Connect with us
★ Grathor.com এ আপনিও ✍ লেখালেখি করে আয় করুন★Click Here★

এন্ড্রয়েড টিপস

এন্ড্রয়েড মোবাইল থেকে গুরুত্বপূর্ণ ভিডিও ফাইল ফটো লুকিয়ে রাখুন।

motivation -bangla.com

Published

on

 

আসসালামু আলাইকুম,

 আশা করি আপনারা সবাই অনেক ভাল আছেন।আল্লাহর রহমতে আমি ও অনেক ভালো আছি।বন্ধুরা আজকে আবার ও নতুন একটি পোস্ট নিয়ে চলে আসলাম আপনাদের মাঝে।আজকের এই পোস্ট টিতে আমরা জানব যে কিভাবে আমাদের মোবাইলের গুরুত্বপূর্ণ ফাইল ভিডিও ফটো এবং ফোল্ডার লুকিয়ে রাখবেন।

 আমরা যারা অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহার করে থাকি।তাদের মোবাইলে অনেক সময় অনেক পারসোনাল ভিডিও এবং ফটো থাকে।তো এই ফটো এবং ভিডিও কে সবার চোখের আড়াল করতে আজকের এই পোস্টটি।



আমাদের মোবাইল অনেক সময় আমাদের বড় ভাই এবং বড় বোন ব্যবহার করে থাকে।কিন্তু আমাদের মোবাইলে যে গোপন ভিডিও এবং ফটো গুলো থাকে।সেই ফটো এবং ভিডিও গুলি দেখে ফেলার আশঙ্কা থাকে।তাই তাদের চোখের আড়াল করতে আজকের এই পোস্টটি ।

কিভাবে লুকিয়ে রাখবো ?

 তো বন্ধুরা ফাইল ভিডিও এবং ফটো লুকিয়ে রাখার জন্য।প্রথমে আপনারা চলে যাবেন আপনাদের মোবাইলের ফাইল ম্যানেজারে।ফাইল ম্যানেজারে গিয়ে যেকোনো একটি নামে ফোল্ডার ক্রিয়েট করবেন। তো বোঝানোর জন্য আমি  একটি ফোল্ডার ক্রিয়েট করলাম। old folder নামে । তো আপনারা এই ফোল্ডারের নামের প্রথমে একটি ডট বসিয়ে দেবেন। উদাহরণ: .old folder তারপর ডান করবেন। 

 ডান এ ক্লিক করার পর । আপনি দেখবেন আপনার সেই ফোল্ডারটি লুকিয়ে আছে।

 এই ফোল্ডারটিকে নিয়ে আসার জন্য । ফাইল ম্যানেজার এর হোম স্ক্রিনের 3 ডট অপশনে ক্লিক করবেন। 

3 ডট আইকনে ক্লিক করার পর। Show hidden files এ ক্লিক  করবেন। তারপর সেই ফোল্ডার টি আবার চলে আসবে ।

এরপর সেই ফোল্ডারটি আপনি দেখতে পারবেন হালকা ডিপ হয়ে আছে। এরপরে আপনি ঐ ফোল্ডার টির মধ্যে যেকোনো ফাইল ভিডিও এবং ফটো move বা কপি করে নিয়ে আসবেন ।

আবারো ফাইল ম্যানেজার হোমস্ক্রিনে 3 ডট আইকনে ক্লিক করবেন।তারপর দেখতে পাবেন। Hide hidden files এখানে ক্লিক করুন । তারপর আপনার ফোল্ডার টিকে আর দেখতে পাবেন না। 

এভাবে আপনারা আপনাদের ফাইল ফোল্ডার ভিডিও ছবি কে লুকিয়ে রাখতে পারবেন। 

ফোল্ডারটি নিয়ে আসার জন্য ?

লুকিয়ে রাখা ফোল্ডারটিকে নিয়ে আসার জন্য। ফাইল ম্যানেজার এর হোম স্ক্রিনে 3 ডট আইকনে ক্লিক করবেন। Show hidden files এ ক্লিক  করবেন। তারপর সেই ফোল্ডার টি আবার চলে আসবে ।

বন্ধুরা পোস্টটি ভাল লাগলে অবশ্যই লাইক করবেন

আরো পড়ুন:- বাংলা ছন্দ, ইমোশনাল কথা, মোটিভেশনাল গল্প, পেতে ক্লিক করুন

Advertisement
Click to comment

You must be logged in to post a comment Login

Leave a Reply

এন্ড্রয়েড টিপস

মোবাইল ফোন রুট করলে কি লাভ অথবা কি ক্ষতি হতে পারে আপনার ফোনের?

Shuvo Bhattacharjee

Published

on

আসসালামুআলাইকুম সুপ্রিয় পাঠক পাঠিকাগণ।আসা করি সবাই অনেক ভালো আছেন।সবাই সবার অবস্থানে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন এই কামনা করি।বন্ধুরা, স্মার্টফোন আমরা সবাই ব্যবহার করে থাকি প্রায়। আজকালকার দিনে স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে না এমন মানুষ হয়তো অনেক কম আছে।এ স্মার্ট ফোন ব্যবহার করার জন্য আমরা আমাদের মোবাইলের রেম রম ইত্যাদি বিষয় নিয়ে বিভিন্ন ভাবে চিন্তা করেন। আমাদের ফোনের ইত্যাদি বিভিন্ন জটিল কারণে আমরা মোবাইল রুট করতে চাই।

এক্ষেত্রে আপনি যদি আপনার মোবাইলটি রুট করতে চান তাহলে তার আগে আপনার অবশ্যই জেনে নিতে হবে রুট মূলত কি? কেনো রুট করে মানুষ? কি লাভ আর কি ক্ষতি ইত্যাদি।রুট সম্পর্কে বিস্তারিত না যদি আপনার মোবাইল ফোনটি রুট করেন তাহলে আপনার হয়তো অনেক বড় ক্ষতি হতে পারে।

আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যা জানবো

  • রুট মূলত কি?
  • কিভাবে রুট করা যায়?
  • মানুষ কেনো তার মোবাইল ফোন রুট করে ?
  • রুট করলে কি কি লাভ হবে?
  • রুট করলে কি ক্ষতি হতে পারে আপনার মোবাইলের?

রুট মূলত কি?

রুট হল এমন একটি প্রক্রিয়া যেটির মাধ্যমে আপনি আপনার স্মার্টফোনে কিছু অন্যরকম কিছু যোগ করতে পারেন, যা হয়তো আপনার মোবাইলে দেওয়া নাই এবং আপনার মোবাইল সাপোর্ট করেনা।তাই সহজ ভাষায় রুট করার ফলে আপনি আপনার মোবাইল ফোনে এমন কিছু নিয়ম বা সেটিং করতে পারেন যা আপনার মোবাইল কোম্পানি সাপোর্ট করেনা।

কিভাবে স্মার্ট ফোন রুট করা যায়?

আপনি আপনার স্মার্টফোনটিকে অ্যাপসের মাধ্যমে রুট করতে পারেন। রুট এর বিষয়ে বিস্তারিত জানার পর এর মাধ্যমে সম্পন্ন করতে সক্ষম হবেন।



মানুষ কেনো তার মোবাইল ফোন রুট করে ?

ধরুন আপনি একজন স্মার্ট ফোন ইউজার।এখন আপনার প্রয়োজনের জন্য একটি অ্যাপস আপনার ডাউনলোড করতে হচ্ছে। যে অ্যাপসটি আপনার মোবাইল সাপোর্ট করেনা। আপনি মোবাইলটির মাধ্যমে চালাতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে রুট করার পর আপনি সেসব অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন সহজে।

তাছাড়াও আপনার মোবাইলে যদি রেম কম থাকে আপনি রুট করার মাধ্যমে যেকোনো মাধ্যমে ফোনের রেম অথবা প্রসেসর এর শক্তি বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

একইভাবে আপনার স্মার্টফোনের স্টোরেজ কম থাকলে রুটের মাধ্যমে কিছু অ্যাপস এর মাধ্যমে সেটিকে বাড়াতে পারবেন।

মোটকথা ফোন রুট করার কারণ স্মার্ট ফোন টিতে আরো অ্যাডভান্স কিছু করতে চেষ্টা করা যেটি স্মার্ট ফোনটির মাধ্যমে করা সম্ভব না, সেটি রুট করার মাধ্যমে করা।

রুট করলে কি কি লাভ হবে?

১. আগেই বলেছি রুট করার মাধ্যমে আপনি আপনার মোবাইল এর unsupported অ্যাপস বা ওয়েবসাইটে কাজ করতে পারবেন।

২. রুট করার মাধ্যমে আপনি আপনার ফোনে রেম অথবা প্রসেসর এর স্পিড বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

৩. রুট করার মাধ্যমে আপনি আপনার ফোনের ইউজার আইডি বদলাতে পারবেন।

৪. অন্য কোনো কোম্পানির কাস্টম রম ব্যাবহার করতে পারবেন।

৫.কিছু অ্যাপস আছে যা আমাদের ফোনে প্রথম থেকে থাকে, ডিলেট করা যায় না।রুট করার পর সেগুলোকে ডিলিট করতে পারবেন।

আরো অ্যাডভান্স কিছু কারণে ফোন মানুষ রুট করে থাকে।

রুট করলে কি ক্ষতি হতে পারে আপনার মোবাইলের?

১. রুট করলে আপনার ফোনটি ওয়ারেন্টি থাকবে না।ধরুন আপনি ফোনটি কিনেছেন যার ওয়ারেন্টি ১ বছর। এখন এর মধ্যে আপনি ফোন রুট করলে কোম্পানি সেটিকে ওয়ারেন্টি দিবে না।

২. রুট করার কারণে স্মার্ট ফোনে কিছু সমস্যা দেখা দেয়।

৩. রুট করার কারণে হয়তো আপনি আপনার অনেক ফাইল হারাতে পারেন।সুতরাং রুট করার আগে সেগুলোকে ব্যাকআপ করে নিবেন।

৪. রুট করার কারণে অনেক সময় মোবাইল ফোন স্লো হয়ে যায়।

সতর্কতা

আপনি যদি রুট সম্পর্কে কিছু না জানেন তাহলে আপনি আপনার স্মার্টফোনটিকে রুট না করলেই ভালো।কারণ এতে হয়তো আপনি বড় কোনো বিপদে পড়তে পারেন। এক্ষেত্রে অবশ্যই ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নিবেন।

আসা করি বুঝে গেছেন রুট কি, কেনো করা হয়, করলে কি লাভ আর কি ক্ষতি হতে পারেন। ধন্যবাদ।

Continue Reading

এন্ড্রয়েড টিপস

ডাটা কানেকশন সমস্যা সমাধান করুন আপনার এন্ড্রয়েড

Maria Hasin Mim

Published

on

আসসালামু আলাইকুম সুপ্রিয় পাঠক এবং পাঠিকাগন। কেমন আছেন আপনারা সবাই?আশা করি আপনারা সকলে যে যার অবস্থানে ভালো আছেন এবং সুস্থ আছেন। আপনারা সকলে নিজ নিজ অবস্থানে ভালো আছেন এবং সুস্থ আছেন সেই কামনায় ব্যক্ত করি সবসময়।

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ইন্টারনেট খুব মারাত্মক প্রভাব বিস্তার করে আছে। ইন্টারনেট ছাড়া আমাদের দৈনন্দিন জীবনের এক মুহূর্ত কল্পনা করা দুষ্কর। আর সেই জন্য এখন প্রায় সবার ফোনে ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন রয়েছে। এখনো ওয়াইফাই ঢালাওভাবে ব্যবহার করা না গেলেও ডাটা কানেকশান প্রায় সবারই ব্যবহার করে থাকে।

ইন্টারনেট এর সহজলভ্যতা এখন তাই সকলেই ইন্টারনেট ব্যবহারে আকৃষ্ট হচ্ছে। কিন্তু অনেক সময় আমাদের ডাটা কানেকশান সমস্যা কিভাবে  এন্ড্রয়েড ফোনে ডাটা কানেকশান ও করা থাকলেও ,ফোনে পর্যাপ্ত মেগাবাইট থাকলেও ইন্টারনেট সংযোগ হয় না। তা নিয়ে সবসময় আমাদের বিপত্তির মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। আজ আমি দেখাবো কিভাবে এন্ড্রয়েড ফোনে ডাটা কানেকশান সমস্যা সমাধান করবো :

১.প্রথমে আপনার ফোনের ডাটা কানেকশান চালু রাখুন। নিশ্চিত হউন যে ডাটা কানেকশান চালু থাকা সত্ত্বেও আপনার মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট কানেকশান চালু করা যাচ্ছে  না।



২.তারপর আপনার এন্ড্রয়েড ফোনে সেটিং অপশনে যাবেন এবং সেখান থেকে মোবাইল নেটওয়ার্ক অপশনে প্রবেশ করুন।

৩.মোবাইল নেটওয়ার্ক অপশন থেকে APN  সেটিং এ যাবেন এবং সেখান থেকে যে সিম দিয়ে নেট চালাবেন সেই সিমে প্রবেশ করুন।

৪.সেখানে আপনার নিউ APN  সেট করতে হবে। তাই প্লাস চিহ্নতে (+) ক্লিক করুন।

৫.তারপর আপনি যে সিম দিয়ে নেট চালাতে চান সেই সিমে এর নাম এর পশে ওয়েব দিয়ে নিউ এপিএন সেট করুন।

৬.তারপর এপিএন বক্সে ছোট হাতের ইন্টারনেট লিখুন। কাজ শেষ হলে সেভ বাটনে ক্লিক করুন।

৭.তারপর যা ঠিক করেছেন তা এনাবেল করে দিন।

এইবার ফুলস্পিডে ইন্টরনেট চালান।
আশা করি এন্ডয়েড এর ইন্টারনেট ঝামেলা আর হবে না।

ধন্যবাদ সবাইকে। সামনে নতুন কোনো টপিক নিয়ে হাজির হব আপনাদের সামনে।
মাস্ক পড়ুন
সুস্থ থাকুন

Continue Reading

এন্ড্রয়েড টিপস

চুরি থেকে মোবাইল বাঁচান থিফ গার্ড এর মাধ্যমে। চুরি যাওয়া মোবাইল কোথায় আছে দেখার উপায়।

Md Jahidul Islam Shakil

Published

on

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমতুল্লাহ

চোরি থেকে মোবাইল বাঁচান থিফ গার্ড এর মাধ্যমে। চুরি যাওয়া মোবাইল কোথায় আছে দেখার উপায়   

রাস্তায় হাঁটতে সময় কিংবা বাড়িতে রাখার সময় যদি হঠাৎ করে আপনার মোবাইল চুরি হয়ে যায় তখন কি করবেন। হয়তো আইন এর সাহায্য নিবেন। দীর্ঘ হয়রানি কিংবা মোবাইল না পরপর একটা সময় আপনি নিজেই মোবাইল ফিরে পাওয়ার আশা ছেড়ে দেবেন।

আপনি শুধু মোবাইল হারাবেন না। মোবাইল হারানো সাথে সাথে কিন্তু আপনার শত ইনফর্মেশন হারিয়ে যাবে। বর্তমানে এই প্রযুক্তির যুগে আমাদের মোবাইলে আমাদের শত ইনফরমেশন থাকে। এবং আমাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত গুলো সহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মোবাইলে থাকে। মোবাইল হারিয়ে যাওয়ার সাথে অনেক তথ্য আমরা হারিয়ে ফেলি।

এমনই একটি পরিস্থিতি থেকে শিক্ষা নিয়েই সমস্যা সমাধানে জন্য আগ্রহ প্রকাশ করে বাংলাদেশের এক উদ্যোক্তা সাইদুর রহমান তার নিজস্ব পরিকল্পনা এবং প্রচেষ্টার মাধ্যমে এবং তাদের সম্বন্ধে প্রকল্পের ফলে ভালো একটা অ্যাপস আপনাদের সাথে নিয়ে আসে জেটা থেকে আপনার এই সমস্যাগুলো সমাধান অনেকটা কমাতে পারবেন



১৩ টি ফিচারের এই অ্যাপ বাজারে আনছে সফটালোজি আইটি কোম্পানি । থিফগার্ড ডট কম থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন। অ্যাপসটা বিশ্বমানের একটা অ্যাপস এবং অনেক ভালো একটা অ্যাপস। তবে এটা এখন পর্যন্ত প্লে স্টোরে পাবলিশ করা হয়নি।

আর এরকম অ্যাপস গুলো সাধারণত ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করতে হয়। আমি আপনাদের সুবিধার জন্য নিচে তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট লিংকটা দিয়ে দিচ্ছি। আপনি সেখানে গেলে সবার উপরই ডাউনলোড বাটন টা পেয়ে যাবেন সেখানে ক্লিক করে আপনি এই অ্যাপস টা ডাউনলোড করতে পারবেন।

সাইট: https://link.grathor.com/im

এই অ্যাপ অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন 7 থেকে শুরু করে এন্ড্রয়েড ভার্সন 12 পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবেন। এবং তারা প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পরবর্তীতে আইফোন সহ সকল অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য যাতে ব্যবহার করতে সুবিধা হয়। সেই জন্য কাজ করে যাচ্ছে নিয়মিত এবং এটা অনেকেই মনে করছে যে পুরো বিশ্ববাসীর জন্য অ্যাপস টা অনেক কাজে দেবে।

ডাউনলোড করার পর এখানে আপনার জিমেইল মোবাইল নাম্বার পাসওয়ার্ড দিয়ে একটা একাউন্ট তৈরী করতে হবে। অ্যাকাউন্ট তৈরি করা হয়ে গেলে আপনারা অ্যাপসটা সেটআপ করে নেবেন। সেটআপ করা হয়ে গেলে আপনার মোবাইল যখন ভুল পাসওয়ার্ড দিয়ে কেউ লক খোলার চেষ্টা করবে। সে ক্ষেত্রে তারা এটা আপনাকে সতর্ক করে দেবে একটা আওয়াজ এর মাধ্যমে।

এরপর যখন কেউ আপনার মোবাইল থেকে সিম কার্ড কিংবা অন্যকিছু খুলতে চাইবে সে ক্ষেত্রে আপনার জিমেইলে অটোমেটিক ছবিসহ ম্যাসেজ করে দেবে। এবং কেউ চাইলেই আপনার মোবাইল বন্ধ করতে পারবে না। আপনি এখানে আপনার তথ্য সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন।

প্রথম অবস্থায় যেহেতু মাত্র অ্যাপসটা এনেছে এবং এটা বাংলাদেশের ডেভেলপারদের তৈরি একটা অ্যাপস। সে ক্ষেত্রে প্রথম অবস্থায় আপনি খুব বেশি স্বাবলম্বী ভাবে ব্যবহার করতে না পারলেও আস্তে আস্তে টা অনেক বেশি ব্যবহার উপযোগী হয়ে উঠবে।

এ নিয়ে তারা সকলেই কাজ করছে এবং বাংলাদেশের একটা ভালো মানের অ্যাপস হতে চলেছে এটা। তো আপনার এটা ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আশা করি আপনাদের তথ্যগুলো আপনার সেব রখতে পারবেন এবং নিরাপদ রাখতে পারবেন। ভাল থাকবেন আল্লাহ হাফেজ।

Continue Reading