তাহলে আজকের মতো এই পর্যন্তই। অন্য আরেকটি নতুন পোস্ট নিয়ে আবার আপনাদের সামনে আসব সবাই সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন। পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

 

 

Continue Reading

ইন্টারনেট

গ্রামীণফোন দিচ্ছে মাত্র 100 টাকায় 10 জিবি ইন্টারনেট মেয়াদ 30 দিন দেখতে হলে এখানে ক্লিক করুন

Mainul islam Robin

Published

on

প্রিয় পাঠকবৃন্দ । কেমন আছেন সবাই। এই করোনা মহামারীতে কেউই ভালো নেই আমি জানি তবুও নিয়মকানুন মেনে সুস্থভাবে জীবনযাপন করুন কারণ ভালো থাকতে হলে এসব নিয়ম মেনে চলতে হবে। সবাই ঘরে বসে ভালোমতো পরিবারের সাথে আনন্দের দিন কাটান। আমি আজ আপনাদের মাঝে আবার এসেছি নতুন আরো একটি টিপস নিয়ে। টিপসটি হচ্ছে গ্রামীণফোনের একটি দারুণ অফার। আপনারা হয়তো অনেকেই এই অফারটি নিয়েছেন তবুও আমি আপনাদেরকে স্মরণ করানোর জন্য পোস্টটি নিয়ে আসলাম। আমি আজ এই গ্রামীনফোনের ইন্টারনেট অফার টি শেয়ার করব সেটি হল গ্রামীণফোন দিচ্ছে মাত্র 100 টাকায় 10 জিবি ইন্টারনেট সবাই নিতে পারবেন। হ্যাঁ বন্ধুরা আপনারা ঠিকই শুনেছেন 100 টাকায় 10 জিবি ইন্টারনেট মেয়াদ 30 দিন। যারা জানেন তো ভালো আর যারা না জানেন তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট টি তাই আপনার মনোযোগ সহকারে পোস্টটি পড়ুন। 100 টাকায় 10 জিবি 30 দিন মেয়াদে ইন্টারনেট প্যাকেজ নিতে হলে আপনাদেরকে ফোনে 100 টাকা রিচার্জ করতে হবে তারপর আপনার আপনাদের ফোনের ডায়াল পেড অপশনে গিয়ে ডায়াল করুন *১২১*৫৩৩৯# । এটা ডায়াল করার পর আপনাদের ফোনে সাথে সাথে 10 জিবি 100 টাকা মেয়াদ 30 দিন এই অফারটি চালু হয়ে যাবে। আমি এর আগেও এই অফারটা নিয়েছিলাম। এই অফারটি হয়তো গ্রামীন এর সবচেয়ে ভালো একটি অফার। কারণ গ্রামীণফোন সহজে এত ভাল অফার কাউকে দেয় না তাই আপনারা তাড়াতাড়ি অফারটি নিয়ে ফেলুন। কারণ এই অফারটি হয়তো তারা বন্ধ করে দিতে পারে। আপনারা ভাবুন যে 100 টাকায় যদি 10 জিবি হয় তাহলে 1 জিবির মূল্য মাত্র 10 টাকা অবিশ্বাস্য ব্যাপার। তাই এরচেয়ে ভালো অফার আর আপনারা গ্রামীনফোনে পাবেন না।

বন্ধুরা পোস্টটি কেমন লাগলো। ভাল লাগলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আর যদি আপনাদের কোন সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট এর মত আমাকে জানাতে পারেন আমি আপনাদেরকে সাহায্য করার চেষ্টা করব। আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। আবার অন্য আরেকটি নতুন টিপস নিয়ে আপনাদের কাছে আসবো সবাই সেই পর্যন্ত সুষ্ঠুভাবে জীবনযাপন করুন এবং ঘরে অবস্থান করুন। আর বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করুন। পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ সবাইকে।

Place your ad code here

Continue Reading

ইন্টারনেট

এখন বাংলালিংক সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করুন ঘরে বসে খুব সহজে

Mainul islam Robin

Published

on

হ্যালো বন্ধুরা। সবাই কেমন আছেন আশা করি অনেকেই ভালো আছেন। সবাই করোনার এই সময় আমি অনেক অসহায় এবং অস্বস্তি ভাবে জীবন যাপন করছেন আমি জানি। কিন্তু কি আর করার বলুন ভালো থাকতে হলে আমাদের সবাইকে এই সব নিয়ম মেনে চলতে হবে। আমি আজ আপনাদের মাঝে নতুন একটি ট্রিক শেয়ার করব যেটির হলো আপনারা কিভাবে বাংলালিংক সিমে এক সিম থেকে অন্য সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করবেন খুব সহজেই। আপনারা যারা জানেননা যারা জানেননা তারা খুব সহজেই পোস্টটি থেকে জেনে নিতে পারবেন কিভাবে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে হয় বাংলালিংক সিমে। তাই আপনারা পোস্ট টি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

আমরা অনেক সময় অনেক বিপদে পড়ি অনেক সময় মোবাইলে ব্যালেন্স থাকে না বন্ধুকে বলতে হয় ব্যালেন্স ট্রান্সফারের জন্য অথবা কাউকে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে হয় কিন্তু না জানার কারনে সেটা করা আর সম্ভব হয় না তাই আমার এই পোস্টটি থেকে আপনারা মাধ্যমে ঘরে বসে নিশ্চিন্তে বাংলালিংক সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে পারবেন তাহলে চলুন কাজের কথায় আসি।

ব্যালেন্স ট্রান্সফার করার জন্য আপনাদেরকে একটি কাজ করতে হবে সেটি হলো আপনারা প্লে স্টোর থেকে মাই বাংলালিংক অ্যাপটি ডাউনলোড করবেন। মাই বাংলালিংক অ্যাপটি ডাউনলোড করার পর সেখানে দেখবেন ব্যালেন্স ট্রান্সফার নামে একটি অপশন রয়েছে। অথবা আপনারা চাইলে আপনাদের ফোনের ডায়াল অপশনে গিয়ে ডায়াল করতে পারেন *১০০০# । এটি ডায়াল করার পর আপনাদের সামনে একটি অপশন আসবে আপনাদেরকে তখন একটি পিন দেওয়া হবে। আপনাদের কে সেই পিনটি মনে রাখতে হবে । আপনাদের যদি পিনটা সহজ মনে না হয় তাহলে চাইলে আপনারা পিন পরিবর্তন করতে পারবেন। *১০০০# ডায়াল করলে আপনাদেরকে তখন চেঞ্জ পিন নামে একটি অপশন দেখাবে সেখান থেকে আপনারা পিনটি পরিবর্তন করতে পারবেন। পিন নেয়া হয়ে গেলে আপনাদেরকে যা করতে হবে তা হল আপনারা *১০০০# ডায়াল করে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে পারবেন আপনারা যত টাকা ট্রান্সফার করতে চান সেই অ্যামাউন্ট বসিয়ে যে বাংলালিংক সিমে ট্রান্সফার করতে চান সে নাম্বারটি এবং সর্বশেষ আপনাদের যে পিনটি দেওয়া হয়েছিল সেটি দিলেই আপনাদের ব্যালেন্স ট্রান্সফার হয়ে যাবে। তো কেমন লাগলো আমার এই টিপসটি। কোন সমস্যা হলে কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাতে পারবেন। আজকের মতো এই পর্যন্তই অন্য একটি পোস্ট নিয়ে আবার হাজির হব ইনশাল্লাহ সবাই ভালো থাকুন।

Place your ad code here

Continue Reading






গ্রাথোর ফোরাম পোস্ট