পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট পাঁচটি নদী

সাধারণত প্রবাহমান জলের ধারাকে নদ বা নদী হিসেবে অভিহিত করা হয়। এই নদ বা নদীগুলোর দৈর্ঘ্য একই নয়। কোনো কোনো নদ বা নদীর রয়েছে বিশাল দৈর্ঘ্য আবার কোনোটি আকারে বেশ ছোট। আমাদেরকে পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহত্তম নদীর নাম বলতে বললে বেশিরভাগই আমাজন নদী বা নীল নদের নাম নিব কিন্তু পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট নদীর নাম জিজ্ঞাসা করলে হাতে গুনা দু-একজন ছাড়া বলতে পারবো না। তাই আজ আমি আপনাদেরকে পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট পাঁচটি নদীর সম্পর্কে জানাবো।

০১। রেপ্রুয়া নদী

পূর্ব ইউরোপের দেশ জর্জিয়ার আবখাজিয়া প্রদেশের গ্যাগরা জেলাই রেপ্রুয়া নদী অবস্থিত। এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী এটি পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দৈর্ঘ্য এর নদী। এটির দৈর্ঘ্য মাত্র ১৮ মিটার বা ৫৯ ফুট। এটি কার্স্ট ক্রুবেরা গুহা থেকে উৎপন্ন হয়ে অল্প দুরেই কৃষ্ণ সাগরে পতিত হয়েছে।

০২। তাম্বোরাসি নদী

পৃথিবীর দ্বিতীয় ছোট দৈর্ঘ্যবিশিষ্ট নদী হচ্ছে তাম্বোরাসি নদী। এটি মাত্র ২০ মিটার দীর্ঘ এবং গড়ে ১৫ মিটার প্রশস্ত। এ নদীটি ইন্দোনেশিয়ার দক্ষিণ-পূর্ব সুলাওয়েসি প্রদেশের তাম্বোরাসি গ্রামে  অবস্থিত। গ্রামের নাম থেকেই নদীটির নামকরণ হয়েছে। এটি কোলাকা শহর থেকে প্রায় ৪৩ মাইল উওরে অবস্থিত একটি ঝরনা থেকে উৎপন্ন হয়ে ফ্লোরেস সাগরে পতিত হয়েছে। আশ্চর্যজনক হলেও এটি সত্যি যে এ নদীর পানি সবুজ বর্নের এবং অত্যন্ত স্বচ্ছ। আর এ কারনেই নদীটি প্রকৃতিপ্রেমিক পর্যটকদের কাছে এক অন্যন্য আকর্ষণ।

০৩। কোভাসেলভা নদী

আমাদের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে কোভাসেলভা নদী। এটি নরওয়ের সপ্তম বৃহত্তম দ্বীপ হিতরাতে অবস্থিত। এর দৈর্ঘ্য মাত্র ২২ মিটার। এ নদীটি কোভাসভ্যাটনেট হ্রদ থেকে উৎপত্তি লাভ করে নরওয়েন সাগরে পতিত হয়েছে। এ নদীর পানিও অত্যন্ত স্বচ্ছ তবে প্রচণ্ড শীতল।

০৪। ওম্বলা নদী

ছোট দৈর্ঘ্যবিশিষ্ট নদীর তালিকায় চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে ওম্বলা নদী। এটি ক্রোরেশিয়া রাষ্ট্রের ডালমেশিয়া প্রদেশের ডুব্রোভনিক শহরের উওর-পূর্বে অবস্থিত। এটি মাত্র ৩০ মিটার বা ৯৮ ফুট দীর্ঘ। আশ্চর্যজনক হলেও নদীটির পানির মূল উৎস হচ্ছে ট্রেবিসঞ্জিকা প্রবাহ এর ভূগর্ভস্থ জল। আর নদীটি তার উৎপত্তিস্থল থেকে অল্প দুর প্রবাহিত হয়ে এড্রিয়াটিক সাগরের রিজেকা দুব্রোভাকা নামক খাঁড়িতে পতিত হয়েছে। নদী এবং খাঁড়ির দৃশ্য এতটাই মনঃমুগ্ধকর যে এখানে প্রতি বছর প্রচুর পর্যটক অবকাশ যাপন করতে আসেন।

০৫। জেজারনিকা নদী

আমাদের তালিকায় পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে জেজারনিকা নদী। এটি পশ্চিম স্লোভেনিয়ার ইদ্রিজা শহরের নিকটে অবস্থিত। এর দৈর্ঘ্য মাত্র ৫৫ মিটার বা ১৮০ ফুট। নদীটি ওয়াইল্ড হ্রদ থেকে উৎপন্ন হয়ে সবশেষে এড্রিয়াটিক সাগরে পতিত হয়েছে। নদীটি আকারে ছোট হলেও এটি সেখানকার বাস্তুসংস্থানের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। ভরা মৌসুমে অর্থাৎ বর্ষায় নদীটিতে প্রতি সেকেন্ডে ৬০ ঘনমিটার পানি প্রবাহিত হওয়ার রেকর্ড রয়েছে।

<

পৃথিবীর ছোট দৈর্ঘ্যবিশিষ্ট পাঁচটি নদীর নাম জানার পর আপনাদের অবশ্যই বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট নদীর নাম জানতে ইচ্ছা করছে। এটা খুবই স্বাভাবিক বিষয়। আর আপনাদের এ কৌতূহল মিটানোর জন্য আমি আপনাদেরকে বাংলাদেশের সবছেয়ে ছোট নদী সম্পর্কেও জানাচ্ছি।

বাংলাদেশের সবছেয়ে ছোট নদী হলো গোবরা নদী। এটি বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্ত নদী। এটি পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়াতে অবস্থিত। নদীটির অপর পাড়ে রয়েছে ভারতের দার্জেলিং জেলা। এটি মাত্র ৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং গড়ে ৫০ মিটার প্রশস্ত। বর্তমানে নদীটিতে বিভিন্ন ধরনের ময়লা-আর্বজনা এবং বর্জ্য ফেলার কারণে  ভরাট হয়ে যাচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে নদীটি খুব শিঘ্রই তার অস্তিত্ব হারাবে।

আজ এখানেই ইতি টানছি। ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। এমন সব দারুন দারুন তথ্য সম্বলিত পোস্ট পেতে গ্রাথোর এর সাথেই থাকুন এবং গ্রাথোর ফেসবুক পেইজ ও ফেসবুক গ্রুপ এ যুক্ত থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Related Posts

15 Comments

মন্তব্য করুন