ওয়ার্ডপ্রেস ট্রাবলশুটিং

ফ্রিল্যান্সারদের অনেকেই মার্কেটপ্লেসে ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে কাজ করেন। অনেক সময় বিভিন্ন সাইটের ট্রাবলশুটিং এর কাজ করতে হয়। বিভিন্ন ইরর সল্ভ করতে হয়। আজকে আমি আপনাদের সামনে ওয়ার্ডপ্রেস এর টুকিটাকি কিছু সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে আলোচনা করব।

একটা রানিং ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে বিভিন্ন কারনে সমস্যা হতে পারে এবং রানিং সাইট বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কখনো ফাইল করাপ্ট, ব্লাক পেজ আসা, লগইন পেজ না আসা, পিএইচপি ইরর বা সাইট হ্যাক হয়ে যাওয়া ইত্যাদি।

বাট সমস্যা যেইটাই হোক, সকল সমস্যারই সমাধান আছে।

এছাড়াও যারা যারা নিউবি এবং নিজেদের সাইটে কাজ করেন, অনেকেই সাইটে ভয়ে কাজ করতে চান না এই ভয়ে যদি সাইটের সমস্যা হয়। 

বাট সাইট নষ্ট না করলে ঠিক করা শিখবেন কেমনে?

আমি যখন নতুন কম্পিউটার হাতে পেলাম, বিভিন্ন সফটওয়্যার ইন্সটল করতাম, বিভিন্ন ফাংশন চেঞ্জ করতাম, দেখতাম কোনটায় কি কাজ হয়। আর এইভাবেই ধিরে ধিরে কম্পিউটার শেখা। যদি কোন প্রবলেম হত তাহলে যে যে স্টেপে যাবার পর সেটিংস টা করে প্রবলেম হয়েছে ওখানে আবার গিয়ে সেটিংস চেঞ্জ করে প্রবলেম ঠিক করতাম।

<

আর যদি ঠিক না ই করতে পারতাম, সল্যুশন তো ছিলই। সফটওয়্যার আনইন্সটল করে আবার ইন্সটল দিতাম ।

ওয়ার্ডপ্রেস এর ক্ষত্রেও ঠিক সেম, যদি ঘাটাঘাটি না করেন তাহলে অনেক কিছুই জানতে পারবেন না। সমস্যা হবে, সমস্যা সল্ভ করবেন। আর যদি না করতে পারেন সেইটারও সলুশন আছে। পুরো সাইট ঠিক রেখেও সাইট নতুন করে ইন্সটল করা যায়।

আসুন ওয়ার্ডপ্রেস এর কিছু কমন প্রবলেম ও তার সমধান সম্পর্কে জানি…

১। Briefly unavailable for scheduled maintenance. Check back in a minute.

এইটা কোন সমস্যা না। যখন ওয়ার্ডপ্রেস আপডেট হয় বা ওয়ার্ডপ্রেসের কোন প্লাগইন আপডেট করা হয় তখন অটোমেটিকভাবেই সাইটে এই মেইনট্যানেন্সমুড চলে আসে। আপডেট সম্পুর্ন হয়ে গেলে আবার অটোমেটিকভাবেই এইটা চলে যায়।

তবে কিছু ক্ষেত্রে বিভিন্ন কারনে আপডেট অসম্পুর্ন থেকে গেলে এই ম্যাসেজটা আর যায় না। তখন সাইটে ভিজিট করলে এই ম্যাসেজ দেখায় বা ড্যাশবোর্ডেও আর ঢোকা যায় না।

সমাধানঃ এই জন্যে অবশ্যই আপনার সিপ্যানেল এর এক্সেস থাকতে হবে। সিপ্যানেল এ লগইন করে ফাইল ম্যানেজারে যান। যেখান থেকে public_html ডাইরেক্টরীটা ওপেন করুন (বা ওয়ার্ডপ্রেস এর রুট ডাইরেক্টরী ওপেন করুন)

এখান থেকে আপনি .maintenance নামে একটা ফাইল পাবেন।
সিম্পলী এইটা ডিলিট করে দিন। কাজ শেষ।

অনেক সময় এই ফাইলটা নাও পেতে পারেন। এইটা একটা ডট ফাইল যা কিনা নর্মালী হিডেন অবস্থায় থাকে। এই ক্ষেত্রে ফাইলম্যানেজারেরডান কর্নারে উপরের দিকে settings এ ক্লিক করুন এবং Show Hidden Files (dotfiles) এ টিক দিয়ে সেভ করে দিন।

তাহলেই ডট ফাইলগুলো পেয়ে যাবেন।

২। অনেক সময় রানিং সাইট চলতে চলতে বন্ধ হয়ে যেতে পারে। যেমন সাইট, ড্যাশবোর্ড ওপেন না হওয়া, ব্লাক পেজ আসা।

কয়েকটা কারনে এমন হতে পারে। ওয়ার্ডপ্রেস এর সম্পুর্ন অটোআপডেট বা অটোআপডেট এর পর কোন প্লাগইন কনফ্লিক্ট করলে, ক্যাশ প্লাগইন এর কারনে।

সমাধানঃ সাইটে যে সমস্যাই হোক না কেনো, সর্বপ্রথম আপনি সিপ্যানেল থেকে error_log ফাইল চেক করবেন। অনেক সময় এই ফাইল থেকেই আপনার সমস্যার কারন বেড়িয়ে আসতে পারে। error_log ফাইলটি পাবেন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইট যে ডাইরেক্টরীতে সেটআপ করা আছে সেই ডাইরেক্টরীতে। যদি সিপ্যানেল এর মুল ডোমেইনে সেটআপ করা থাকে তবে public_html ফোল্ডারের মধ্যেই এটি পেয়ে যাবেন। 

এখানে ডেট অনুযায়ী সিরিয়ালে ইররগুলো দেয়া থাকে। ফাইলে যদি অনেক বেশি কোড থাকে তবে একেবারে নিচের দিক দেখা শুরু করেন।

যে প্লাগইন বা থিমের কারনে সমস্যা হচ্ছে সিম্পলী তা সিপ্যানেল থেকে ডিলিট করে দিন। তারপর ড্যাশবোর্ড যদি ওপেন হয় তবে ড্যাশবোর্ডে লগইন করে আবার ঐ প্লাগইন ইন্সটল করে নিন।

error_log ফাইল যদি অনেক বড় হয় এবং সিপ্যানেলে যদি এডিট করার অপশন না পান তাহলে পিসিতে ডাউনলোড করে নিন এবং নোটপ্যাড বা নোটপ্যাড++ দিয়ে এডিট করুন।

৩। The site is experiencing technical difficulties

এইটাও ১ নং এর মত আপডেট জনিত সমস্যা হতে পারে। আবার প্লাগইন বা থিমের PHP error জনিত সমস্যা হতে পারে। WordPress 5.2 এর পর থেকে এইটা নিয়ে একটা জটিলতা সৃষ্টি করেছে। যেইটা আসলে একটা কনফিউশিং ব্যাপার। প্রথমেই ১ নম্বরের পদ্ধতি এপ্লাই করবেন। কাজ না হলে বা আপডেট জনিতো সমস্যা না হলে বুঝতে হবে এইটা আগের fatal error টাইপের প্রবলেম।

এই সমস্যাতে পুরো সাইট নাই হয়ে যেতে পারে বা সাইটের নির্দিষ্ট কোন জায়গায় বা শুধু পেজে বা শুধু পোস্টে গেলে এই ধরনের ম্যাসেজও দেখতে পারেন।

এই ক্ষেত্রে ২ নম্বর পদ্ধতিটা এপ্লাই করবেন। অর্থ্যাৎ error_log দেখে বোঝার চেস্টা করবেন এইটা কোন প্লাগইন এর কারনে হচ্ছে কিনা বা থিমের সমস্যা কিনা। যদি প্লাগইন এর সমস্যা হয় তবে wp-content>plugins ফোল্ডার থেকে ঐ নির্দিস্ট প্লাগইন এর ফোল্ডার ডিলিট করে দিলেই সাইট ঠিক হয়ে যাবে।

৪। অনেক সময় error_log ফাইল থেকে প্রবলেম বোঝা যায় না। দেখা যায় wp-includes ফোল্ডারের কোন একটা ফাইল থেকে ইরর দেখাচ্ছে। বাট এইটা তো ওয়ার্ডপ্রেসের কোর ফাইল। এর কারন হচ্ছে কোন একটা প্লাগইন বা ফাংশন কোড থেকে ইরর আসতেছে যেইটা wp-includes এ থাকা কোড এর সাথে কনফ্লিক্ট করতেছে।

এই ধরনের প্রবলেম এর ক্ষেত্রে ঐ নির্দিষ্ট প্লাগইন কে খুজে বের করা বেশ জটিল।

সমাধানঃ এই ক্ষেত্রে ঐ কালপ্রিট প্লাগইন কে খুজে বের করতে হবে content>plugins এ গিয়ে সবগুলো প্লাগইন জিপ করে নিয়ে প্লাগইন এর ফোল্ডারগুলো ডিলিট করে দিতে হবে। এই অবস্থায় সাইট লোড দিলে যদি সাইট আসে (সাইট ভাঙ্গা অবস্থাতেও আসতে পারে, বাট নো প্রবলেম) তাহলে কোন একটা প্লাগইন থেকে প্রবলেম। যদি সাইট না আসে তাহলে থিমের প্রবলেম। একইভাবে থিমও জিপ করে থিমটা ডিলিট করে দিতে হবে। থিম ডিলিট করে দিলে সাইটের ফ্রন্ট পেজ আর লোড হবে না, তবে ওয়ার্ডপ্রেস এর লগইন পেজ লোড হবে। এরপর লগইন করে অন্য থিম ইন্সটল বা এক্টিভ করে দিলে সাইট চলে আসবে।

যদি প্লাগইন এর প্রবলেম হয় তাহলে এখন ঐ প্লাগইন টাকে খুজে বের করতে হবে। এই ক্ষেত্রে ঐ জিপ ফাইল আনজিপ করে সকল প্লাগইন আগেরমত করে দিয়ে একটা একটা করে প্লাগইন এর ফোল্ডার রিমুভ করতে হবে আর সাইট লোড দিতে হবে। যে প্লাগইনটা ডিলিট করার পর সাইট আসবে, ধরে নিতে হবে ঐ প্লাগইন এ সমস্যা।
.
আজ তাহলে এ পর্যন্তই।
আগামীতে আরো নতুন কিছু নিয়ে হাজির হবো ইনশাআল্লাহ।

Related Posts

11 Comments

মন্তব্য করুন